প্রতীক পেয়ে প্রচারনায় জেলার ৬ আসনের ৩৮ প্রার্থী প্রতীক পেয়ে প্রচারনায় জেলার ৬ আসনের ৩৮ প্রার্থী - ajkerparibartan.com
প্রতীক পেয়ে প্রচারনায় জেলার ৬ আসনের ৩৮ প্রার্থী

3:00 pm , December 10, 2018

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ জেলার ৬ আসনের ৩৮ প্রার্থীর মাঝে প্রতীক দেয়া হয়েছে। গতকাল সোমবার দুপুরে রিটার্নিং কর্মকর্তা জেলা প্রশাসক এসএম অজিয়র রহমান প্রার্থী ও তাদের প্রস্তাবক-সমর্থকদের উপস্থিতিতে প্রতীক বরাদ্দ করেন। নির্বাচনে অংশ নেয়া জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থীরা ধানের শীষ এবং মহাজোটের প্রার্থীরা নৌকা প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। এছাড়াও মহাজোটের শরিক জাতীয় পার্টির মনোনীত তিন প্রার্থীরা লাঙ্গল প্রতীক পেয়েছেন। জেলার দুইটি আসনে দুই স্বতন্ত্র প্রার্থী ট্রাক প্রতীক পেয়েছেন। এদিকে প্রতীক পেয়ে প্রচারনা শুরু করেছেন মহাজোট, ঐক্যফ্রন্ট, জাপার, ইসলামী আন্দোলনসহ অন্যান্য দল ও স্বতন্ত্র প্রার্থীরা। প্রার্থী ও দলীয় প্রতীকের শ্লোগান নিয়ে মিছিল ও মাইকিংয়ে মুখরিত হয়ে উঠেছে নগরীসহ গ্রামীন জনপথ। রিটার্নিং কার্যালয় সুত্রে জানা গেছে, বরিশাল-১ (গৌরনদী-আগৈলঝাড়া) আসনে প্রতিদ্বন্ধি প্রার্থী ৪ জন। এর মধ্যে আওয়ামী লীগের প্রার্থী আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ নৌকা, বিএনপি’র এম. জহিরউদ্দিন স্বপন ধানের শীষ, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মো. রাসেল সরদার হাতপাখা এবং জাকের পার্টির মো. বাদশা মিয়া পেয়েছেন গোলাপ ফুল প্রতীক।
বরিশাল-২ (উজিরপুর-বানারীপাড়া) আসনে প্রতিদ্বন্ধি প্রার্থী ৭জন। এর মধ্যে আওয়ামী লীগের মো. শাহেআলম নৌকা, বিএনপি’র সরদার সরফুদ্দিন আহমেদ সান্টু ধানের শীষ, জাতীয় পার্টির মো. মাসুদ পারভেজ সোহেল রানা লাঙ্গল, ওয়ার্কার্স পার্টির মো. জহুরুল ইসলাম হাতুরী, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মো. নেছারউদ্দিন হাতপাখা, এনপিপি’র সাহেব আলী এবং স্বতন্ত্র (জাসদ-আম্বিয়া) মো. আনিচুজ্জামান পেয়েছেন ট্রাক প্রতীক।
বরিশাল-৩ (বাবুগঞ্জ-মুলাদী) আসনে প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী ৬ জন। এর মধ্যে বিএনপি’র অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন ধানের শীষ, জাতীয় পার্টির গোলাম কিবরিয়া টিপু লাঙ্গল, মহাজোটের প্রার্থী ওয়ার্কার্স পার্টির টিপু সুলতান নৌকা, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মো. সিরাজুল ইসলাম হাতপাখা ও বিকল্পধারা বাংলাদেশের মো. এনায়েত কবির কুলা এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী আতিকুর রহমান পেয়েছেন ট্রাক প্রতীক।
বরিশাল-৪ (হিজলা-মেহেন্দিগগঞ্জ) আসনে প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী ৭জন। এর মধ্যে আওয়ামী লীগের পংকজ নাথ, ঐক্যফ্রন্টের ব্যানারে নাগরিক ঐক্যের জেএম নুরুর রহমান জাহাঙ্গীর ধানের শীষ, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের সৈয়দ মো. নুরুল কারিম হাতপাখা, ইসলামী ঐক্যজোটের সাইফুল্লাহ’র প্রতীক মিনার, বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের রুহুল আমীনের দেয়াল ঘড়ি, বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্টের (বিএনএফ) এনামুল হক টেলিভিশন এবং বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের মাহবুবুল আলম বটগাছ প্রতীক পেয়েছেন।
বরিশাল-৫ আসনে প্রার্থী ৭ জন। এর মধ্যে আওয়ামী লীগের কর্নেল (অব.) জাহিদ ফারুক শামীম নৌকা, বিএনপি’র অ্যাডভোকেট মজিবর রহমান সরোয়ার ধানের শীষ, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মুফতি সৈয়দ মো. ফয়জুল করিম হাতপাখা, জাতীয় পার্টির অ্যাডভোকেট একেএম মুর্তজা আবেদীন লাঙ্গল, বাংলাদেশ জাতীয় পার্টি (মতিন) এইচএম মাসুম বিল্লাহ কাঁঠাল, বাংলাদেশের বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির অধ্যাপক আবদুস সাত্তার কোদাল এবং এনপিপি’র শামীমা নাসরিন পেয়েছেন আম প্রতীক।
বরিশাল-৬ আসনে সাত প্রার্থীর মধ্যে জাতীয় পার্টির নাসরিন জাহান রতœা আমীন লাঙ্গল, বিএনপি’র আবুল হোসেন খান ধানের শীষ, জাতীয় পার্টির (জেপি) খন্দকার মাহতাব উদ্দিন বাই সাইকেল, জাসদ-ইনু মো. মোহসীন মশাল, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মো. নুরুল ইসলাম আল-আমিন হাতপাখা, জেএসডি’র একেএম নুরুল ইসলাম তাঁরা এবং স্বতন্ত্র মো. আলী তালুকদার ফারুক পেয়েছেন সিংহ প্রতীক।
প্রতীক বরাদ্দ পেয়েই নির্বাচনী প্রচারনায় নেমে পড়েছেন বরিশালের ৬টি আসনের বিভিন্ন দল জোট ও স্বতন্ত্র প্রার্থীরা। দুপুরে নগরীর কালীবাড়ি রোডে ১৫ আগস্টের শহীদ সাবেক মন্ত্রী আব্দুর রব সেরনিয়াবাত বাড়ি থেকে নির্বাচনী প্রচারনা শুরু করেন সদর আসনে আওয়ামী লীগ প্রার্থী কর্নেল (অব.) জাহিদ ফারুক শামীম। গনসংযোগ এবং লিফলেট বিতরনকালে তার সাথে সিটি মেয়র সাদিক আবদুল্লাহ সহ স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। প্রচারনাকালে জাহিদ ফারুক উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখার পাশাপাশি বরিশালকে দৃস্টি নন্দনভাবে সাঁজাতে নৌকা প্রতীককে বিজয়ী করার আহ্বান জানান।
এদিকে বিকেল সোয়া ৩টায় নগরীর পশ্চিম কাউনিয়ার নিজ বাস ভবন চত্ত্বর থেকে নেতাকর্মীদের নিয়ে প্রচারনা শুরু করেন সদর আসনে বিএনপি’র প্রার্থী মজিবর রহমান সরোয়ার। গনসংযোগকালে জনগনের সাথে কুশল বিনিময় ছাড়াও লিফলেট বিতরন করেন তিনি। এ সময় তিনি বরিশালের উন্নয়ন এবং বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য ধানের শীষে ভোট প্রার্থনা করেন। বিগত সিটি নির্বাচনে আওয়ামী লীগ জনগনের ভোট কেড়ে নেওয়ায় ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনে বিএনপি’র পক্ষে গনজোয়ার সৃস্টি হয়েছে বলে জানান সরোয়ার। ভোট কেড়ে নেওয়া প্রশাসনের কর্মকর্তাদের প্রত্যাহারও দাবী করেন তিনি।
অপরদিকে বরিশাল-৫ আসনের ইসলামী আন্দোলনের প্রার্থী মুফতী সৈয়দ মুহাম্মাদ ফয়জুল করীম নগরীর অশ্বিনী কুমার হলের সামনে থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে প্রচারণা শুরু করেছেন।
জনগণের কাছে লিফলেট বিতরণ করেন এবং তাঁকে সংসদ সদস্য হিসেবে বিজয়ী করতে মূল্যবান ভোট কামনা করেন। পাশাপাশি সবসময় বরিশালবাসীর খিদমত করার প্রতিশ্রুতি দেন তিনি। সদর রোড গীর্জামহল্লা, চকবাজার, লাইন রোড ও জেলখানা মোড় এলাকায় গণসংযোগ করেন তিনি।
এছাড়াও বরিশালের অন্যান্য আসনের প্রার্থীরা প্রতীক বরাদ্দ পেয়েই উৎসাহ উদ্দিপনার মধ্য দিয়ে নির্বাচনী প্রচারনা শুরু করেছেন। এদিকে প্রতীক বরাদ্দের পরপরই প্রার্থীরা প্রচারনা চালাতে পারবেন বলে জানিয়েছেন রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক এসএম অজিয়র রহমান।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT