রাজাপুরে ঝুঁকিপুর্ন ভবনে চলছে শিশু শিক্ষার্থীদের পাঠদান রাজাপুরে ঝুঁকিপুর্ন ভবনে চলছে শিশু শিক্ষার্থীদের পাঠদান - ajkerparibartan.com
রাজাপুরে ঝুঁকিপুর্ন ভবনে চলছে শিশু শিক্ষার্থীদের পাঠদান

2:57 pm , February 6, 2020

রাজাপুর প্রতিবেদক ॥ রাজাপুরের ১৩ নং দক্ষিণ পশ্চিম কাঠিপাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ঝুকিপুর্ন ভবনে পাঠদান করা হচ্ছে। প্রতি বছরের ঝুকিপুর্ন তালিকায় ওই বিদ্যালয়ের নামটি দেয়া হলেও কর্তৃপক্ষ কোন পদক্ষেপ নিচ্ছেন না। পলেস্তরা খসে বা ছাদ ভেঙ্গে যে কোন সময় বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নাসিমা খাতুন বলেন, ১৯৯৫/৯৬ সালের অর্থ বছরে ৪টি কক্ষ বিশিষ্ট বিদ্যালয় ভবনটি নির্মান করা হয়। নির্মানের প্রায় পাঁচ বছরের মধ্যেই ওই ভবনের বিভিন্ন স্থানের পলেস্তরা খসে রড বেরিয়ে বেকে গেছে। ২০০১/০২ অর্থ বছরে এবং ২০১২ সালে দুইবার মেরামত করা হলেও পরবর্তি এক বছরের মধ্যে পলেস্তরা খসে এবং পিলার ফেটে গিয়ে আরো খারাপ অবস্থা হয়েছে। ২০১৪ সালে পুরাতন ভবনের পাশেই দুই কক্ষ বিশিষ্ট একটি নতুন ভবন নির্মান করা হয়। কক্ষ অপ্রতুল হওয়ায় বাধ্য হয়ে পুরাতন ভবনে ঝুকি নিয়ে কমপক্ষে একটি ক্লাশ বসাতে হচ্ছে। সেখানে শিক্ষার্থীরা সব সময় আতঙ্কে থাকে। যে কোন সময় পলেস্তরা খসে অথবা ছাদ ভেঙ্গে পরে হতাহতরে মতো দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। কোমলমতি শিশু শিক্ষার্থীদেরকে দুর্ঘটনার হাত থেকে রক্ষার্থে পুরাতন ভবনটি যতসম্ভব দ্রুত অপসারন করে একটি নতুন ভবন নির্মানের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে স্থানীয় অভিভাবকরা দাবি জানিয়েছেন। এ বিষয়ে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো: নবেজউদ্দিন সরকার বলেন, ওই ভবন সম্পর্কে আমার জানা নাই। তবে এরকম হয়ে থাকলে সেখানে ক্লাশ করানো যাবে না। এর জন্য উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা ও ইউআরসি কর্মকর্তা মিলে একটি কমিটি রয়েছে। সেই কমিটি ওই ধরনের ভবন পরিত্যাক্ত বলে ঘোষনা করতে পারেন এবং নতুন ভবনের জন্য উপজেলা এলজিইডি কর্মকর্তা তালিকা করে আবেদন করবেন। অপরদিকে ওই বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি অথবা স্থানিয় জনপ্রতিনিধি অথবা যে কোন শিক্ষানুরাগী স্থানীয় এমপি’র সুপারিশ নিয়ে নতুন ভবন পাওয়ার জন্য চেষ্টা করতে পারেন।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT