জেলা আ’লীগের আয় ১৪ লক্ষাধিক টাকা জেলা আ’লীগের আয় ১৪ লক্ষাধিক টাকা - ajkerparibartan.com
জেলা আ’লীগের আয় ১৪ লক্ষাধিক টাকা

3:37 pm , January 31, 2019

খান রুবেল ॥ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মনোনয়ন প্রত্যাশীরা মনোনয়নপত্রের সাথে বরিশাল জেলা আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দের কাছে জমা দিয়েছেন ১৪ লক্ষাধিক টাকা। জেলার ১০ উপজেলায় চেয়ারম্যান ও দুই ভাইস চেয়ারম্যান পদে আবেদন করা ১৭১ জন মনোনয়ন প্রত্যাশী ওই টাকা জমা দিয়েছেন। আদায়কৃত টাকা সংগঠনের ফান্ডে জমা দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এড. তালুকদার মো. ইউনুস। সেই হিসেবে উপজেলা নির্বাচন নিয়ে জেলা আওয়ামী লীগের আয় হয়েছে ওই টাকা। এর আগে আসন্ন ৫ম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বরিশালের ১০টি উপজেলায় চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান পদে দলের মনোনয়ন প্রত্যাশিদের কাছ থেকে আবেদন গ্রহণ কার্যক্রম শুরু করে জেলা আওয়ামী লীগ। ২৭ জানুয়ারি থেকে শুরু হওয়া এই কার্যক্রম ২৯ জানুয়ারি শেষ হওয়ার কথা থাকলেও পরে ৩০ জানুয়ারি পর্যন্ত সময় বর্ধিত করা হয়। টানা চারদিনে বিকাল ৪টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত জেলার ১০টি উপজেলার চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যানের ৩০টি পদের বিপরীতে ১৭১ জন মনোনয়ন প্রত্যাশী জেলা আওয়ামী লীগের কাছে লিখিতভাবে আবেদন করেছেন। যার মধ্যে চেয়ারম্যান পদে ৭২ জন এবং ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৫৭ জন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৪২ জন আবেদন করেছেন। আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন চেয়ে আবেদন করা কয়েকজন চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যানরা জানিয়েছেন, চেয়ারম্যান পদে আবেদনের সাথে ১২ হাজার টাকা এবং ভাইস চেয়ারম্যান পদে আবেদনের সাথে ৬ হাজার টাকা করে জমা দিতে হয়েছে। জেলা আওয়ামী লীগের উপ-দপ্তর সম্পাদক এড. কাইয়ুম খান কায়সার ও জেলা আওয়ামী লীগ মিলন ভুঞা জামানত হিসেবে আবেদনকারীদের কাছ থেকে এই টাকা আদায় করেন। এর মধ্যে ১০ ও ৫ হাজার টাকা জমা রাখার স্বাক্ষর নেয়া হয়েছে। তবে ২/১ হাজার টাকা নেয়ার সময় স্বাক্ষর নেয়া হয়নি। তাই হিসাব অনুযায়ী চেয়ারম্যান পদের জন্য আবেদন করা ৭২ জনের কাছ থেকে ১২ হাজার টাকা করে মোট ৮ লাখ ৬৪ হাজার টাকা এবং ভাইস চেয়ারম্যানদের দুটি পদে আবেদন করা ৯৯ জনের কাছ থেকে ৬ হাজার টাকা করে ৫ লাখ ৯৪ হাজার টাকা আয় করেছে জেলা আওয়ামী লীগ।
তবে আবেদনকারীদের কাছ থেকে প্রকাশ্যে টাকা উত্তোলন করা হলেও এ নিয়ে তথ্য দিতে লুকোচুরি করছেন জেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ। আবেদনপত্র গ্রহণের দায়িত্বে থাকা জেলা আওয়ামী লীগের উপ-দপ্তর সম্পাদক এড. কাইয়ুম খান কায়সার বলেন, আবেদনকারীর কাছ থেকে কত টাকা রাখা হবে সে বিষয়ে এখনো কোন দিক নির্দেশনা পাওয়া যায়নি। নেতৃবৃন্দ সভা করে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিবেন।
তবে নির্দেশনা ছাড়াই আবেদনকারীদের কাছ থেকে কেন টাকা রাখা হলো সে বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে বিষয়টি এড়িয়ে যান কাইয়ুম খান কায়সার। এমনকি তিনটি পদের জন্য কত টাকা করে রাখা হয়েছে সে বিষয়টিও জানাতে অপারগতা প্রকাশ করেন তিনি।
অপরদিকে বরিশাল জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক এমপি এড. তালুকদার মো. ইউনুস বলেন, আবেদন গ্রহণের সময় আমি ছিলাম না। তাই কত টাকা করে রাখা হয়েছে তাও আমার জানা নেই। তবে আবেদনকারীদের কাছ থেকে যে টাকা রাখা হয়েছে সেটা দলের ডোনেশন হিসেবে নেয়া হয়েছে। তাছাড়া এটা কোন সাধারণ মানুষের কাছ থেকে নয়, বরং দলের লোকেদের কাছ থেকেই নেয়া হয়েছে। এটা নিয়ে বেশি ঝামেলা না করাই ভালো বলে মন্তব্য করেন তালুকদার মো. ইউনুস।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT