কাউন্সিলর টিপুর কার্যালয়ে চুরি কাউন্সিলর টিপুর কার্যালয়ে চুরি - ajkerparibartan.com
কাউন্সিলর টিপুর কার্যালয়ে চুরি

5:35 pm , May 6, 2018

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ নগরীর ৬নং কাউন্সিলর হাবিবুর রহমান টিপুর কার্যালয়ে চুরি হয়েছে। শনিবার দিবাগত গভীর রাতে এ চুরি হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। নগরীর ৬নং ওয়ার্ডের সিরাজুল ইসলাম সড়কে (আমানতগঞ্জ সড়ক) অবস্থিত কার্যালয় থেকে চোর নগদ ১৭ হাজার টাকা, বয়স্ক ভাতার কয়েকটি কার্ড ও প্রয়োজনীয় দাপ্তরিক কিছু কাগজপত্র চুরি করেছে।
কাউন্সিরর হাবিবুর রহমান টিপু জানান, শনিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে কার্যালয় বন্ধ করে বাসায় যান। পরে রোববার সকালে ৯টার দিকে কার্যালয়ের কর্মরত মুরাদ তালা খুলে প্রবেশ করে চুরির বিষয়টি টের পেয়েছে।
কাউন্সিলর জানান, চোর কার্যালয়ের পূর্ব দিকের জানালার গ্রীলের একাধিক অংশ ভেঙ্গে ভিতরে প্রবেশ করেছে। পরে কার্যালয়ে থাকা ষ্টিলের আলমারীর নিচের অংশ ভেঙ্গে ফেলেছে। আলমারীতে থাকা নগদ টাকাসহ প্রয়োজনী কাগজপত্র নিয়ে গেছে। এছাড়া দুইটি টেবিলের ড্রয়ার ভেঙ্গে দাপ্তরিক মূল্যবান কাগজপত্র এলোমেলো করে ফেলে রেখেছে।
কার্যালয়ে চুরির খবর পেয়ে কোতয়ালী মডেল থানার ওসি (তদন্ত) মো. আসাদুজ্জামান ও উপ-পরিদর্শক মাইনুল ইসলাম, ডিবি পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এছাড়াও প্যানেল মেয়র কেএম শহীদুল্লাহ, কাউন্সিলর মো. ইউনুচ মিয়া, কাউন্সিলর মাইনুল ইসলাম, কাউন্সিলর জাহানারা বেগম ঘটনাস্থল পরিদর্শনে গিয়ে এঘটনায় জড়িতদের এবং নেপথ্য যারা রয়েছে তাদের খুঁজে বের করার দাবি জানান। মেয়র আহসান হাবিব কামাল এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও জড়িতদের শাস্তি দাবি করেছেন। মহানগর পুলিশের উপ-পুলিশ কমিশনার মো, আব্দুর রউফ বলেন, এ ঘটনায় জড়িতদের বিষয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে বলে আশ্বাস দিয়েছেন। এদিকে এলাকার একাধিকবার নির্বাচিত ও জনপ্রিয় কাউন্সিলর হাবিবুর রহমান টিপুর কার্যালয়ে চুরি হওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছে স্থানীয়রা। স্থানীয় একাধিক বাসিন্দা জানান, কাউন্সিলর টিপুর জনপ্রিয়তায় ঈর্ষান্বিত হয়ে প্রভাবশালী মহলের ইন্ধনে চুরি হয়েছে।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT