নাগরিক শোকসভায় আমির হোসেন আমু নিখিল সেন ছিলেন যোগ্য ও সৎ ব্যক্তিত্ব নাগরিক শোকসভায় আমির হোসেন আমু নিখিল সেন ছিলেন যোগ্য ও সৎ ব্যক্তিত্ব - ajkerparibartan.com
নাগরিক শোকসভায় আমির হোসেন আমু নিখিল সেন ছিলেন যোগ্য ও সৎ ব্যক্তিত্ব

3:44 pm , March 22, 2019

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ বর্ষিয়ান রাজনীতিবিদ ও আ’লীগ নেতা আমির হোসেন আমু বলেছেন, নিখিল সেন ছিলেন একজন যোগ্য ও সৎ ব্যক্তিত্ব। তিনি ছিলেন অসাম্প্রদায়িক রাজনীতিবিদ। সাংস্কৃতিক ও রাজনৈতিকসহ তার বিভিন্ন কর্মকান্ড সকলের মাঝে ছড়িয়ে দিতে হবে। বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের আয়োজনে একুশে পদকপ্রাপ্ত প্রবীন সাংবাদিক ও সাংষ্কৃতিক ব্যক্তিত্ব প্রয়াত নিখিল সেনের নাগরিক শোকসভায় প্রধান আলোচক হিসেবে এ কথা বলেন তিনি। গতকাল শুক্রবার বিকেলে নগরীর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত এ নাগরিক শোকসভায় তিনি আরো বলেন, বঙ্গবন্ধু স্বাধীনতা যুদ্ধের মুল লক্ষ্য ছিল বিশ্বের কাছে দেশের মাথা উচু করা। সেই যুদ্ধের একজন সৈনিক ছিলেন নিখিল সেন। আজকের এ সভায় প্রমান হয়েছে যে নিখিল সেন ছিলেন অসাম্প্রদায়িক রাজনীতির বাহক। মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ‘র পৃষ্ঠপোষকতায় ও বরিশাল সাংষ্কৃতিক সংগঠন সমন্বয় পরিষদ সার্বিক সহযোগিতায় অনুষ্ঠিত শোকসভায় বিশেষ আলোচক ছিলেন সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব সাহান আরা বেগম। তিনি তার বক্তৃতায় বলেন, নিখিল সেন ছিলেন বহু গুনের অধিকারী। মহিলা আ’লীগের কেন্দ্রীয় এ নেত্রী নিখিল সেনের বিভিন্ন কর্মকান্ডের স্মৃতি তুলে ধরে বলেন, নিখিল সেন বেঁচে থাকবেন তার কর্ম ও গুনে। পরপারে তিনি ভাল আছেন, ভাল থাকবেন।
বিশেষ আলোচক পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী কর্ণেল (অব.) জাহিদ ফারুক শামীম বলেন, নিখিল সেন সকলের প্রিয় ও শ্রদ্ধার ব্যক্তিত্ব ছিলেন। ছিলেন তিনি প্রকৃত দেশ প্রেমিক। তাই ভারতে শিক্ষা জীবন শেষ করে দেশে ফিরে এসেছিলেন। দেশ প্রেম না থাকলে তিনি আর এ দেশে ফিরে এসে মাথা উচু করতেন না। তিনি আরো বলেন, নিখিল সেন জীবিত থাকতে তাকে এভাবে শ্রদ্ধা জানাতে ও তার গুনের পরিধি অনুভব করতে পারেনি। তা আজকের এই নাগরিক শোকসভা প্রমান করে। তাই মৃত্যুর পূর্বে এ ধরনের গুনী জনকে নিয়ে অনুষ্ঠানের আয়োজনের আহবান জানান পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী।
সফল এ শোকসভায় সভাপতিত্ব করেন মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ। তিনি এ গুনী ব্যক্তির স্মৃতি তুলে ধরে বলেন, নিখিল সেনকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শ্রদ্ধা জানিয়েছেন। তিনি এ নগরীর নাগরিক। তাই সিটি কর্পোরেশনের পক্ষ থেকে তার নাগরিক শোকসভা আয়োজন করা হয়। তিনি বলেন, তার আদর্শ ও গুনাবলী অনুসরন করে চলতে পারলে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা ও প্রধানমন্ত্রীর ভিষন ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়ন হবে। সফল এ সভার সকল প্রস্তুতির কর্মযজ্ঞে সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে মেয়র বলেন, আগামী ২৬ মার্চ নিখিল সেনের নামে সড়কের নামকরন উদ্বোধন করা হবে। পরে নিখিল সেন বৃত্তি চালু করার ঘোষনা দেন মেয়র। শোক সভায় আরো বক্তব্য রাখেন জেলা আ’লীগের সাধারন সম্পাদক এ্যাড. তালুকদার মো. ইউনুস, বিভাগীয় কমিশনার রাম চন্দ্র দাস, পুলিশ কমিশনার মো. মোশারফ হোসেন, জেলা প্রশাসক এজএম অজিয়র রহমান, পুলিশ সুপার মো. সাইফুল ইসলাম, প্রয়াত নিখিল সেনের ছেলে সুজয় সেনগুপ্ত, বাংলাদেশ আবৃতি সম্মিলিত পরিষদের সাধারন সম্পাদক আহকামুল্লাহ প্রমুখ। এছাড়া শোক সভায় নগরীর রাজনৈতিক, সাংষ্কৃতিক, ব্যবসায়ী, গনমাধ্যমকর্মী, ক্রীড়াঙ্গন সহ সূধীজনরা উপস্থিত ছিলেন। এর আগে তার প্রতি শ্রদ্ধা জানানো হয়।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT