যুদ্ধ অপরাধ মামলার আসামিকে ছেড়ে দেয়ার অভিযোগ যুদ্ধ অপরাধ মামলার আসামিকে ছেড়ে দেয়ার অভিযোগ - ajkerparibartan.com
যুদ্ধ অপরাধ মামলার আসামিকে ছেড়ে দেয়ার অভিযোগ

3:17 pm , January 28, 2020

 

বরগুনা প্রতিবেদক ॥ আন্তর্জাতিক যুদ্ধাপরাধ ট্রাইবুনালে দায়ের করা মামলায় গ্রেফতার হওয়া এক আসামিকে অজ্ঞাত কারণে ছেড়ে দেয়া ও অন্য আসামির ব্যাপারে দৃশ্যমান তৎপরতা না থাকায় বিস্ময় প্রকাশ করে সংবাদ সম্মেলন করেছেন মামলার বাদী বরগুনার পাথরঘাটার শহীদ পরিবার ও মুক্তিযোদ্ধারা।
মঙ্গলবার দুপুরে বরগুনা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে মামলার বাদী শহীদ পরিবারের সদস্য,মিজানুর রহমান আবু সহ উপস্থিত মুক্তিযোদ্বারা অভিযোগ করে বলেন, মুক্তিযুদ্ব চলাকালীন রাজাকার ও শান্তি কমিটির চেয়ারম্যান খলিলুর রহমানের নির্দেশে অগ্নিসংযোগ,লুট,নির্যাতনের অভিযোগে রাজাকার আঃ মন্নান, সুলতান, ইউছুফ, রাজ্জাক, হয়ত আলী ও ফজলুল হকের বিরুদ্ধে আন্তাজার্তিক যুদ্ধাপরাধ ট্রাইবুনালে দায়ের করা মামলায় গ্রেফতারী পরোয়ানা ভুক্ত আসামীকে ছেড়ে দেয়া সহ প্রধান আসামী আঃ মন্নানের গ্রেফতার নিয়ে পুলিশের ভূমিকা হতাশা ব্যাঞ্জক। তারা অভিযোগ করে বলেন, ৩১ ডিসেম্বর ট্রাইবুনালের মামলায় আঃ মন্নান, ফজলুসহ ৬ আসামির বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা আদেশ মেইলের মাধ্যমে পুলিশের নিকট পৌঁছানোর পরে বাদী মুক্তিযোদের নিয়ে আসামী ফজলুল হককে আটক করে পাথরঘাটা থানার ওসি,তদন্ত,সাইদুর রহমানের নিকট হস্তান্তর করেন। পুলিশ আসামিকে হাতকড়া পরিয়ে ভ্যানে করে নিয়ে আসে। পরের দিন ১ জানুয়ারি ২০২০ তাকে পুলিশ ছেড়ে দেয়। কি করে গ্রেফতারি পরোয়ানার আসামিকে পুলিশ ছেড়ে দিলো মুক্তিযোদ্বারা তার প্রশ্ন তোলেন। সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করা হয়,আঃ মন্নানকেও পুলিশ গ্রেফতার করে বিষয়টি গোপন রেখেছে। মুক্তিযোদ্ধারা বলেন, এই সকল যুদ্ধাপরাধীদের বাচাঁতে শান্তি কমিটি ও রাজাকার কমান্ডার খলিলুর রহমানের ছেলে সংসদ সদস্য শওকত হাচানুর রহমান রিমন সকল স্থানে প্রভাব বিস্তার করেছে।
সংবাদ সম্মেলনে মুক্তিযোদ্বাদের মধ্য উপস্থিত ছিলেন,মুক্তিযোদ্বা সাবেক কমান্ডার, আঃ খালেক, শহীদুল আলম তালুকদার,মনি মন্ডল,শহীদুল ইসলাম মুকুল তালুকদার, (অবঃ) সেনা কর্মকর্তা আঃ আব্দুস ছালাম, মুক্তিযোদ্ধা, আলি আকবর, আঃ মন্নান প্রমূখ।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT