নলছিটি রানাপাশা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ব্যবহারিক পরীক্ষার নামে অতিরিক্ত অর্থ আদায়ের অভিযোগ নলছিটি রানাপাশা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ব্যবহারিক পরীক্ষার নামে অতিরিক্ত অর্থ আদায়ের অভিযোগ - ajkerparibartan.com
নলছিটি রানাপাশা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ব্যবহারিক পরীক্ষার নামে অতিরিক্ত অর্থ আদায়ের অভিযোগ

1:00 am , February 24, 2020

ঝালকাঠি প্রতিবেদক ॥ নলছিটি রানাপাশা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ব্যবহারিক পরীক্ষার নামে অতিরিক্ত অর্থ আদায়ের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ২০২০ সালের এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নেয়া পরীক্ষার্থীদের নিকট থেকে তিনশত টাকা করে বাড়তি ফি আদায় করেছেন প্রতিষ্ঠানের প্রধান শিক্ষক বাবুল চক্রবর্তী ও শারীরিক শিক্ষক মো: মাহবুবুর রহমান(পল্টু)।স্কুলের শিক্ষার্থী ও অভিভাবক সূত্রে জানা যায় ,শারিরীক শিক্ষা, ক্যারিয়ার শিক্ষা ও তথ্য যোগাযোগ তিনটি বিষয়ে ১৪০জন শিক্ষার্থীদের প্রতিজনের নিকট হতে ৩০০টাকা হারে মোট ৪২,০০০ টাকা আদায করে।কিন্তু এখানে ৩টি বিষয়ের মধ্যে তথ্য যোগাযোগবিষয়ে বোর্ড নির্ধারিত ২৫ টাকা ধার্য আছে। অন্য ২ বিষয়ে কোন ফি নেয়ার বিধান নাই। কিন্তু প্রতি শিক্ষার্থী প্রতি ৩০০টাকা আদায় করা হয়েছে কিভাবে এটা প্রশ্ন শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এই স্কুলের দুইজন শিক্ষক সাংবাদিকদের মুঠোফোনে জানান, “আমরা প্রধান শিক্ষকের কাছে জিম্মি হয়ে আছি। কোন মন্তব্য করতে পারছি না।প্রধান শিক্ষক যা খুশি তা করে যাচ্ছেন। প্রধান শিক্ষকের সাথে মাহাবুবুর রহমান (পল্টু) মিলে এসএসসি শিক্ষার্থীদের নিকট থেকে ব্যবহারিক বাবদ অতিরিক্ত টাকা তুলে ভাগ করে নেয়।”এসএসসি পরীক্ষার্থীদের অভিভাবক মো: হারুন (ফোন-০১৯৬৪৮০১৫১৭) ও মো: আনোয়ার হোসেন(ফোন-০১৯১১৫৫৪২০৮) মুটোফোনে জানান, প্রতি শিক্ষার্থীর নিকট থেকে ৩০০টাকা করে ব্যবহারিক ফি বাবদ চাঁদা গ্রহন করেছে স্কুল কর্তৃপক্ষ। এ ব্যাপারে প্রধান শিক্ষক বাবুল চক্রবর্তীর নিকট মুঠোফোনে জানতে চাইলে তিনি জানান, “শিক্ষার্থীদের নিকট কোন ব্যবহারিক ফি নেয়া হয়নি এবং এ বিষয় আমি কিছু জানি না। ব্যবহারিক ফি আদায়কারী শিক্ষক মাহাবুবর রহমান (পল্টু) কে ১৯/০২/২০২০ তারিখ সন্ধ্যা ৭.১৬মি. তার ব্যবহৃত মুঠোফোন ০১৭১৬৫৪০৩৫৮ নম্বরে ফোন দিলে তিনি রিসিভ করেননি।২/১ মিনিট পর ফোন দিলে নম্বরটি বন্ধ পাওয়া যায়। উল্লেখ্য প্রধান শিক্ষক বাবুল চক্রবর্তী ২/৩ জন শিক্ষক নিয়ে ফরম ফিলাপ ও প্রবেশপত্র বিতরণের সময় অতিরিক্ত অর্থ আদায় করে ভাগ বাটোয়ারা করে নেয়ার অভিযোগ রয়েছে।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT