বরিশালে ক্যসিনো না থাকলেও প্রকাশ্যে অপ্রকাশ্যে নিয়মিত জুয়ার আসর বসছে বরিশালে ক্যসিনো না থাকলেও প্রকাশ্যে অপ্রকাশ্যে নিয়মিত জুয়ার আসর বসছে - ajkerparibartan.com
বরিশালে ক্যসিনো না থাকলেও প্রকাশ্যে অপ্রকাশ্যে নিয়মিত জুয়ার আসর বসছে

3:07 pm , September 20, 2019

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ শহরের ন্যায় দক্ষিণাঞ্চলের গ্রামে গঞ্জেও ক্রমশ ছড়িয়ে পড়েছে জুয়ার আসর। আর তার সাথে রয়েছে মাদক সেবন। ইয়াবা এখন আর কোন দূর্লভ বস্তু নয়। বরিশালের প্রত্যন্ত গ্রামের হাটবাজারের আলো আধারীর নানা ঘরে প্রতিদিনই তাস দিয়ে জুয়া খেলার রমরমা বানিজ্য চলছে। সেখানে লাখ লাখ টাকার লেন দেন হচ্ছে। বরিশাল মহানগরীর দুটি বনেদি ক্লাবের সাথে আরো একটি ঐতিহ্যবাহী ক্লাবের টিনের চালা ঘরে তাসের জুয়ার আসর দীর্ঘদিন ধরেই ওপেনÑসিক্রেট। এসব ক্লাবে প্রতিদিন কতটাকা লেনদেন হয় তা ধারনা করাও অনেকটা কঠিন। বরিশালের নদী বেষ্টিত উপজেলা মেহেদিগঞ্জ, হিজলা ও মুলাদীর চরের আগাছার বনে জুয়া খেলার জমজমাট বানিজ্য চলছে। পুলিশের ছত্রছায়ায় ক্ষমতাসীন দলের স্থানীয় পর্যায়ে কতিপয় প্রভাবশালীরা এসব জুয়া খেলার আসর বসিয়ে বানিজ্য করছেন বলেও অভিযোগ দীর্ঘদিনের। স্থানীয় একাধীক সূত্র জানিয়েছে, এসব আসরে জুয়া খেলতে গিয়ে সর্বশান্ত হচ্ছেন প্রান্তিক পর্যায়ের জনগোষ্ঠী। বিশেষ করে শিক্ষার্থী ও তরুনরা বিপথগামী হচ্ছে। এসব তরুনরা যেকোনভাবেই টাকা যোগার করে জুয়ার আসরে ঢালছে। আর সে অর্থ যোগাড় করতে গিয়ে তারা নানা অপরাধে জড়িয়ে পড়ছে। মাঝে মাঝে লোক দেখানো দু একটি পুলিশী অভিযানে জুয়ারী আটক করা হলেও আয়োজকরা থেকে যাচ্ছেন সব ধরা ছোঁয়ার বাইরে। স্থানীয়দের অভিযোগ ভাগে বনিবনা না হলেই এসব অভিযানের মহড়া চলে।
স্থানীয় বিভিন্ন পর্যায়ের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, বরিশাল জেলার মধ্যে সবচেয়ে বড় জুয়ার আসর হয় মেহেদিগঞ্জ উপজেলা সংলগ্ন মেঘনার বামনীর চরে। এখানে প্রতিদিন লাখ লাখ টাকার জুয়া খেলা হয়। বরিশালের বিভিন্ন এলাকা থেকে জুয়ারীরা সেখানে আসর জমান। পাশের ইউনিয়ন লতার ইউপি সদস্য কামাল হোসেন হাওলাদার সাংবাদিকদের জানান, দড়িচড়-খাজুরিয়ার ইউনিয়নভুক্ত বামনীরচর মেঘনা বেষ্টিত একটি বিশাল চর। যোগাযোগ ব্যবস্থা দুর্গম হওয়ায় ওই স্থানটি নিরাপদ হিসাবে বেছে নিয়েছে জুয়ারীরা। এছাড়াও আন্ধারমানিক ইউনিয়নের ভাঙ্গা, চর সন্তোষপুর ও জয়নগর এলাকার বিভিন্ন স্থানে জমজমাট জুয়া বানিজ্যের খবর পাওয়া গেছে।
তবে কাজীরহাট থানার ওসি মো. আনিসুল ইসলাম সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, বামনীর চর তার আওতাভূক্ত এলাকা নয়। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে গৌরনদী উপজেলার বড় দুলালী গ্রামে বাজারের কাছে, বাটাজোর, মাগুরা, বার্থি, শরিকল, বাবুগঞ্জ উপজেলার কেদারপুরের বাহেরচর, মোল্লারহাটে নিয়মিত বা প্রায়শই জুয়ার আসর বসে। এভাবে জেলার প্রতিটি বন্দর ও বড় বড় বাজারে জুয়ার আসর বসানো হচ্ছে।
পটুয়াখালীর কুয়াকাটা পর্যটন কেন্দ্রের বিভিন্ন আবাসিক হোটেলেও জুয়ার আসর বসছে। খোদ বরিশাল মহানগরীর কয়েকটি আবাসিক হোটেলেও এধরনের আসর বসছে বলে অভিযোগ রয়েছে। এছাড়া নগরীর অনতিদুরে মাধবপাশার দূর্গাসাগর দীঘির পাড়ের নির্জন বাগানেও জুয়ার আসর বসছে। মাঝে মধ্যে পুলিশী অভিযান চালিয়ে ২/১ জনকে আটক করলেও তাদেরকে আর আদালত পর্যন্ত আসতে হয়না বলেও অভিযোগ রয়েছে।

এই বিভাগের আরও খবর

বসুন্ধরা বিটুমিন

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT