হাজারো পর্যটক কুয়াকাটায় হাজারো পর্যটক কুয়াকাটায় - ajkerparibartan.com
হাজারো পর্যটক কুয়াকাটায়

3:12 pm , June 8, 2019

এএম মিজানুর রহমান বুলেট, কুয়াকাটা ॥
কুয়াকাটা সৈকতে পর্যটকরা সমুদ্রের উম্মাদনায় মিলিত হয়েছেন। বুধবার ঈদের দিন শুরু হয়ে শনিবার বালিয়ারিতে নেচে গেয়ে উল্লাস করেছে শত শত পর্যটক দম্পত্তি, শিশু ও কিশোররা। প্রাণের উচ্ছ্বাসে সাথে যুক্ত হয়েছে ভরা আমবস্যার উত্তাল ঢেউ। ঘন্টার পর ঘন্টা ওইসব আগত পর্যটকরা বৃষ্টিভেজা সমুদ্রের উত্তাল ঢেউয়ের সঙ্গে মিতালী করতে দেখা গেছে। এমন অবস্থা বিরাজ করবে পুরো সপ্তাহ জুড়ে এমনটাই জানিয়েছেন আবাসিক হোটেল মোটেল ওনার্স এ্যাসোসিয়শনের সাধারণ সম্পাদক মোতালেব শরীফ। ওই ব্যবসায়ী বলেন, ঈদ পরবর্তী সময় পর্যটক টানতে প্রথম শ্রেণীর আবাসিক হোটেলগুলোর নিজস্ব ওয়েব সাইট,সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম, লিফলেট, ব্রুশিয়ার,প্যানাপ্লেক্স,সাইনবোর্ডে এ প্রচারণা চালাচ্ছেন। অফার সম্বলিত প্রচার প্রচারনায় রয়েছে, অভিজাত হোটেল সিকদার রিসোর্ট এ্যান্ড ভিলাস, কুয়াকাটা গ্রান্ড ইন্টারন্যাশনাল, হোটেল গ্রেভার ইন, বীচ-হ্যাভেন, হোটেল সৈকতসহ ছোট- বড় শতাধিক আবাসিক হোটেলে এ অফার চলছে। শিকদার রিসোর্ট এ্যান্ড ভিলাস’র জিএম ফয়সাল মাহমুদ চৌধুরী বলেন, ট্যুরিজম পন্য ট্রাভেল, ট্রান্সপোট,আবাসন, ফুড এ্যান্ড বেভারেজ এবং আরএলই- ই তে শতকরা চল্লিশ ভাগ ছাড় থাকবে এ ঈদ উপলক্ষ্যে। সোনালী ব্যাংক ভোলার শাখার ব্যবস্থাপক মোহাম্মদ ইদ্রিছ বলেন, অনেক বছর পর ঈদের ছুটিতে কুয়াকাটায় এসে বৃষ্টির সাথে পাল্লা দিয়ে সমুদ্রে গোসল সত্যিকার অর্থে নিজেকে তুষ্ট করেছে। আগত পর্যটকদের সকল নিরাপত্তা নিশ্চিত রয়েছেএমনটা দাবী করে ট্যুরিষ্ট পুলিশ কুয়াকাটা জোন’র ইনচার্জ সিনিয়র এএসপি জহিরুল ইসলাম বলেন, এ মৌসুমের পর্যটকরাই সত্যিকারভাবে সমুদ্রকে উপভোগ করতে পারে। অফ সিজনে পর্যটকদেও আনাগোনা দেখে জহিরুল ইসলাম জানিয়েছেন, উত্তাল সমুদ্রের বড় বড় টেউ ও সমুদ্রের গর্জনের সাথে সখ্যতা গড়তে পারে এমন শ্রেণীর পর্যটকদের সংখ্যা বাড়ছে। পুলিশের ওই কর্মকর্তা আরোও বলেন, লোভনীয় এমন ঢেউ বালিয়াড়িতে আছরে পড়ার দৃশ্য দেখে তিনিও গত দুই দিন পর্যটকদের সাথে সমুদ্রে গোছল করেছেন।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT