ঠান্ডাজনিত রোগে আক্রান্ত হচ্ছে শিশুরা ঠান্ডাজনিত রোগে আক্রান্ত হচ্ছে শিশুরা - ajkerparibartan.com
ঠান্ডাজনিত রোগে আক্রান্ত হচ্ছে শিশুরা

2:42 pm , December 20, 2019

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ বরিশালে তীব্র শীতে শিশুরা ঠান্ডাজনিত নিউমোনিয়া, ব্রঙ্কাইটিস, শ্বাসকষ্ট ও ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হচ্ছে। অধিকাংশ শিশুকে ভর্তি করা হচ্ছে বরিশাল শেরে-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ(শেবাচিম) হাসপাতাল ও জেনারেল হাসপাতালসহ নগরীর বিভিন্ন হাসপাতালে। এছাড়া হাসপাতালগুলোর বহির্বিভাগ ও চিকিৎসকদের ব্যক্তিগত চেম্বারেও এ ধরনের রোগীর সংখ্যা বেড়েছে। চিকিৎসকরা জানিয়েছে কয়েকদিন ধরে শেবাচিমে গড়ে ২০ জন শিশু আক্রান্ত হয়ে ভর্তি হচ্ছে। শেরে-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতলে সরেজমিনে দেখা গেছে, শিশুদের তিনটি ওয়ার্ডে প্রায় ২ শতাধিকের বেশি শিশু চিকিৎসা নিচ্ছে। এরমধ্যে প্রায় শিশুই নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত শিশুদের ব্যাপারে চিকিৎসকরা বেশি সর্তকতা অবলম্বন করছেন। আক্রান্ত শিশুদের বয়স ৬ মাস থেকে ১ বছরের মধ্যে। শেবাচিম হাসপাতালের শিশু বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মজিবুর রহমান বলেন, তিন চার দিন ধরে শীত একটু বেশি পড়ায় শিশুদের মধ্যে নিউমোনিয়ার প্রকোপ দেখা দিয়েছে। এ রোগে আক্রান্ত হলে শিশুরা দ্রুত শ্বাস নেয়। জ্বরের সঙ্গে খাবারে অরুচি এবং পালস্ বেড়ে যায়। এ সব শিশুদের দ্রুত চিকিৎসার ব্যবস্থা করতে পারলে কোনো সমস্যা হয় না। চিকিৎসা নিয়ে বিলম্ব করলে বিপদের আশংকা থাকে। শেবাচিমের বহির্বিভাগের আবাসিক শিশু বিশেজ্ঞ ডা. ফয়জুল হক পনির বলেন, শীতকালে শিশুরা বেশি রোগে আক্রান্ত হয়ে থাকে। আমার এখানে প্রতিদিন ঠান্ডা জড়িত রোগে প্রায় শতাধিক শিশুকে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। তিনি আরো জানান, গ্রাম আঞ্চলের মানুষ এখনো শিশুরা ঠান্ডাজনিত শ্বাসকষ্টে ভুগতে শুরু করলে অনেক অভিভাবক তাদের চিকিৎসকের কাছে না নিয়ে বুকে গরম তেল মালিশ করা ও নানা গাছপালার পাতার রস দিয়ে চিকিৎসা শুরু করেন। এতে শিশুরা আরো বেশি দুর্বল হয়ে পড়ে। রোগের মাত্রা বেড়ে যায়।
শেবাচিম হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসা শিশু মাহিয়া মাহির মা শারমিন আক্তার বলেন, শীতে ঠান্ডা লেগে ছেলের সর্দি-কাশি দেখা দেয়। তার সঙ্গে জ্বর। মেয়ের জ্বর কমছিল না তাই মেডিকেলে ডাক্তার দেখাতে আসলাম। এদিকে শেবাচিম হাসপাতালের শিশু ওয়ার্ডের চিকিৎসকরা বলেন, মৌসুম পরিবর্তনের কারণে ঠান্ডা-কাশি-জ্বর হতেই পারে। সামান্য সমস্যাতেই ভয় পাওয়ার কিছু নেই। হালকা জ্বর, কাশি বা নাক থেকে পানি ঝরা সমস্যায় মধু-পানি, লেবু-পানি, আদা বা তুলসী পাতার রস দেয়া যেতে পারে। এর পাশাপাশি দুই বছর পর্যন্ত বয়সের শিশুদের অবশ্যই বুকের দুধ খাওয়াতে হবে।

এই বিভাগের আরও খবর

বসুন্ধরা বিটুমিন

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT