কর্মচারীর হামলায় মালিক ও তার স্ত্রী আহত কর্মচারীর হামলায় মালিক ও তার স্ত্রী আহত - ajkerparibartan.com
কর্মচারীর হামলায় মালিক ও তার স্ত্রী আহত

6:09 pm , May 30, 2018

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ বানারীপাড়া কুন্দিহার কলেজ মোড়ের চিপস, চানাচুর তৈরীকারক প্রতিষ্ঠান মেসার্স তানহা ফুড প্রোডক্টের মালিক রিয়াজ হাওলাদার ও তার ভাইকে মারধর এবং স্ত্রীর শ্লীলতাহানি করার অভিযোগে প্রতিষ্ঠানের ২ কর্মচারীর বিরুদ্ধে সাধারন ডায়েরী করা হয়েছে। এছাড়া ডায়েরীতে অজ্ঞাতনামা আরো ১০/১২ জনকে অভিযুক্ত করা হয়েছে। গতকাল কোতোয়ালি মডেল থানায় সাধারন ডায়েরীটি করেন রিয়াজ হাওলাদার। অভিযুক্তরা কর্মচারীরা হলো ঝালকাঠির নুর মোহাম্মদ হাওলাদারের ছেলে মামুন হাওলাদার ও উজিরপুর বৈরকাঠি এলাকার কাঞ্চন মিয়ার ছেলে মামুন মিয়া। ডায়েরী সূত্রে জানা যায়, ২০১৬ সালে মামুন হাওলাদারের প্রস্তাবে বানারীপাড়া কুন্দিহার কলেজ মোড়ের চিপস, চানাচুর তৈরীকারক প্রতিষ্ঠান মেসার্স তানহা ফুড প্রোডক্ট নামক কারখানা তৈরী করেন রিয়াজ হাওলাদার। শুরুতে মামুন সেখানে কাজ করলেও পরে মামুন মিয়াকে উৎপাদন ও মালামাল বিক্রয় কাজে নিয়োগ দেয়া হয়। পরবর্তীতে দুই মামুন অবৈধ লাভবান হতে মালিক রিয়াজকে কারখানা থেকে বিতাড়িত করতে পায়তারা শুরু করে। বিষয়টি টের পেয়ে রিয়াজ তাদেরকে ব্যবসার হিসাব নিকাশ বুঝিয়ে দিতে বলে। এছাড়া বিরোধ নিষ্পত্তিতে স্থানীয়রা শালিস বৈঠকের মাধ্যমে মামুনদ্বয়কে ২৭ লাখ টাকা রিয়াজকে দিতে বলে। এতে তারা ক্ষিপ্ত হয়ে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা দায়ের করে। গতকাল ওই মামলায় হাজিরা দিতে রিয়াজ, তার ভাই এবং স্ত্রী বরিশাল আসে। তারা আদালতের কাজ শেষে নগরীর ফজলুল হক এভিনিউ রোডের এজি অফিসের গেটের সামনে পৌছিলে মামুন হাওলাদার ও মামুন মিয়াসহ অজ্ঞাতনামারা তাদের পথরোধ করে। অজ্ঞাতনামাদের সহায়তায় মামুন হাওলাদার মালিক রিয়াজের গলা চেপে ধরে এলোপাথারী মারধর করে। এসময় তার ভাই ও স্ত্রী এগিয়ে এলে মামুন মিয়া তাকে মারধর করে এবং স্ত্রীর শ্লীলতাহানি ঘটায়। পরে স্থানীয়া এগিয়ে এলে দুই মামুনসহ অন্যান্যরা তাদের খুন জখমের হুমকি দিয়ে এলাকা ত্যাগ করে।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT