ঝালকাঠিতে হত্যা মামলায় ২ জনের ফাঁসি, ৩ জনের যাবজ্জীবন ঝালকাঠিতে হত্যা মামলায় ২ জনের ফাঁসি, ৩ জনের যাবজ্জীবন - ajkerparibartan.com
ঝালকাঠিতে হত্যা মামলায় ২ জনের ফাঁসি, ৩ জনের যাবজ্জীবন

2:50 pm , September 23, 2019

ঝালকাঠি প্রতিবেদক ॥ ঝালকাঠিতে চাঞ্চল্যকর আনোয়ারা বেগম হত্যা মামলায় দুই আসামীকে ফাঁসির আদেশ দিয়েছে আদালত। এছাড়াও মামলার আরো তিন আসামীকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদন্ড দেয়া হয়েছে। গতকাল সোমবার ঝালকাঠির অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ শেখ মো. তোফায়েল হাসান এ রায় ঘোষণা করেন।
ফাঁসির দন্ডপ্রাপ্তরা হলো- সদর উপজেলার শেখেরহাট ইউনিয়নের রাজপাশা গ্রামের মৃত আবুল হোসেনের ছেলে খায়রুল আলম ওরফে শেখ হাসান এবং একই গ্রামের মৃত জালাল সরদারের ছেলে পিল্টন ওরফে পিন্টু।
যাবজ্জীবন দন্ডিতরা হলো- একই গ্রামের আবুল হোসেনের দুই ছেলে রিপন মিয়া ও সালাম মিয়া এবং আব্দুস সোবাহানের ছেলে সাহাদাৎ হোসেন।
মামলার বিররণে জানা যায়, ২০০২ সালের ১৭ মে রাতে ঝালকাঠি সদর উপজেলার শেখেরহাট ইউনিয়নের রাজপাশা গ্রামে নিহত আনোয়ারা বেগমের ছেলে লিটন সিকদারকে হত্যা ও তাদের বাড়িতে ডাকাতি করতে আসে দ-িতরা। এসময় লিটন সিকদারের মা আনোয়ারা বেগম কুপি বাতি জ্বালিয়ে দিলে একই গ্রামের বাসিন্দা ওই আসামীদের চিনে ফেলেন তিনি। এসময় ওই আসামীরা আনোয়ারা বেগমকে কুপিয়ে হত্যা করে। এ ঘটনার পরদিন সদর থানায় একাটি মামলা হলেও পরে গোয়েন্দা পুলিশ (সিআইডি) ২০০৩ সালের ১০ অক্টোবর একই এলাকার ৭ জনকে আসামী করে একাটি হত্যা মামলা দায়ের করে। ২০০৪ সালের ২১ ডিসেম্বর সিআইডি আসামীদের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করে। দীর্ঘ শুনানি ও ১৫ জন স্বাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণের পর দোষী প্রমানীত হওয়ায় এ রায় ঘোষণা করেন আদালত।
রায় ঘোষণার সময় আসামীরা আদালতে উপস্থিত ছিলেন। একই সাথে অভিযোগ প্রমানিত না হওয়ায় মামলার অপর দুই আসামী গিয়াস ও মামুনকে খালাস দিয়েছে আদালত।
রাষ্ট্র পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর অ্যাডভোকেট এম আলম খান কামাল এবং আসামী পক্ষে ছিলেন আব্দুর রশিদ শিকদার।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০  




মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT