অগ্নিকান্ডে পুড়েছে রাজ্জাক স্মৃতি কলোনীর ৬ ঘর অগ্নিকান্ডে পুড়েছে রাজ্জাক স্মৃতি কলোনীর ৬ ঘর - ajkerparibartan.com
অগ্নিকান্ডে পুড়েছে রাজ্জাক স্মৃতি কলোনীর ৬ ঘর

3:04 pm , December 18, 2019

 

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ নগরীর রাজ্জাক স্মৃতি কলোনীতে (কেডিসি বস্তি) অগ্নিকান্ডে তিনটি বসতঘর পুড়ে গেছে। এর মধ্যে দুটি ঘর পুরোপুরি পুড়ে গেছে। অপর একটি আংশিক ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে বলে জানিয়েছে ফায়ার সার্ভিস। তবে প্রত্যক্ষদর্শী এবং ক্ষতিগ্রস্থদের দাবি অগ্নিকান্ডে ৬টি বসত ঘর পুড়ে গেছে। মঙ্গলবার রাত সোয়া ৯টার দিকে নগরীর বান্দ রোডস্থ শিল্পকলা একাডেমি’র পেছনে বস্তির একাংশে এই ঘটনা ঘটে। অগ্নিকান্ডে পুড়ে যাওয়া ঘর মালিকরা হলেন- ওই এলাকার বাসিন্দা সালেক, তার ভাই মৃত মালেক, ভাগিনা বুলবুল, সিদ্দিক, তুলি ও টগর।প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছে, ‘কলোনীর বাসিন্দা আব্দুল সালেকের মা গোল বানু’র ঘর থেকে আগুনের সূত্রপাত ঘটে। মুহুর্তের মধ্যেই আগুনের লেলিহান শিখা পার্শ্ববর্তী মালেক হাওলাদার ও মনিরুল ইসলাম বুলবুলের ঘরে ছড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌছে প্রায় আধা ঘন্টার প্রচেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে। তবে তাদের পৌছাবার আগেই ঘর পুড়ে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়।
ফায়ার সার্ভিস’র সহকারী পরিচালক মো. ফারুক আহমেদ জানিয়েছেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌছে আমাদের ৮টি ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রনে কাজ করেছে। ‘ফায়ার সার্ভিস কর্মীদের তৎপরতার কারনে বড় ধরনের দুর্ঘটনার আগেই আগুন নিয়ন্ত্রনে আসে।
তিনি বলেন, ‘বস্তির আশে পাশে অনেক বসত ঘর রয়েছে। এর মধ্যে গোলবানু, আব্দুল মালেক ও মনিরুল ইসলাম বুলবুলের ঘর আগুনে পুড়ে গেছে। যার মধ্যে দুটি বসতঘর পুরোপুরিভাবে ভষ্মিভুত হয়। অপর ঘরটি আংশিক পুড়েছে।
এতে আর্থিক ক্ষয়ক্ষতির পরিমান তিন লক্ষাধিক টাকা হতে পারে। তবে ফায়ার সার্ভিসের তৎপরতার কারনে অন্যান্য বসতঘরসহ ১৫ লক্ষাধিক টাকার মালামাল ক্ষয়ক্ষতির হাত থেকে রক্ষা পেয়েছে। তবে আগুনের সূত্রপাত নির্নয় করা সম্ভব হয়নি। তদন্ত করে এ বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যাবে বলে জানিয়েছেন ফায়ার সার্ভিসের ওই কর্মকর্তা।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT