চহটায় প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর সমর্থককে মারধর ও দোকান ভাংচুর চহটায় প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর সমর্থককে মারধর ও দোকান ভাংচুর - ajkerparibartan.com
চহটায় প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর সমর্থককে মারধর ও দোকান ভাংচুর

6:13 pm , July 11, 2018

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ নগরীর ৩০ নং ওয়ার্ডে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর সমর্থককে মারধর ও তার দোকানে ভাংচুরের অভিযোগ পাওয়া গেছে আওয়ামী লীগ সমর্থীত কাউন্সিলর প্রার্থী’র বিরুদ্ধে। গতকাল বুধবার সন্ধ্যার দিকে ওয়ার্ডের পশ্চিম চহঠা তালুকদার বাড়ির মোড়ে এই ঘটনা ঘটে। হামলার শিকার ব্যবসায়ীর হলো মো. নূর উদ্দিন। তিনি ওই এলাকার বাসিন্দা।
প্রত্যক্ষদর্শী ও হামলার শিকার ব্যবসায়ী অভিযোগ করেন, ৩০নং ওয়ার্ডে ঠেলাগাড়ি প্রতীক নিয়ে কাউন্সিলর পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন আওয়ামী লীগ সমর্থীত প্রার্থী আজাদ হোসেন মোল্লা কালাম ওরফে কালাম মোল্লা। গতকাল বুধবার সন্ধ্যার দিকে একদল নারী কর্মী তার ঠেলাগাড়ি প্রতীকের লিফলেট নিয়ে পশ্চিম চহঠা এলাকায় নূর উদ্দিন এর ব্যবসা প্রতিষ্ঠান নূর স্টোর্সে যায়। এসময় তিনি কালাম মোল্লার কর্মীদের কাছে আপত্তিকর মন্তব্য করে। কর্মীরা বিষয়টি প্রার্থী কালাম মোল্লাকে জানায়। খবর পেয়ে মুহুর্তের মধ্যে লোকজন নিয়ে ঘটনাস্থলে পৌছে সন্ত্রাসী স্টাইলে নূর উদ্দিনের উপরে লাঠি-সোটা নিয়ে হামলা চালায় কাউন্সিলর প্রার্থী কালাম মোল্লা। এমনকি তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানেও ভাংচুর ও লুটপাট করে বলে অভিযোগ নূরু উদ্দিনের। এসময় স্থানীয়রা ছুটে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।
তবে অভিযোগ অস্বীকার করে আজাদ হোসেন কালাম মোল্লা বলেন, আমি বা আমার লোকজন মারধর তো দুরের কথা কারোর গায়ে নখের আচর পর্যন্ত দেইনি। বরং বর্তমান কাউন্সিলর খায়রুল মামুন শাহীনের সমর্থক আমার নারী কর্মীকে লাঞ্ছিত করেছে। আমার নারী কর্মী লিফলেট নিয়ে গেলে নূর উদ্দিন নামের ওই ব্যক্তি ঠেলাগাড়ি নিয়ে ওই নারী কর্মীকে খারাপ মন্তব্য করে। এজন্য এলাকার লোকজন নূর উদ্দিনকে জুতা পেটা করেছে। এমনকি ঘটনাটি ভিন্ন খাতে প্রভাবিত করতে দোকানের মালামাল এলোমেলো করে ভাংচুরের নাটক সাজিয়েছে বলে অভিযোগ কালাম মোল্লার।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT