গাছ ব্যবসায়ীকে শিকলে বেধে নির্যাতনের পরে লক্ষাধিক টাকা ছিনতাই গাছ ব্যবসায়ীকে শিকলে বেধে নির্যাতনের পরে লক্ষাধিক টাকা ছিনতাই - ajkerparibartan.com
গাছ ব্যবসায়ীকে শিকলে বেধে নির্যাতনের পরে লক্ষাধিক টাকা ছিনতাই

3:10 pm , September 20, 2019

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ রায়পাশা কড়াপুর ইউনিয়নে এক গাছ ব্যবসায়ীকে শিকলে বেঁধে নির্যাতনের পরে লক্ষাধিক টাকা ছিনতাই’র অভিযোগ পাওয়া গেছে। পরে স্থানীয় চেয়ারম্যানের সহযোগিতায় ওই ব্যবসায়ীকে উদ্ধার করে শেরে-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তবে এই ঘটনায় কাউকে আটক করতে পারেনি পুলিশ। গতকাল শুক্রবার দুপুরে সদর উপজেলার রায়পাশা-কড়াপুর ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডস্থ পল্লী বাংলা স্কুল সংলগ্ন আক্কেল আলী’র বাড়ির সামনে এই ঘটনা ঘটে। আহত গাছ ব্যবসায়ী মো. হুমায়ুন মাঝি (৪০) একই ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা মৃত শফিক উদ্দিনের ছেলে। তবে গাছ ব্যবসায়ীকে শিকলে বেধে নির্যাতনের ঘটনা সত্যি বলে স্বীকার করলেও ছিনতাই’র বিষয়টি অস্বীকার করেছে পুলিশ। নির্যাতনের শিকার হুমায়ুন মাঝির স্ত্রী শিমু বেগম জানান, ‘পাশর্^বর্তী গ্রামের মো. হানিফ খানের গাছ কেনার জন্য সকাল ১০টার দিকে এক লাখ ১০ হাজার টাকা নিয়ে বের হন হুমায়ুন মাঝি। এরপর বেলা সাড়ে ১টার দিকে খবর পান তার স্বামীকে মারধর করে আক্কেল আলী’র বাড়ি সংলগ্ন একটি বাগানে গাছের শিকড়ের সাথে দুপা বেধে অচেতন অবস্থায় ফেলে রেখেছে। খবর পেয়ে তারা ঘটনাস্থলে যান এবং স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানকে খবর দেন। গৃহবধূ শিমু বেগমের অভিযোগ আক্কেল আলী’র স্বজন জাকির, জামাল, রাজিব, সজিব, আবু, জাহাঙ্গীর, বাবু ও রিপনসহ অন্যান্যরা মিলে তার স্বামীকে গাছের সাথে শিকল দিয়ে বেধে নির্মম নির্যাতনের পরে সাথে থাকা এক লাখ ১০ হাজার টাকা লুট করেছে। এদিকে খবর পেয়ে রায়পাশাপা-কড়াপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান খোকন ও এয়ারপোর্ট থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আব্দুর রহমান মুকুল সহ পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থলে পৌছে গাছ ব্যবসায়ীকে উদ্ধার করে শেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি করে দেয়। মেট্রোপলিটন এয়ারপোর্ট থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) এম জাহিদ দিন আলম বলেন, ‘একটি বাল্য বিয়ের খবর পেয়ে আমাদের পুলিশ সদস্যরা কড়াপুরের ওই এলাকায় যায়। সেখানে গিয়ে ওই ব্যক্তিকে শিকল দিয়ে গাছের সাথে বাধা অবস্থায় দেখতে পাই। তিনি বলেন, ‘মুলত যে মেয়ের বিয়ের আয়োজন চলছিলো সেই মেয়ের সাথে অন্য কোন ছেলের প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে। গাছ ব্যবসায়ী বিয়ে বাড়িতে যাবার পরে মেয়ের পরিবারের লোকেরা ভাবে ওই মেয়ের প্রেমিকের লোক হতে পারে। এজন্য তাকে বাড়ি থেকে চলে যেতে বলে। সে বাড়ি চলেও যায়। কিন্তু কিছু সময় পরে বিয়ে বাড়ির কিছু লোক তাকে মারধর করে গাছের সাথে শিকল দিয়ে বেধে রাখে। মুলত ভুল বোঝাবুঝির মাধ্যমেই এমনটি হয়েছে বলে আমাদের ধারনা। পরে গাছ ব্যবসায়ীকে উদ্ধার করে শেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তবে গাছ ব্যবসায়ীর কোন টাকা ছিনতাই হয়েছে বলে আমাদের জানায়নি। এ নিয়ে নির্যাতনের শিকার ওই ব্যক্তি মামলা করলে আমরা প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করব।

এই বিভাগের আরও খবর

বসুন্ধরা বিটুমিন

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT