মিডটাউন হাসপাতালের খামখেয়ালীতে নিজ বাসায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট শিশু শিক্ষার্থী মিডটাউন হাসপাতালের খামখেয়ালীতে নিজ বাসায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট শিশু শিক্ষার্থী - ajkerparibartan.com
মিডটাউন হাসপাতালের খামখেয়ালীতে নিজ বাসায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট শিশু শিক্ষার্থী

3:17 pm , December 12, 2018

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ নগরীর আগরপুর রোডের মিডটাউন হাসপাতালের খামখেয়ালীর কারনে অল্পের জন্য প্রান রক্ষা পেয়েছে জাহানারা স্কুল এন্ড কলেজের তৃতীয় শ্রেণীর শিক্ষার্থী আহনাফ হক জায়েজ। হাসপাতালের জন্য নেয়া ১১ হাজার ভোল্টের বিদ্যু সংযোগের ক্যাবলে নিজ বাসায় বিদ্যুতস্পৃষ্ঠে ঝলসে গেছে শিশুর হাত ও পা। বর্তমানে গুরুতর আহত অবস্থায় জায়েজ শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। গতকাল বুধবারের এ ঘটনায় কোতোয়ালী মডেল থানায় জিডি করেছে যাওয়া এ শিক্ষার্থীর পিতা মো. জিয়াউল হক। অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, নগরীর আগরপুর রোডের নিজ মালিকানাধীন বাসায় পরিবার নিয়ে তিনি বাস করেন। স্কুল থেকে ফিরে দুপুর ১২টার দিকে ছেলে জায়েজ বাসার তৃতীয় তলার বারান্দায় খেলাধুলা করছিল। বারান্দার পাশে ছিল মিডটাউন হাসপাতালের জন্য প্রতিবেশি মানিক মিয়ার নেয়া বিদ্যুত সংযোগের ১১ হাজার ভোল্টের ক্যাবল। খেলার ছলে সেই সংযোগের স্পর্শ হয় জায়েজের খেলার সামগ্রী। এতে বিদ্যুতস্পৃষ্ঠে জায়েজের দুই হাত এবং বাম পা পুড়ে দগ্ধ হয়। তার বাবা জিয়াউল হক জানান, প্রতিবেশী মানিক মিয়া দূর্ঘটনার ওই স্থানের মাত্র ৩ ফুট দূরত্ব থেকে ২৫০ ভোল্টেজের বৈদ্যুতিক সংযোগ নিয়েছে। কিছুদিন পূর্বে আরো কাছে থেকে তিনি ১১ হাজার ভোল্টেজের সংযোগ নেন। ওই সংযোগের কারনে অন্যান্য ভবনের বাসিন্দারা ক্ষতিগ্রস্থ হওয়ার সম্ভাবনায় একাধিকবার তাকে নিষেধ করা হয়েছিল। কিন্তু মানিক মিয়া কারো কোন কথা শুনেনি। সকলকে গালি দিয়ে এবং বিভিন্ন ভয়ভীতি প্রদর্শন করে। এমনকি বিভিন্ন মিথ্যা মামলা দেয়ার হুমকিও দেয়। মানিক মিয়ার কারনে মৃত্যুর মুখে পড়েছিল শিশু জায়েজ। ভবিষ্যতে আরো বড় ধরনের দুর্ঘটনার আশংকা করা হচ্ছে। এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে অভিযুক্তদের বিচার দাবি করেছেন ভুক্তভোগী পরিবারটি।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT