প্রধান নির্বাচন কমিশনারসহ ৫ জনকে শোকজ প্রধান নির্বাচন কমিশনারসহ ৫ জনকে শোকজ - ajkerparibartan.com
প্রধান নির্বাচন কমিশনারসহ ৫ জনকে শোকজ

6:10 pm , May 30, 2018

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ আসন্ন বরিশাল সিটি কর্পোরেশন (বিসিসি) নির্বাচনে বিজয়ী হতে ২৪ নং ওয়ার্ডে তফসিল বর্ণিত ভোট কেন্দ্রের অধিক কেন্দ্র স্থাপন করার হুমকি দেয়ার অভিযোগে দায়ের করা মামলায় প্রধান নির্বাচন কমিশনারসহ ৫ জনকে কারণ দর্শানোর নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। গতকাল বরিশাল সদর সিনিয়র সহকারী জজ আদালতের বিচারক মোঃ হাদিউজ্জামান শুনানী শেষে আগামী ৩০ দিনের মধ্যে এ কারণ দর্শানোর নির্দেশ দেন। দায়ের করা মামলায় অন্যান্য যারা কারণ দর্শাবেন তারা হলেন সদর উপজেলা নির্বাচন অফিসার, সিনিয়র জেলা নির্বাচন অফিসার, আঞ্চলিক নির্বাচন অফিসার ও বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন কার্য্যালয়ের সচিব। এর আগে গত মঙ্গলবার ওই ওয়ার্ডের বাসিন্দা ও কাউন্সিলর পদপ্রার্থী এসএম আনিসুর রহমানসহ ৫ জনের যৌথভাবে করা মামলায় প্রধান নির্বাচন কমিশনার, সদর উপজেলা নির্বাচন অফিসার, সিনিয়র জেলা নির্বাচন অফিসার, আঞ্চলিক নির্বাচন অফিসার ও বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন কার্য্যালয়ের সচিবকে অভিযুক্ত করা হয়েছিল। এছাড়া মামলায় জেলা প্রশাসক কার্য্যালয়ের স্থানীয় সরকারের উপ-পরিচালক, বরিশাল বিভাগীয় কমিশনার কার্র্য্যালয়ের স্থানীয় সরকারের পরিচালক ও স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রাণালয়ের (সিটি কর্পোরেশন শাখা) সচিবকে মোকাবেলা বিবাদি করা হয়েছিল। মামলা পরিচালনাকারী আইনজীবী আজাদ রহমান জানান, নগরীর ২৪ নং ওয়ার্ড ধান গবেষণা রোডের বাসিন্দা ও আসন্ন সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ২৪ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর পদ প্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও সাবেক কমিশনার এসএম আনিছুর রহমান, মহানগর আওয়ামী লীগের ২৪ নং ওয়ার্ড সভাপতি মাহাবুব আলম ওরফে বদিউল আলম ও সাধারন সম্পাদক নাজমুল হুদা, বিসিসির সাবেক কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর মোল্লা এবং মহিলা আওয়ামী লীগের ওয়ার্ড সভানেত্রী শাহানাজ পারভীন ডালিম ২২, ২৩,২৪নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদপ্রার্থী। স্থানীয় ভাবে তাদের ব্যাপক জনপ্রিয়তা থাকায় আসন্ন নির্বাচনের কাউন্সিলর পদে জয় লাভে তারা আশাবাদী। বিসিসির ২৪ নং ওয়ার্ডে বর্তমানে ৪টি ভোট কেন্দ্র রয়েছে। এলাকার জনসংখ্যা বিবেচনায় জনস্বার্থে ভোট কেন্দ্রের সংখ্যা বাড়ানোর লক্ষ্যে গত ৩০ জানুয়ারী জেলা নির্বাচন অফিসার স্থানীয় পর্যায়ের সকলকে নিয়ে নিজ কার্য্যলয়ে এক মতবিনিময় সভার আয়োজন করেন। সভায় রুপাতলী হাউজিং এলাকায় শহীদ আঃ রব সেরনিয়াবাত মাধমিক বিদ্যালয় ও সাগরদী পিটিআই ইনস্টিটিউট নতুন ভোট কেন্দ্র হিসেবে ঘোষণা করলে তা সর্ব্বসম্মতিক্রমে গৃহিত হয়। এতে ২৪ নং ওয়ার্ডে বর্তমানে মোট ভোট কেন্দ্রের সংখ্যা ৬টি। কিন্তু বর্তমান কাউন্সিলর ফিরোজ আহম্মেদ জনসর্মথহীন থাকায় ভোট কারচুপিসহ বে আইনি ও অবৈধ কর্মকার্ন্ডের মাধ্যমে নির্বাচনে জয়লাভ করার অসৎ উদ্দেশ্যে তার মায়ের নামে প্রতিষ্ঠিত আবেদুন্নেছা বে সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ঘোষিত ভোট কেন্দ্রের বাহিরে নতুনভাবে একটি ভোট কেন্দ্র স্থাপনের পায়তারায় লিপ্ত হয়। যেহেতু বিদ্যালয়টি ২৪নং ওয়াডের্র নদীর শেষ প্রান্তে স্থাপিত এবং ওপারে চরকাউয়া ইউপি ও নলছিটি এলাকা থাকায় সেখান থেকে সন্ত্রাসী বাহিনী নদী পথে এসে ভোট ডাকাতি করার আশংকা রয়েছে। এছাড়া নির্ধারিত ৬টি ভোট কেন্দ্রের বাহিরে নতুন কোন ভোট কেন্দ্র স্থাপনে স্থানীয় জন সাধারণের নূন্যতম সম্মতি না থাকায় এসএস আনিছুর রহমানসহ অন্যান্যরা প্রধান নির্বাচন কমিশনারসহ সকলকে জনমত উপেক্ষা করে নতুন ভোট কেন্দ্র স্থাপন এবং নির্বাচন কার্যক্রম পরিচালনা না করার অনুরোধ জানান। কিন্ত গত ২৭ মে কর্মকর্তারা আবেদুন্নেছা বে সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ভোট কেন্দ্র স্থাপনের হুমকী দেন। এ ঘটনায় মোকাবেলা বিবাদিদের সামনে বিচার কাজ সম্পন্ন হওয়া আবশ্যক বিধায় গত মঙ্গলবার মামলাটি দায়ের করলে গতকাল শুনাণী শেষে বিচারক ওই নির্দেশ দেন। অন্যান্য বাদীরা হলেন মাহাবুব আলম ওরফে বদিউল আলম, নাজমুল হুদা, জাহাঙ্গীর মোল্লা ও শাহানাজ পারভীন ডালিম।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT