বাকেরগঞ্জের কলেজ ছাত্র হত্যার স্বীকারোক্তি দুই আসামীর বাকেরগঞ্জের কলেজ ছাত্র হত্যার স্বীকারোক্তি দুই আসামীর - ajkerparibartan.com
বাকেরগঞ্জের কলেজ ছাত্র হত্যার স্বীকারোক্তি দুই আসামীর

3:15 pm , December 23, 2019

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ বাকেরগঞ্জে জমি নিয়ে বিরোধে এইচএসসি পরীক্ষার্থীকে হত্যার কথা স্বীকার করে জবানবন্দি দিয়েছে ঘাতক সুব্রত সরকার ও তার চাচাতো বোন নীপা রানি। গতকাল সোমবার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে জবানবন্দি দেয় তারা। এসময় তাদের দেয়া জবানবন্দি ১৬৪ ধারায় নথিভুক্ত করেন আদালতের বিচারক বেগম সাম্মি আক্তার। জবানবন্দিতে তারা উল্লেখ করেন, নিয়ামতি ইউনিয়নের ছোট পুইয়াউডা গ্রামে তাদের জমি রয়েছে। তাদের ওই সম্পত্তিতে রোববার সকালে তারা মাটি কাটতে যায়। এ সময় এইচএসসি পরীক্ষার্থী মাহামুদুল হাসান সজিবতার বাবা রাজ্জাক বেপারী কয়েকজন নিয়ে জমি নিজেদের দাবী করে মাটি কাটতে বাধা দেয়। এ সময় বাকবিতন্ডার এক পর্যায়ে সজিবকে ছুড়ি দিয়ে আঘাত করে সুব্রত। এতেই তার মৃত্যু হয়। জবানবন্দি গ্রহন শেষে তাদের জেলে পাঠানোর নির্দেশ দেন বিচারক। এ ঘটনায় আরো ৭ জনকে জেলে পাঠানো হয়েছে। তারা হলো একই গ্রামের বাসিন্দা পরিমল সরকার, হরলাল, পলাশ, সুমন, আশরাফ কারিগর, সখানাথ সরকার ও পুস্প রানি।
মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তা বাকেরগঞ্জ থানার এসআই মোমিনুল ইসলাম জানান, নিহত মাহামুদুল হাসান সজিব (১৮)একই গ্রামের রাজ্জাক বেপারীর ছেলে এবং মহেষপুর ডিগ্রি কলেজের এইচএসসি পরীক্ষার্থী ছিল। তার বাবা রাজ্জাক বেপারীর স্বজনদের সাথে প্রতিবেশী পরিমল সরকারের স্বজনদের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে জমি নিয়ে বিরোধ চলছে। এ বিরোধ মীমাংসার জন্য স্থানীয়ভাবে একাধিবার উদ্যোগ গ্রহণ নেয়ার পরেও কোন সমাধান হয়নি। এ নিয়ে আদালতে পাল্টাপাল্টি মামলা রয়েছে। এরপরেও বিরোধীয় জমি দখলের চেষ্টা করে পরিমল ও তাদের স্বজনরা। রোববার সকালে জমির মাটি কাটতে যায় পরিমল ও সখানাথ সরকারসহ তাদের লোকজন। খবর পেয়ে সজিবের চাচা তৈয়ব আলী গিয়ে মাটি কাটতে বাঁধা দেয়। তখন তাকে মারধর করে। এই খবর শুনে ঘটনাস্থলে ছুটে আসে সজীব তার বাবা রাজ্জাকসহ স্বজনরা। এ সময় মাটি কাটা নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে বাকবিত-া হয়। একপর্যায়ে সুব্রত ছুরি দিয়ে সজীবের বুকে আঘাত করে।
এ ঘটনায় সজিবের বাবা বাদী হয়ে গতকালই নামধারি ১০ জনসহ অজ্ঞাত ৪ জনকে অভিযুক্ত করে মামলা করে। মামলার পরপরই তাদের গ্রেফতার করেন তিনি। পরে আদালতে সোপর্দ করা হলে বিচারক দুই জনের জবানবন্দি গ্রহন শেষে ৯ জনকেই জেলে পাঠানোর নির্দেশ দেন। পুস্পরানি অসুস্থ থাকায় তাকে পুলিশ প্রহরায় শেবাচিম হাসপাতালে রাখা হয়।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT