৬ বছর ধরে নির্মান হচ্ছে বঙ্গবন্ধু অডিটরিয়াম! ৬ বছর ধরে নির্মান হচ্ছে বঙ্গবন্ধু অডিটরিয়াম! - ajkerparibartan.com
৬ বছর ধরে নির্মান হচ্ছে বঙ্গবন্ধু অডিটরিয়াম!

1:00 am , February 17, 2020

সাঈদ পান্থ ॥ নগরীতে ২০১৪ সালের জানুয়ারী মাসে শুরু হয় প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ বরাদ্দের প্রকল্প বঙ্গবন্ধু অডিটরিয়ামের কাজ। তবে ৬ বছর পর হলেও এখনো শেষ হয়নি এই নির্মাণ কাজ। তাই নগরীর সাংস্কৃতিক অঙ্গনসহ সর্বস্তরের মানুষের প্রশ্ন হয়ে দাড়িয়েছে কাজ শেষ হবে কবে? তবে এই প্রশ্নের জবাব জানে না তদারকির দায়িত্বে থাকা বরিশাল সিটি কর্পোরেশনও। তবে সংশ্লিষ্টদের দাবী অতিরিক্ত বরাদ্দ পেলে নির্মাণ কাজ শেষ করা যাবে।
জানা গেছে, ২০১৪ সালের ১৩ জানুয়ারি বরিশাল সিটি করপোরেশনের (বিসিসি) তত্ত্বাবধানে প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ বরাদ্দে নির্মান কাজ শুরু হয় বঙ্গবন্ধু অডিটরিয়ামের। তৎকালিন সময় এর ব্যয় ধরা হয় প্রায় সাড়ে ১৭ কোটি টাকা। ৫০০ আসনবিশিষ্ট আধুনিক পাঁচতলা বঙ্গবন্ধু অডিটরিয়াম প্রকল্পের শর্তানুযায়ী নির্মাণ কাজ শেষ হওয়ার কথা ছিল ২০১৫ সালের ১২ জানুয়ারি। কিন্তু ৬ বছর পার হলেও বঙ্গবন্ধু অডিটরিয়ামের নির্মাণ কাজ করতে পারেনি সংশ্লিষ্টরা। এ নিয়ে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে স্থানীয় সাংস্কৃতিক অঙ্গনে। যদিও বিসিসির সংশিষ্টরা দাবি করেছেন, বঙ্গবন্ধু অডিটরিয়ামের কাজ প্রায় ৯০ ভাগ শেষ হয়েছে। জানা গেছে, বরিশালের সাংস্কৃতিক অঙ্গনে দীর্ঘদিনের দাবি ছিল একটি আধুনিক অডিটরিয়ামের। ওই দাবির পরিপ্রেক্ষিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিশেষ বরাদ্দ ও আদেশে নগরীর বীরশ্রেষ্ট ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক (সদর রোড)-এর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার ক্যাম্পাসে আধুনিক বঙ্গবন্ধু অডিটরিয়াম নির্মাণ প্রকল্প গ্রহণ করে। কাজও শুরু হয়। কিন্তু অডিটরিয়ামের কাজ শেষ না হওয়ায় অসন্তোষ দেখা গেছে স্থানীয় সাংস্কৃতিক অঙ্গনে। বর্তমানে অডিটোরিয়াম ভবনটির বাহিরে ও অভ্যন্তরে সাজসজ্জাসহ কিছু স্তরের কাজ বাকি রয়েছে। এছাড়াও অডিটোরিয়ামের মূল অংশে সংযোজন করা হবে। আরো করতে হবে দুটি রিহার্সেল রুম, তিনটি গ্রিন রুম, সম্পূর্ণ অডিটোরিয়াম ভবনটি শীতাতপ নিয়নন্ত্রিত, লেজার লাইট, রকমারী ঝাড় বাতিসহ বিশ্বের অত্যাধুনিক ফোকাস লাইট।
বরিশালের ২৭টি সংগঠনের জোট বরিশাল সাংস্কৃতিক সংগঠন সমন্বয় পরিষদের সভাপতি কাজল ঘোষ বলেন, বঙ্গবন্ধু অডিটরিয়াম নির্মাণ কাজে চরম গাফিলতি করা হচ্ছে। সম্প্রতি বাংলাদেশ টেলিভিশনের সাবেক মহাপরিচালক নাট্য ব্যক্তিত্ব ম. হামিদ বঙ্গবন্ধু অডিটরিয়াম পরির্দশন করেছেন। এসময় সিটি মেয়রও ছিলেন। তারা কাজের অবস্থা দেখে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। জরুরী ভিত্তিতে কাজ করার তাগিদ দেন। কিন্তু কিছু টাকার জন্য কাজ আটকে আছে। তিনি বলেন, ‘সাংস্কৃতিক কর্মীদের এই প্রকল্প দ্রুত বাস্তবায়ন করা না হলে সাংস্কৃতিক কর্মীরা আন্দোলনে নামবে বলেও তিনি হুশিয়ারী প্রদান করা হয়।
সাংস্কৃতিক সংগঠন খেয়ালি গ্রুপ থিয়েটারের সাবেক সভাপতি নজরুল ইসলাম চুন্নু বলেন, নগরীর সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের জন্য ভালো কোনো অডিটরিয়াম নেই। বঙ্গবন্ধু অডিটরিয়াম সাংস্কৃতিক কর্মীদের স্বপ্ন দেখিয়েছে। কিন্তু রহস্যজনক কারণে কাজ শেষ হচ্ছে না। প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ বরাদ্দের এ প্রকল্পের কাজ বাস্তবায়নে এমন উদাসীনতা দুঃখজনক। বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের তত্বাবধাক প্রকৌশলী খান মো. নুরুল ইসলামের সাথে বার বার যোগাযোগ করা হলেও তার কোন মন্তব্য পাওয়া যায়নি। তবে কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো: ইসরাইল হোসেন বলেন, এ বিষয়ে আমি ভাল জানি না। তাই কোন মন্তব্যও করতে চাই না।
নাম প্রকাশ না করা শর্তে সিটি কর্পোরেশনের এক প্রকৌশলী বলেন, বিশেষ বরাদ্দের কাজ শেষ হয়েছে আরো ৩ বছর আগে। কিন্তু বাড়তি কিছু কাজের জন্য সিটি করপোরেশনকে টাকা দিতে হবে। করপোরেশন থেকে প্রয়োজনীয় টাকা সময়মতো দেওয়া সম্ভব না হওয়ায় বঙ্গবন্ধু অডিটরিয়ামের শতভাগ কাজ শেষ হয়নি। বঙ্গবন্ধু অডিটরিয়াম নির্মাণ কাজের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান মেসার্স কহিনুর এন্টারপ্রাইজের স্বত্বাধিকারী মোমেন সিকদার জানান, বঙ্গবন্ধু অডিটরিয়ামের কাজ শুরুর পর নকশা পরিবর্তন করায় প্রকল্প ব্যয় বাড়িয়ে ২৫ কোটি করা হয়। বর্ধিত মেয়াদে ২০১৬ সালের জুনে অডিটরিয়ামের কাজ শেষ করে হস্তান্তর করার কথা ছিল। কিন্তু বাড়তি কাজের জন্য করপোরেশন থেকে অর্থ না পাওয়ায় নির্মাণ কাজ শেষ করা সম্ভব হয়নি। এ ব্যপারে বরিশাল জেলা প্রশাসক এসএম অজিয়র রহমান বলেন, বিষয়টি সিটি কর্পোরেশন বাস্তবায়ন করছে। তারাই ভাল বলতে পারবে। তারপরও আমি জানি অতিরিক্ত কিছু বরাদ্দ পেলে কাজটি শেষ করা সম্ভব হবে।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১  




মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT