গড়িয়ারপাড়ে বাসের ধাক্কায় মাহেন্দ্রার ৭ যাত্রী নিহত গড়িয়ারপাড়ে বাসের ধাক্কায় মাহেন্দ্রার ৭ যাত্রী নিহত - ajkerparibartan.com
গড়িয়ারপাড়ে বাসের ধাক্কায় মাহেন্দ্রার ৭ যাত্রী নিহত

3:43 pm , March 22, 2019

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ বরিশাল-বানারীপাড়া সড়কের গরিয়ারপাড়ে বাস ও থ্রি-হুইলার আলফা (অটো টেম্পু) সংঘর্ষে বরিশাল বিএম কলেজ ছাত্রী ও টেম্পু চালক সহ ৭ জন নিহত হয়েছে। এই ঘটনায় আহত হয়েছে শিশু সহ আরো ৪ জন। তাদের বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। গতকাল শুক্রবার সকালে বরিশাল-বানারীপাড়া সড়কের গড়িয়ারপাড় তেতুল তলা এলাকায় এই ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছেন সদর ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্স এর স্টেশন অফিসার মো. ইউনুস আলী। মর্মান্তিক এই সড়ক দুর্ঘটনায় নিহতরা হলেন- নগরীর কাশিপুর গণপাড়া এলাকার ইদ্রিস খানের ছেলে সোহেল খান (২৯), ঝালকাঠি’র নৈয়ারী গ্রামের ইছাহাক আলী হাওলাদারের ছেলে অটোরিক্সা চালক খোকন হাওলাদার (৩০), বাকেরগঞ্জ উপজেলার দাড়িয়াল গ্রামের ইউনুস সিকদারের ছেলে রং মিস্ত্রি মানিক সিকদার (৩৫), ঝালকাঠি সদর উপজেলার সেওতা গ্রামের সুশান্ত হালদারের ছেলে ও বরিশাল সরকারি বিএম কলেজের মাস্টার্স এর গনিত প্রথম বর্ষের ছাত্রী শীলা রাণী হালদার (২৪), বাবুগঞ্জের মাধবপাশা গ্রামের মো. মোখলেছুর রহমানের স্ত্রী পারভীন (৩৫) ও তার ছেলে তাঈম (৭) ও পিরোজপুরের দুর্গাপুর গ্রামের শাখায়েত সরদারের স্ত্রী মেহেরুন্নেসা (৪৫)।  উদ্ধারকারী ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্স এর স্টেশন অফিসার ইউনুস আলী জানিয়েছেন, থ্রি-হুইলার অটো টেম্পু (বরিশাল-থ-১১-০৯০৭) শিশু সহ ১১ জন যাত্রী নিয়ে নগরীর নথুল্লাহবাদ থেকে বানারীপাড়ার উদ্দেশ্যে রওনা দেয়। পথিমধ্যে গড়িয়ারপাড় তেতুল তলা এলাকায় পৌছুলে বানারীপাড়াগামী বেপরোয়া গতির যাত্রীবাহী ‘দুর্জয় পরিবহন’ (বরিশাল মেট্রো-ব-১১-০০৬২) এর বাস থ্রি-হুইলারকে ধাক্কা দেয়। এতে থ্রি-হুইলার মাহেন্দ্র দুমড়ে মুচড়ে রাস্তার পাশে খাদে পড়ে। এতে ঘটনাস্থলেই কলেজ ছাত্রী শিলার মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস সদস্যরা ঘটনাস্থলে পৌছে আহতদের উদ্ধার করে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে নিয়ে যান। এসময় জরুরী বিভাগের দায়িত্বরত চিকিৎসক মানিক ও খোকনকে মৃত বলে ঘোষনা করেন। তাছাড়া চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান থ্রি-হুইলার চালক সোহেল ও পারভীন বেগম, শিশু সন্তান তাইয়ুম ও মেহেরুন্নেছা। বাকি আহতদের হাসপাতালের বিভিন্ন ওয়ার্ডে ভর্তি রেখে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। আহতরা হলেন- দুলাল হাওলাদার (৩৫), তন্নি আক্তার (১৭), সুমন (২৫) ও আব্দুল্লাহ (৭)। এর মধ্যে নিহত পারভীন এর কন্যা তন্নি ছেলে তাইয়ুমকে ঢাকা পাঠানো হয়। পথিমধ্যে তাইয়ুম’র মৃত্যু হয়েছে। আহত আব্দুল্লাহ নিহত গৃহবধূ মেহেরুন্নেছা’র নাতী। তার অবস্থাও আশঙ্কাজনক। মহানগরীর এয়ারপোর্ট থানার ওসি আব্দুর রহমান মুকুল জানান, দুর্ঘটনায় কবলিত বাসটি অটো টেম্পুকে ধাক্কা দিয়ে পালিয়ে যায়। তবে পুলিশ নথুল্লাবাদ এলাকা থেকে বাসটি আটক করে। তাছাড়া দুর্ঘটনার কারনে বরিশাল-বানারীপাড়া-স্বরুপকাঠি সড়কে আধা ঘন্টার মত যানবাহন চলাচল বন্ধ ছিলো।  পরে ফায়ার সার্ভিসের সহায়তায় অটো টেম্পুটি উদ্ধার করা হলে যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক হয়। তবে বাস চালককে খুঁজে পাওয়া যায়নি। দুর্ঘটনা কবলিত বাস ও অটো টেম্পু দুটি পুলিশের হেফাজতে রয়েছে বলে জানিয়েছেন ওসি।
অপরদিকে মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় ৭ জন নিহতের ঘটনায় শোকের ছাড়ায় নেমে এসেছে। শেবাচিম হাসপাতাল জুড়ে স্বজনদের আহাজারী আর আর্তনাদে আকাশ ভারি হয়ে ছিল। খবর পেয়ে পুলিশ কমিশনার মোশারফ হোসেন সহ উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT