ভোলার ঘটনায় জড়িত আওয়ামী লীগের হলেও ক্ষমা করা হবে না ভোলার ঘটনায় জড়িত আওয়ামী লীগের হলেও ক্ষমা করা হবে না - ajkerparibartan.com
ভোলার ঘটনায় জড়িত আওয়ামী লীগের হলেও ক্ষমা করা হবে না

3:04 pm , October 30, 2019

শহিদুল ইসলাম জামাল, চরফ্যাসন ॥ আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ভোলার ঘটনায় বিএনপি ঘোলাপানিতে মাছ শিকারের ষড়যন্ত্র করেছে কিন্তু শেখ হাসিনা সুযোগ দেননি। শেখ হাসিনার ঘোষণা- যারাই ভোলার ঘটনায় জড়িত, কেউ ছাড় পাবে না। আওয়ামী লীগের হলেও খুনিকে ক্ষমা করা হবে না। অপরাধীরা পার পেয়ে যেতে পারবে না। তিনি গতকাল বুধবার দুপুরে ভোলার চরফ্যাসন ঈদগাহ মাঠে উপজেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত সূধি সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। ওবায়দুল কাদের এমপি দলের নেতা-কর্মীদের সতর্ক করে বলেছেন, দলভারী করার জন্য খারাপ লোকদের দলে নেবেন না। খারাপ লোকেরা বসন্তের কোকিল। বসন্ত চলে গেলে এদের আর খুঁজে পাওয়া যাবেনা। নেতা-কর্মীদের উদ্দেশ্যে তিনি আরো বলেন, জনগনের সঙ্গে ভালো আচরণ করবেন। দশটা উন্নয়ন কোন কাজে আসবে না,যদি একটা খারাপ আচরণ করেন। একটা খারাপ আচরণ দশটা উন্নয়নকে ম্লান করে দেয়।তিনি আরো বলেন, ক্ষমতা চিরদিন থাকবেনা। এমন কোন কিছু করবেন না,যাতে নেত্রীর উন্নয়ন ম্লান হয়ে যােেব। শুদ্ধি অভিযান প্রসঙ্গে ওবায়েদুল কাদের বলেন, শেখ হাসিনা লোক দেখানো শুদ্ধি অভিযান করছেন না। তিনি (শেখ হাসিনা) আপন ঘরের লোককেও ছাড় দেননি। শেখ হাসিনা বাংলার জনগনের চোখের ভাষা মুখের ভাষা মনের ভাষা বুঝতে পারেন। তাই মানুষ যাদের কার্যকলাপে অসন্তোষ্ট , তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে শুরু করেছেন।
বিএনপিকে উদ্দেশ্য করে ওবায়েদুল কাদের বলেন, বিএনপি বাংলাদেশ ন্যাশনাল পার্টির বদলে বাংলাদেশ নালিশ পার্টিতে পরিনত হয়েছে। ক্ষমতায় থেকে বিএনপি অত্যাচার নির্যাতন সন্ত্রাস দূর্নীতি ও লুটপাট করেছে। জনগনের রক্ত ঝড়িয়েছে। তাই জনগন আজ বিএনপির সঙ্গে নেই। জনগনের সমর্থন হারিয়ে বিএনপি পথ হারিয়ে পথে বসেছে। ওবায়েদুল কাদের আরো বলেন, এদেশের ইতিহাস বলে-আন্দোলনে ব্যর্থরা নির্বাচনে বিজয়ী হয়না। বিএনপি আন্দোলনে ব্যর্থ হয়ে এখন ইস্যু খুঁজছেন। বিএনপি নিরাপদ সড়ক আন্দোন থেকে কোটা আন্দোলন পর্যন্ত ইস্যু খুঁজে পায়নি। ভর করেছে আবরার হত্যাকান্ডের উপর। কিন্ত শেখ হাসিনা সেখান থেকেও কোন ইস্যু নিতে দেননি। সর্বশেষ বিএনপি ভোলার ঘটনায় পানি ঘোলা করে মাছ শিকার করতে চেয়েছে।
ভোলা-৪ আসনের সংসদ সদস্য আবদুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকবের সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য রাখেন চরফ্যাসন উপজেলা চেয়ারম্যান জয়নাল আবেদিন আখন, উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারন সম্পাদক নুরুল ইসলাম ভিপি ও পৌর আওয়ামী লীগ সাধারন সম্পাদক মনির আহমেদ শুভ্র। এর আগে মন্ত্রী ৪০ কোটি টাকা ব্যয়ে চরফ্যান-বেতুয়া সড়কের উদ্বোধন করেন। এছাড়া মন্ত্রী জ্যাকব টাওয়ার এবং শেখ রাসেল শিশু ও বিনোদন পার্ক পরিদর্শন করেন। সভায় মন্ত্রী ভোলার-চরফ্যাসন-বাবুরহাট আঞ্চলিক মহাসড়ক প্রস্তত করণে ১হাজার কোটি টাকা বরাদ্দের ঘোষণা দেন।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT