হোটেল ব্যবস্থাপক হত্যায় মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ নগরীর ভাটারখাল এলাকায় আবাসিক হোটেল ব্যবস্থাপক হত্যার ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। মঙ্গলবার রাতে নিহত হোটেল ম্যানেজারের ভাই বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা আসামী করে মামলাটি দায়ের করেছেন।
এদিকে ময়না তদন্ত শেষে গতকাল হোটেল ম্যানেজার শামীম এর মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এছাড়া জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক হোটেল গ্রিনবাগ বোডিং এর মালিক পক্ষের তিনজনকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। তবে ঘটনার প্রায় ৪৮ ঘন্টা পেরিয়ে গেলেও হত্যার রহস্য বা জড়িতদের গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ।
উল্লেখ্য, গত সোমবার রাতে নগরীর বান্দ রোডের ভাটারখাল এলাকায় আবাসিক হোটেল গ্রিনবাগ বোডিং এর ১০ নম্বর কক্ষে হাত-পা বেঁধে শ্বাস রোধ করে হত্যা করা হয় ঐ হোটেলের ব্যবস্থাপক (ম্যানেজার) মিজানুর রহমান শামীমকে (৪৫)। মেহেন্দীগঞ্জ উপজেলার পাতারহাট চরহোগলা গ্রামের বাসিন্দা শামীম ৬ বছর যাবত ঐ হোটেলে ব্যবস্থাপক হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন।
এর পরিপ্রেক্ষিতে গত ১৮ নভেম্বর মঙ্গলবার গ্রিনবাগ বডিং থেকে উদ্ধার করা হয় শামীমের হাত-পা বাঁধা লাশ।
এ ঘটনায় মঙ্গলবার রাতে নিহত শামীমের বড় ভাই দেলোয়ার হোসেন বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন। তবে মামলায় কারো নাম উল্লেখ না করে অজ্ঞাতনামা আসামী করা হয়েছে।
মডেল থানার ওসি (তদন্ত) মোঃ আতাউর রহমান মামলা দায়েরের বিষয়ে সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এখন পর্যন্ত কোন আসামীকে গ্রেপ্তার করা সম্ভব হয়নি। তবে ঘটনার রহস্য উদঘাটন ও জড়িতদের গ্রেপ্তারে পুলিশেল টিম মাঠে রয়েছে। অচিরেই ঘটনার রহস্য উদঘাটন করা সম্ভব হবে বলে জানান তিনি। এছাড়া মঙ্গলবার জিজ্ঞাসাবাদের জন্য যাদের আটক করা হয়েছিলো তাদের জিজ্ঞাসাবাদ শেষে ছেড়ে দেয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি।