বাবুগঞ্জে সুগন্ধা নদীর ভাঙ্গনে দিশেহারা এলাকাবাসী বাবুগঞ্জে সুগন্ধা নদীর ভাঙ্গনে দিশেহারা এলাকাবাসী - ajkerparibartan.com
বাবুগঞ্জে সুগন্ধা নদীর ভাঙ্গনে দিশেহারা এলাকাবাসী

6:50 pm , April 22, 2018

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ সুগন্ধা নদীর কড়াল গ্রাসের মুখে বাবুগঞ্জের পূর্ব ক্ষুদ্রকাঠী গ্রাম সহ বিমান বন্দর, বরিশালÑমুলাদী-মেহেদিগঞ্জ সড়ক ও মীরগঞ্জ ফেরিঘাট। একাধীক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, মসজিদ ও মাদ্রাসাও নদী ভাঙনের মুখে। আতঙ্কে রাত যাপন করছেন ক্ষুদ্রকাঠিসহ আশেপাশের বেশ কয়েকটি গ্রামের ভাঙ্গন কবলিত পরিবার। ক্ষুদ্রকাঠি গ্রামটির পূর্বাংশের অন্তত ৫০ টি পরিবার ভাঙ্গনের কবলে ভিটে বাড়ি সহ শেষ সম্বলটুকুও হারিয়ে নিঃস্ব।
সুগন্ধা নদীর পূর্ব দিক থেকে প্রবাহিত ¯্রােত প্রবল বেগে আড়াআড়ি ভাবে পূর্ব ক্ষুদ্রকাঠীর সরদার বাড়ি এলাকার নদী তীরে আঘাত হানছে। সরদার বাড়ির মসজিদ, পুকুর, বাড়ির বেশ কয়েকটি বসতঘর নদী গ্রাস করেছে। বাড়ির সামনের বরিশাল-বাবুগঞ্জ সড়ক নদীতে বিলীন হয়েছে। মূল বাড়ির মাত্র তিনটি ঘর বর্তমানে অবশিষ্ট থাকলেও তা আসন্ন বর্ষা মৌসুমে টিকবে কিনা সে বিষয়ে সন্দেহে রয়েছে এলাকাবাসী। এমনকি বরিশাল-মীরগঞ্জ-মুলাদী প্রধান সড়কটি থেকে সুগন্ধার ভাঙ্গন এখন মাত্র ৫০ মিটার উত্তরে।
স্থানীয় অধ্যাপক গোলাম হোসেন জানিয়েছেন, সরকারি কিংবা জনপ্রতিনিধিদের কাছে এলাকাবাসী একাধিকবার আবেদন নিবেদন করেও কোন ফল হয়নি। ফলে নিজেদের উদ্যোগে স্বেচ্ছাশ্রমে বাঁশের নির্মীত ‘পার্কোপাইন’ দ্বারা ভাঙ্গন প্রতিরোধ কর্মসূচী হাতে নিয়েছিল। প্রথম দফায় তারা শতাধিক পার্কোপাইন নদীতে ফেলার পরে দ্বিতীয় দফায় বেশ কিছু বাঁশের খাঁচা তৈরী হলেও অর্থাভাবে কাজটি থেমে যায়। আসন্ন বর্ষা মৌসুমের আগেই নদীতে পানির ¯্রােত দেখে তারা আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন। জনগুরুত্বপূর্ণ বরিশাল-মীরগঞ্জ-মুলাদী প্রধান সড়কটি ভাঙ্গনের কবল থেকে রক্ষা পাবে কি না তা নিয়ে সন্দিহান এলাকাবাসী। এলাকার সাধারন মানুষের মতে, সরদার বাড়ির ঘেষে নদীর তীর থেকে পশ্চিমে অন্তত ৫শ মিটার এলাকা ভাঙ্গনের কবল থেকে রক্ষা পেলে শতশত পরিবার, সড়ক, স্থাপনা, প্রতিষ্ঠান, আবাদী জমিসহ পুরো গ্রামটিও রক্ষা পাবে।
এ ব্যপারে বরিশাল-৩ আসনের সংসদ সদস্য এ্যাডঃ শেখ মোঃ টিপু সুলতান সাংবাদিকদের জানিয়েছে, ‘সুগন্ধা নদীর ওই এলাকার ভাঙ্গন তীব্র আকার ধারন করেছে। বরিশাল-মুলাদী যাতায়াতের একমাত্র সড়কটিও ঝুঁকির মুখে। গত অর্থ বছরে ভাঙ্গন প্রতিরোধে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রনালয়ে তিনি প্রকল্প বরাদ্বের সুপারিশ পাঠিয়েছিলেন। কিন্তু মৌসুম শেষের কারণে বরাদ্ধ হয়নি, তবে এ বছর পুনরায় বরাদ্দ চেয়ে আবেদন করা হবে’ বলেও জানান তিনি।
তবে পানি উন্নয়ন বোর্ডের বরিশাল রক্ষনাবেক্ষন ও পরিচালন বিভাগের তরফ থেকে বিমান বন্দর সহ মীরগঞ্জ ফেরিঘাট ও বাজার আড়িয়াল খাঁ নদের ভাঙন থেকে এবং আবুল কালাম ডিগ্রী কলেজ সংলগ্ন এলাকা সুগন্ধা নদীর ভাঙন থেকে রক্ষায় একটি প্রকল্প-প্রস্তাবনা পেশ করা হয়েছে। প্রকল্পের আওতায় ৪ কিলোমিটার এলাকায় নদ-নদী তীর রক্ষা সহ ভাঙন প্রতিরোধ কার্যক্রম বাস্তবায়নে প্রায় ৩৬৫ কোটি টাকার ডিপিপি পেশ করা হয়েছে। যা পানি উন্নয়ন বোর্ডের যাচাই বাছাই কমিটির নির্দেশনা অনুযায়ী পুনঃ গঠন কাজ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। ফলে এ প্রকল্পটি আসন্ন বর্ষা মৌসুমের আগে পরিকল্পনা কমিশনের চুড়ান্ত অনুমোদনের খুব একটা সম্ভবনা নেই বলে মনে করছেন ওয়াকিবহাল মহল।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT