হিজলায় বেপরোয়া মাহিন্দ্র ॥ আতংকে পথচারী হিজলায় বেপরোয়া মাহিন্দ্র ॥ আতংকে পথচারী - ajkerparibartan.com
হিজলায় বেপরোয়া মাহিন্দ্র ॥ আতংকে পথচারী

2:37 pm , July 30, 2020

মোঃ সেলিম, হিজলা ॥ হিজলা উপজেলার প্রাধান সড়কে বেপরোয়া গতিতে পাল্লা দিয়ে চলছে মাহিন্দ্র । আতংকে আছে অন্য সব গাড়ী চালক ও রাস্তার পথচারী। যে কোন সময় ঘটে যেতে পারে বড় ধরনের র্দূঘটনা বা কেড়ে নিতে পারে যেকোন জীবন। হিজলা উপজেলা সদর বাসষ্ট্যান্ড থেকে মুলাদী হয়ে বরিশাল যাওয়ার একমাত্র প্রধান সড়ক। সেখানে বিভিন্ন ধরনের যানবাহন চলে এ সড়কে। কিছুদিন পরপর এ সড়কে ঘটে মর্মান্তিক র্দূঘটনা। হিজলায় সড়কের যানবাহনে অপ্রাপ্ত বয়স্ক প্রশিক্ষনবিহীন অদক্ষ বেপরোয়া ড্রাইভারের কারনে ঘটছে এসব র্দূঘটনা। অনেক সময় এসব অদক্ষ বেপরোয়া চালকদের ধীরগতিতে চালাতে বললে যাত্রীদের অপমান লাঞ্চিত হতে হয়।হিজলার একজন সরকারী র্কমর্কতা নাম প্রকাশ না করার র্শতে বলেন জীবনের ঝুকি নিয়ে তাদের মাহিন্দ্রতে চড়তে হয় । একদিন আমি আস্তে চালাতে বললে প্রতিউত্তরে বলে আমাকে চালাতে।হিজলায় রয়েছে র্অধশতাধিক মাহিন্দ্র যার অধিকাংশ নাই বৈধ কাগজপত্র এমনকি চালকদের নাই ড্রাইভিং লাইন্সেস।প্রতি বছর ঈদ আসলেই বেপরোয়া ড্রাইভার মেতে উঠে কার আগে কে যাবে এই প্রতিযোগিতায় আর র্দূঘটনায় জীবন দিতে হয় যাত্রী ও পথচারীদের।হিজলায় এসব অদক্ষ বেপরোয়া মাহিন্দ্র চালকদের নিয়ন্ত্রনের বিষয়ে আলাপকালে হিজলা উপজেলা র্নিবাহী র্কমর্কতা বকুল চন্দ্র নাথ বলেন আমি মাহিন্দ্রের তালিকা হাতে পেয়েছি তাই বেপরোয়া চালকদের আইনের আওতায় এনে বিচার করবো।হিজলা থানা অফিসার ইনর্চাজ অসীম কুমার ্এর নিকট বেপরোয়া মাহিন্দ্র চালকদের সর্ম্পকে আলাপকালে বলেন আমরা মাহিন্দ্র পরিচালক র্কমর্কতাদের সাথে এ বিষয়ে আলাপ করবো। অন্যদিকে বাস মালিক সমিতির সাধারন সম্পাদক মনোয়ার হোসেন বলেন আমরা আছি মাহিন্দ্র আতংকে,তারা রাস্তায় কোন নিয়মকানুন মানেনা,স্থায়ী ক্ষমতার দাপট দেখায়।মাহিন্দ্র গাড়িতে চারজন নেওয়ার কথা থাকলেও তারা আটজন করে নেয়।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১  




মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT