আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহ এমপিকে প্রেসিডিয়াম সদস্য করার দাবী আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহ এমপিকে প্রেসিডিয়াম সদস্য করার দাবী - ajkerparibartan.com
আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহ এমপিকে প্রেসিডিয়াম সদস্য করার দাবী

2:06 pm , December 19, 2019

পরিবর্তন ডেস্ক ॥ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাগ্নে পার্বত্য শান্তি চুক্তি বাস্তবায়ন কমিটির আহবায়ক (মন্ত্রী) ও জেলা আ’লীগের সভাপতি আলহাজ্ব আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহ এমপিকে আ’লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য হিসেবে দেখতে চায় বরিশাল বাসী। দক্ষিনাঞ্চলে আ’লীগকে শক্তিশালী ও সুদৃঢ় ভিত্তির উপর নিয়ে আসার দুরদর্শিতা সম্পন্ন দু.সময়ের ত্যাগী ও পরীক্ষিত নেতা আলহাজ্ব আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহ এমপি। তার মেধা, প্রজ্ঞা ও রাজনৈতিক দূরদর্শিতা এ অঞ্চলের অপ্রতিদ্বন্দ্বী রাজনৈতিক নেতা হিসেবে নিজেকে নিয়েছেন অনন্য উচ্চতায়। তার নেতৃত্বে আ’লীগ নেতা-কর্মীদের সাংগঠনিক তৎপরতায় এ অঞ্চলে বিএনপি-জামায়াত’র নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোট অনেকটা অস্তিত্বহীন হয়ে পড়েছে। বরিশালের সকল উপজেলা ও জেলা পরিষদ, ইউনিয়ন পরিষদ এবং পৌরসভা নির্বাচনে আ’লীগ প্রার্থীদের বিজয়ী করতে রাত-দিন শহর থেকে গ্রামান্তর ছুঁটে বেড়িয়েছেন। তার দূরদর্শিতায় সকল জনপ্রতিনিধি এখন আ’লীগের। শুধু বরিশালেই নয় জাতীয় রাজনীতিতে তার সরব উপস্থিতিও রয়েছে। ১৯৯৭ সালে ‘শান্তি চুক্তি’ সম্পাদনের মাধ্যমে ইতিহাসের পাতায় তারও নাম লিখিয়েছেন। ওই সময় যুবলীগের কেন্দ্রীয় কংগ্রেসে চেয়ারম্যান হবার শতভাগ সম্ভাবনার পরেও শেখ ফজলূল করিম সেলিমের মা, তার খালা ও বঙ্গবন্ধুর বোনের কথায় আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহ তার প্রার্থীতা প্রত্যাহার করে চেয়ারম্যান পদে শেখ ফজলুল করিম সেলিমকে নির্বাচিত হওয়ার সুযোগ করে দিয়ে ত্যাগের দৃষ্টান্ত স্থাপন করেন। আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহ যুবলীগের ওই সম্মেলন (কংগ্রেস) প্রস্তুতি কমিটিরও চেয়ারম্যান ছিলেন। ১৯৭১ সালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আহবানে সাড়া দিয়ে টগবগে যুবক আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহ স্বাধীনতার লাল সূর্য ছিনিয়ে আনতে বরিশাল অঞ্চলে মুজিব বাহিনী প্রধান হিসেবে জীবন পণ লড়াই করে স্বাধীন-সার্বভৌম বাংলাদেশ বির্নিমানে অগ্রণী ভূমিকা পালন করেন। স্বাধীনতার পর তিনি বরিশাল পৌরসভার সফল ও জনপ্রিয় চেয়ারম্যান হিসেবে উন্নয়ন কর্মকান্ডে নিজেকে সম্পৃক্ত করেন। পরবর্তীতে বরিশাল-১ (আগৈলঝাড়া-গৌরনদী) আসনে বার বার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়ে গোটা বরিশাল অঞ্চলে উন্নয়নের রূপকার হিসেবে আর্বিভূত হন। বরিশাল সিটি কর্পোরেশেন, বিভাগ, শিক্ষা বোর্ড, বিশ্ববিদ্যালয়, পায়রা গভীর সমুদ্র বন্দর, পায়রা তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র, শেখ হাসিনা সেনানিবাস প্রতিষ্ঠা, দোয়ারিকা-শিকারপুর ও দপদপিয়া ব্রিজ নির্মাণ সহ গোটা বরিশালের সার্বিক উন্নয়নে তার অপরিসীম ভূমিকা রয়েছে। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগষ্ট কালরাতে রক্তঝড়া অচিন্তনীয় বিয়োগান্তুক অধ্যায়ের শোকগাথাঁয় মামা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের পরিবারের সঙ্গে বাবা তৎকালীণ কৃষিমন্ত্রী ও কৃষক কুলের নয়নের মনি আব্দুর রব সেরনিয়াবাত ও নিজের শিশু পুত্র সুকান্ত আব্দুল্লাহ সহ পরিবারের অনেক স্বজনকে হারান তিনি। সেদিন রাতে মৃত্যুর দুয়ার থেকে আল্লাহ রাব্বুল আল আমিনের অপার কৃপায় অলৌকিকভাবে আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহ, বুলেটবিদ্ধ স্ত্রী শাহানারা আব্দুল্লাহ ও তার কোলে থাকা দেড় বছরের শিশু পুত্র মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ বেঁচে যান। শরীরে ৫টি বুলেট বহন করে অসহ্য যন্ত্রনা নিয়ে শাহানারা আব্দুল্লাহ স্বামী আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহর মতো আ’লীগের সুখ-দুঃখের অংশীদার। ৭৫’র পর মিথ্যা মামলা সহ নানা ভাবে আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহ ও তার পরিবারকে হয়রানির শিকার হতে হয়। ১/১১’র সেনা সমর্থিত তত্ত্বাবধায়ক সরকার আমলেও ষড়যন্ত্রের শিকার হন তিনি। সকল ষড়যন্ত্রের মধ্যেও আ’লীগের দুঃসময়ের কান্ডারির ভূমিকায় অবর্তীণ হয়ে বরিশালে আ’লীগকে সুসংগঠিত করে রেখে দলীয় নেতা-কর্মীদের আস্থা ও বিশ্বাসের প্রতীক হিসেবে নিজেকে সুপ্রতিষ্ঠিত করেছেন। তই আসন্ন কাউন্সিলে আ’লীগের কিংমেকার বলে খ্যাত বর্ষিয়ান আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহ এমপিকে দলীয় সর্বোচ্চ নীতি নির্ধারিত মন্ডলী প্রেসিডিয়ামে দেখতে চান গোটা বরিশালবাসী। অভিজ্ঞ মহলের ধারণা চেহারার অবয়বে বঙ্গবন্ধুর প্রতিচ্ছ্বায়া জননন্দিত নেতা আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহকে ইতিহাস ও ঐতিহ্যের ধারক ও বাহক আ’লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য নির্বাচিত করলে তার রাজনৈতিক দূরদর্শিতা,সততা, মেধা, বিশ্বস্ততা, প্রজ্ঞা ও অভিজ্ঞতা দিয়ে দলকে সাংগঠনিক ভাবে আরও শক্তিশালী করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ২০২১ ও ২০৪১ সালের রূপকল্প বাস্তবায়ন করে ক্ষুধা, দারিদ্র, সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ-দুর্নীতিমুক্ত, শোষন ও বৈষম্যহীণ স্বপ্নের অসা¤্রদায়িক সোনারবাংলা বির্নিমাণে বিশেষ ভূমিকা রাখতে পারবেন। বরিশালের আ’লীগ নেতা-কর্মী ও সর্তীথজনদের বিশ্বাস জননেত্রী দেশরতœ প্রধানমন্ত্রী ও আ’লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা তার বিচক্ষন্নতা দিয়ে দুঃসময়ের ত্যাগি ও পরীক্ষিত নেতা আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহকে তার ত্যাগ ও যোগ্যতার যথার্থ মূল্যায়ন করবেন।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT