পেঁয়াজ-রসুন-আদা,শাক-সবজির অগ্নিমূল্যে কষ্ট বাড়াচ্ছে দক্ষিণাঞ্চলবাসীর পেঁয়াজ-রসুন-আদা,শাক-সবজির অগ্নিমূল্যে কষ্ট বাড়াচ্ছে দক্ষিণাঞ্চলবাসীর - ajkerparibartan.com
পেঁয়াজ-রসুন-আদা,শাক-সবজির অগ্নিমূল্যে কষ্ট বাড়াচ্ছে দক্ষিণাঞ্চলবাসীর

2:47 pm , October 5, 2019

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ পেঁয়াজের অস্বস্তির মধ্যে আদা, রসুন সহ সবজির মূল্য দক্ষিণাঞ্চলবাসীকে যথেষ্ট কষ্ট দিচ্ছে। সম্প্রতিকালের মধ্যে পেঁয়াজ, রসুন আর আদার অগ্নিমূল্যে সাধারন মানুষের দূর্ভোগ এখন সব বর্ণনার বাইরে। এ ৩টি নিত্যপণ্যের অগ্নিমূল্যে অনেকের পক্ষেই সংসার ব্যয় নির্বাহ এখন দুঃসাধ্য হয়ে পড়েছে। অন্য ব্যয় হ্রাস করে খাবার খরচ মেটাতে গিয়েই নি¤œবিত্ত ও নি¤œ-মধ্যবিত্তের সংসারে চলছে নানামুখি টানা পোড়েন। নানা অভিযান আর কথার চালাচালির পরেও বরিশালের পাইকারী বাজারে পেঁয়াজের কেজি ৭০ টাকার নিচে নামান যায়নি। খুচরা পর্যায়ে তা ৭৫Ñ৮০ টাকায়ও বিক্রী হচ্ছে। গ্রামেগঞ্জে তা আরো ৫ টাকা বেশী। রসুন আর আদার দামে দূর্ভোগ আরো বেশী। এ ৩টি নিত্যপণ্য আমদানী নির্ভর হয়ে পড়ায় সরবারহ ব্যবস্থায় যেকোন ধরনের ব্যত্যয় ঘটলেই বাজারে বিরূপ প্রভাব পড়ছে। দেশে রসুনের উৎপাদন আগের তুলনায় বাড়লেও সেক্ষেত্রে স্বয়ংসম্পূর্ণ হওয়ায় যায়নি। আদার উৎপাদনও চাহিদার অনেক পেছনে। পেঁয়াজ চাহিদার ৬০ ভাগই আমদানি নির্ভর। ফলে রপ্তানীকারক দেশের খেয়াল খুশির ওপরই পেঁয়াজ সহ এসব নিত্য পণ্যের বাজার নির্ভরশীল হয়ে পড়েছে।
আর এরই ধারাবাহিকতায় দক্ষিণাঞ্চলের বাজারে পেঁয়াজের কেজি এখন ৮০ টাকা। রসুন ১৩০ টাকা, আদা ১৬০ টাকা। ভারত রপ্তানি বন্ধ করার ঘোষনার ২৪ ঘন্টার মধ্যে দক্ষিণাঞ্চলের খোলাবাজারে পেঁয়াজের কেজি ১২০ টাকায়ও উঠেছিল। তবে প্রশাসনিক কিছু তৎপড়তায় তা আবার ৮০ টাকায় নেমেছে। কিন্তু এ অঞ্চলে নি¤œবিত্ত ও নি¤œ-মধ্যত্তি পরিবারগুলোর পক্ষে ৮০ টাকা কেজি দরে পেঁয়াজ কেনাও দুঃসাধ্য। রাষ্ট্রীয় বানিজ্য সংস্থাÑটিসিবি এখন পর্যন্ত বরিশাল মহানগরী সহ দক্ষিণাঞ্চলের কোথাও খোলা বাজারে পেঁয়াজ বিক্রির কোন উদ্যোগ গ্রহন করেনি। ফলে সরবারহ বৃদ্ধি না পাবার সাথে সিন্ডিকেটের অপতৎপরতায় পেঁয়াজ বাজার নিয়ন্ত্রন টেকসই নাও হতে পাড়ে বলে মনে করছেন ওয়াকিবাহাল মহল।
এদিকে গত মাসখানেক ধরেই দক্ষিণাঞ্চলে সব ধরনের শাক-সবজির দামও আকাশ ছোয়া। এক আঁটি লাল শাকও এখন বরিশালের বাজারে ৩০ টাকা। ৪০ টাকা কেজির নিচে কোন সবজী নেই। ওপরে ৮০Ñ১শ টাকা কেজি দরেও বেশীরভাগ সবজী বিক্রি হচ্ছে। শীতকালীন সবজি উঠতে আরো দিন কুড়ি বাকি। তবে সেসব সবজির দামও সাধারন ক্রেতার নাগালে আসেত মাসখানেক অপেক্ষা করতেই হবে।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT