মঠবাড়িয়ায় প্রবাসী স্বামীকে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানীর অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন মঠবাড়িয়ায় প্রবাসী স্বামীকে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানীর অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন - ajkerparibartan.com
মঠবাড়িয়ায় প্রবাসী স্বামীকে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানীর অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন

3:50 pm , June 29, 2020

মঠবাড়িয়া প্রতিবেদক ॥ মঠবাড়িয়ায় এক সৌদি প্রবাসীর টাকা আত্মসাতের অভিযোগে স্ত্রীর বিরুদ্ধে মামলা করায় পাল্টা মিথ্যা মামলা দিয়ে ওই প্রবাসীকে হয়রানীর অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন করেছেন ভুক্তভোগি পরিবার। আজ সোমবার দুপুরে উপজেলার তেতুলতলা বাজারের একটি ভবনে সংবাদ সম্মেলনে প্রবাসী আল-আমিনের বড় বোন লাইলি বেগম লিখিত বক্তব্যে জানান, তার ছোট ভাই মোঃ আল-আমিন প্রায় ১২ বছর ধরে সৌদি প্রবাসী। তিনি ২০১১ সালে উপজেলার উত্তর মিঠাখালী গ্রামের সালাউদ্দিন জামাদ্দার এর কন্যা মনি আক্তারকে ইসলামি শরীয়ত মোতাবেক বিয়ে করেন। বিয়ের পরে আল-আমিন মঠবাড়িয়া পৌর শহরের কে.এম লতিফ ইনষ্টিটিউশন মার্কেটে একখানা দোকান ঘর ক্রয় করার জন্য স্ত্রী মনি আক্তারের চাচা ওই বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সদস্য আবুল কালামের কাছে চার লাখ ত্রিশ হাজার টাকা দেয়। কিন্তু চাচা শ্বশুর আবুল কালাম প্রবাসী আল আমিনের নামে দোকান ঘর ক্রয় না করে প্রতারণা মাধ্যমে ভাজিতি মনি আক্তারের নামে ক্রয় করেন এবং দলিলে স্বামীর নাম ব্যবহার না করে পিতার নাম ব্যবহার করেন। এনিয়ে স্বামী আল-আমিনের সাথে স্ত্রী মনি আক্তারের মনোমালিন্যের সৃষ্টি হয়। একপর্যায়ে শ্বশুর বাড়ির লোকজন প্রবাসী আল-আমিনের বাড়িতে গিয়ে তাকে মারধর করে মনি আক্তারকে বাবার বাড়িতে নিয়ে আসে। এ ঘটনায় আল আমিন মঠবাড়িয়া থানায় অর্থ আত্মসাৎ ও মারধরের মামলা করলে স্ত্রী মনি আক্তার বাদী হয়ে ওই মামলার ২০ দিন পরে প্রবাসী আল-আমিনসহ ৪জনকে আসামী করে একটি পাল্টা মামলা দায়ের করেন। সংবাদ সম্মেলনে স্থানীয় সমাজ সেবক আঃ রব হাওলাদার, হারুন অর রশিদ, ক্বারী মোঃ সুলতান ও জাহাঙ্গীর আলম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১  




মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT