ফাঁসাতে গিয়ে ফেসেছে আইএসটি’র কর্মচারী ফাঁসাতে গিয়ে ফেসেছে আইএসটি’র কর্মচারী - ajkerparibartan.com
ফাঁসাতে গিয়ে ফেসেছে আইএসটি’র কর্মচারী

3:14 pm , September 30, 2019

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ নিজ প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তাকে ইয়াবা দিয়ে ফাঁসাতে গিয়ে এবার নিজেই শ্রীঘরে গেলেন বরিশাল আইএসটি’র ড্রাইভার আলমগীর। গতকাল সোমবার তাকে মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করা হলে আদালতের বিচারক তাকে জেল হাজতে প্রেরনের নির্দেশ দেন। ঘটনা সুত্রে জানা গেছে, গত ১৭ আগষ্ট গোপন সংবাদের ভিত্তিতে নগর গোয়েন্দা পুলিশের একটি দল ব্যাপ্টিষ্ট মিশন চার্জ এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৪০ পিচ ইয়াবা সহ আটক করে আইএসটির হেড ক্লার্ক মঈন উদ্দিন আহম্মেদকে। এ ঘটনায় আটককৃতর বিরুদ্ধে কোতয়ালী মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেন অভিযানকারী এসআই মহিউদ্দিন। এতে মামলার তদন্তে নেমে ঘটনার মুল রহস্য বের করেন থানার এসআই হেলাল। এতে জানা যায়, আইএসটির ড্রাইভার আলমগীরের বেতন ভাতাসহ বিভিন্ন কাজের হিসেব থেকে ২৫% ঘুষ নিত হেড ক্লার্ক মঈন উদ্দিন আহম্মেদ। তাই হেড ক্লার্কের উপর ক্ষিপ্ত হয়ে তার ক্ষতি করার জন্য সুযোগ খুজতে থাকে আলমগীর। সম্প্রতি আইএসটির শিক্ষার্থীদের সাথে বিরোধ হয় হেড ক্লার্ক মঈন উদ্দিনের। এতে সুযোগ হয়ে যায় ড্রাইভার আলমগীরের। সে আইএসটির দুই ছাত্রকে হাত করে তাদের সহায়তায় ঘটনার দিন মঈন উদ্দিনের মটরসাইকেলের সিট কেটে ৪০ পিচ ইয়াবা গুজে রাখে। একই সাথে আলমগীর গোয়েন্দা পুলিশকে ইয়াবার বিষয়টি জানিয়ে তাৎক্ষনিক আটক করায়। এদিকে ক্লার্ক মঈন উদ্দিনের মটর সাইকেলে ইয়াবা পাওয়ার বিষয়টি সন্দেহ হলে খবর প্রেরনকারী আলমগীরকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করলে উপরোক্ত সব কিছুই শিকার করে আলমগীর। গতকাল আলমগীরকে আদালতে সোপর্দ করা হলে আদালতের বিচারকের কাছে এসব কথা শিকার করে নেয় সে।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১  




মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT