এবার ক্যারিবিয়ান ওয়াশের উল্লাস এবার ক্যারিবিয়ান ওয়াশের উল্লাস - ajkerparibartan.com
এবার ক্যারিবিয়ান ওয়াশের উল্লাস

3:10 pm , December 2, 2018

পরিবর্তন ডেস্ক ॥ ক্যারিবিয়ান বধের উৎসবের মঞ্চটা সাজানো ছিল আগের দিনই! বাকি ছিল কেবল আনুষ্ঠানিকতা। সেই আনুষ্ঠানিকতায় কুয়াশা ঘেরা সকালে আলো হয়ে ধরা দিলেন মেহেদী হাসান মিরাজ। তার ঘূর্ণিতে ল-ভ- হয়ে যাওয়া ক্যারিবিয়ান ব্যাটিং লাইনআপ হয়ে গেছে নিষ্প্রভ। তাতেই টেস্ট ক্রিকেটে প্রথমবারের মতো ইনিংস ব্যবধানে জয়ের কীর্তি গড়েছে বাংলাদেশ।
ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ইনিংস ও ১৮৪ রানে হারানোর ইতিহাসটা নিঃসন্দেহে সোনালী অক্ষরেই লেখা থাকবে। এই নিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো হোয়াইটওয়াশ হতে হলো ক্যারিবিয়ানদের। প্রথমবার ২০০৯ সালে বিদেশের মাটিতে, ৯ বছর পর দ্বিতীয়বার বাংলাদেশের ঘরের মাঠে।
এমন জয়ের সঙ্গে সঙ্গে স্বাগতিক শিবিরে বাঁধ ভাঙা উল্লাস হতে পারতো! কিন্তু উচ্ছ্বাসের মাত্রাটা ছাড়িয়ে গেলো না রিভিউর কারণেই। যদিও রিভিউ নিয়ে বাঁচতে পারেননি পেসার লুইস। থার্ড আম্পায়ার আউট দিতেই মিরপুরের গ্যালারিতে উল্লাসে মেতে উঠে সবাই। এমন সময় টেস্ট জয়ের নায়ক মিরাজকে নিয়ে তখন চলছিলো গ্র্যান্ড স্ট্যান্ডে টানাটানি! বাদ যাননি মুশফিকের বাবাও।
গত জুনে গ্যাব্রিয়েল-রোচদের গতিময় বোলিংয়ে ৪৩ রানে অলআউট হওয়ার প্রতিশোধটা ঢাকায় খুব ভালো করেই নিল বাংলাদেশ। তবে টেস্ট আঙিনায় ১৮ বছর পেরিয়ে যাওয়ার পথটা সহজ ছিল না মোটেও। প্রতিটি ধাপে ধাপে লড়াই করতে হয়েছে বাংলাদেশ দলকে। সেই লড়াইয়ে হতে হয়েছে ক্ষত-বিক্ষত। ওই আঘাতের জবাবগুলো সময়ের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে একটু একটু করে দিচ্ছেন সাকিব-মুশফিকরা।
টেস্ট ক্রিকেট ইতিহাসে অনেকবারই তাসের ঘরের মতো ভেঙে গেছে বাংলাদেশের ব্যাটিং লাইনআপ। ঢাকা টেস্টেও এমন অতীত ইতিহাস ফিরে এসেছে! তবে এবার কেবল বদল হয়েছে চরিত্রের। চেনা কন্ডিশনেও ইনিংস হার এড়াতে পারতো না বাংলাদেশ। কিন্তু ঢাকা টেস্ট দিয়ে নতুন এক ইতিহাস গড়লো সাকিবের দল। প্রথমবার কোন দলকে ইনিংস ব্যবধানে হারের স্বাদ দিয়ে নিজেদের অতীত ইতিহাস বদলালেন।
শুধু তাই নয়, এই টেস্টে প্রথমবারের মতো বাংলাদেশ কোন দলকে ফলো অন করতে বাধ্য করেছে। এর আগে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষেও সুযোগ এসেছিলো। কিন্তু ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ তা করেননি দলের স্বার্থে!
এমন ফলোঅনে প্রথম ইনিংসের চেয়ে দ্বিতীয় ইনিংসে কিছুটা লড়াই করার মানসিকতা দেখিয়েছে ক্যারিবিয়ানরা। যদিও দ্বিতীয় ইনিংসে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ একমাত্র হিসেবে ছিলেন কেবল শিমরন হেটমায়ার! সাজঘরে ফেরার আগে হারের ব্যবধান কমাতে খেলেছেন ৯৩ রানের দারুণ এক ইনিংস। হেটমায়ারের ফিরে যাওয়ার পর বাংলাদেশের জয়টা সময়ের ব্যবধান হয়ে দাঁড়ায়। বাংলাদেশ ম্যাচ জিতে ইনিংস এবং ১৮৪ রানের ব্যবধানে।
রবিবারের জয়টি বাংলাদেশের ক্রিকেট ইতিহাসে স্পেশাল হয়েই থাকবে। এর আগে ইংল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টেস্ট জয়েও এতো প্রতাপ ছিল না, যতটা ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দেখিয়েছে স্বাগতিকরা। টেস্টের প্রথম দিনে সবাইকে অবাক করে দিয়ে প্রথমবারের মতো চার স্পিনার নিয়ে সেই প্রতাপের জানান দিয়ে শুরু। এরপর নিজেদের পছন্দের উইকেটে বাকি কাজ সম্পন্ন। আগেই জানা ছিল চট্টগ্রামের চেয়ে ভয়াবহ স্পিন ফাঁদ পাতা হবে মিরপুরে। সেই ফাঁদে ভেলকি দেখালেন দলের বিশেষজ্ঞ চার স্পিনারই।
চট্টগ্রামের পর ঢাকাতেও ম্যাচ জিততে সবচেয়ে বড় ভূমিকাটা রেখেছেন সাকিব! এমন কন্ডিশনে সব সময়ই টস জেতার গুরুত্ব সবচেয়ে বেশি। সাকিব এই টেস্টে টস জিতে ম্যাচের অনেকটা জিতে গিয়েছিলেন শুরুতে। প্রায় আড়াই সেশন ব্যাটিং করে বাংলাদেশ ৫০৮ রানের সংগ্রহ দাঁড় করায় প্রথম ইনিংসে। এমন সংগ্রহের বিপরীতে দ্বিতীয় দিনের শেষ বিকালে ৫ ক্যারিবিয়ান ব্যাটসম্যানকে ফিরিয়ে উৎসবের উপলক্ষটা ঠিক করে রাখেন সাকিব-মিরাজ।
ফলো অন শঙ্কায় পড়ে যাওয়া এই দলের শঙ্কাটা আরও ঘনীভূত হয় তৃতীয় দিন সকালে। মিরাজের ভেলকিতে ১১১ রানে থেমে যায় সফরকারীরা। আগের দিন তিন উইকেট নেওয়া মিরাজ নিলেন ক্যারিয়ার সেরা ৭ উইকেট। দিনের একটি উইকেট ভাগ দিলেন সাকিবকে! বাংলাদেশের বিপক্ষে এটাই ক্যারিবিয়ানদের সর্বনিম্ম রানের লজ্জা। এর আগে বাংলাদেশকে ৪৩ ও ৮৭ রানে অলআউট করার প্রতিশোধটা এমন নির্মম ভাবে নেবে বাংলাদেশ, এমনটা হয়তো ভুলে ভাবেনি ক্যারিবিয়ানরা।
ম্যাচ জেতার চেয়ে ঢাকা টেস্টে বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় প্রাপ্তি মাহমুদউল্লাহকে খুঁজে পাওয়া। গত তিন টেস্টে খোলস ছেড়ে বেরিয়ে আসা মাহমুদউল্লাহকে আবিষ্কার করা গেছে। ৯ বছরের ক্যারিয়ারের মাহমুদউল্লাহ প্রথম সেঞ্চুরি পেতে সময় নিয়েছিলেন ৮ বছর। পরের গল্পটাতো অসাধারণ। সেঞ্চুরির সংখ্যা দুই থেকে তিনে আসলো মাত্র ১৭ দিনে! শুক্রবার খেললেন ক্যারিয়ার সেরা ১৩৬ রানের ইনিংস।
এমন সুখকর অনুভূতি সঙ্গে নিয়ে আগামী ৯ ডিসেম্বর ওয়ানডে সিরিজ শুরু করবে বাংলাদেশ। তার আগে আগামী কয়েকটা দিন ক্যারিবিয়ানদের দ্বিতীয়বারের মতো হোয়াটওয়াশ করার সুখস্মৃতি নিয়ে নিজেদের মতো কয়েকটা দিন কাটাবে টেস্টে ‘নতুন’ বাংলাদেশের রূপকার এই ক্রিকেটাররা।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT