সোলার ও এলইডি’র আলোয় আলোকিত হবে রাতের বর্ধিতা এলাকাসহ নগরী

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ চায়না প্রযুক্তির এলইডি লাইটের আলোয় আলোকিত হবে নগরীর বর্ধিত এলাকা। একই সাথে বিদ্যুৎ চাহিদা মেটাতে গুরুত্বপূর্ণ সড়ক, ব্রিজ ও এলাকায় সোলার বাল্ব স্থাপন করা হবে। আগামী জানুয়ারী থেকে সোলার স্থাপনের কাজ শুরু হবে। দ্রুত সময়ের মধ্যে স্থাপনের জন্য কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে পিডিবি এবং বরিশাল সিটি কর্পোরেশন। এলইডি ও সোলার স্থাপনে চুড়ান্ত নকশা প্রনয়নের জন্য গতকাল সোমবার চীনের দুইটি প্রতিষ্ঠান জেড ম্যাক ও লেটিস্স’র চারজন প্রতিনিধি নগরীতে এসেছেন। তারা বিসিসি এবং পিডিবি কর্মকর্তাদের সাথে বৈঠক শেষে পরিদর্শন করেছেন নগরীর বর্ধিত এলাকা সহ সম্ভাব্য স্থান সমুহ।
বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের বিদ্যুৎ শাখার নির্বাহী প্রকৌশলী মো. ওমর ফারুক বলেন, নগরীতে সোলার ও এলইডি স্থাপন পিডিবি’র একটি প্রকল্প। প্রকল্প বাস্তবায়ন শেষে আমরা বিসিসি কর্তৃপক্ষ এটির দেখভাল ও রক্ষনাবেক্ষন এর দায়িত্ব পালন করবো মাত্র। তবে এলইডি এবং সোলার স্থাপন থেকে পাঁচ বছর পর্যন্ত চীনের বাস্তবায়নকারী ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান প্রযুক্তিগত রক্ষনাবেক্ষন করবে।
তিনি জানান, ২০১১ সালে বরিশালসহ দেশের ৮টি সিটি কর্পোরেশনে এক যোগে সোলার লাইট প্রকল্প গ্রহন করে পিডিবি কর্তৃপক্ষ। প্রকল্পের আওতায় বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের বর্ধিত এলাকায় ৩০ কিলোমিটার এলাকা জুড়ে এলইডি লাইট এবং ২ কিলোমিটারের মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ সড়ক, ব্রিজ এবং এলাকায় স্থাপন হবে সোলার। এডিবি’র অর্থায়নে গৃহীত এই প্রকল্পটি বাস্তবায়নে দরপত্রের মাধ্যমে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান নিয়োগ করে পিডিবি কর্তৃপক্ষ। চীনে ওই দুই প্রতিষ্ঠান যৌথভাবে কাজটি সম্পন্নের কার্যাদেশ পেয়েছে। ২০১১ সাল থেকেই প্রকল্প বাস্তবায়নে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান নানামুখি কার্যক্রম পরিচালনা করে। সর্বশেষ আগামী জানুয়ারীতে বরিশাল ও ঢাকা সহ দেশের ৮টি সিটি কর্পোরেশনে এক যোগে এলইডি এবং সোলার স্থাপন কার্যক্রম শুরু করবে। একই সাথে প্রকল্প বাস্তবায়ন কাজশেষ করবে। দ্রুততার সাথে কার্যক্রম শেষ করার তারা নির্ধারিত স্থানসমুহ পরিদর্শন করেছেন। নকশা চুড়ান্ত শেষে অন্যান্য কার্যসম্পন্ন করে মুল কাজে ফিরবেন তারা।
বিসিসি’র বিদ্যুৎ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী ওমর ফারুক বলেন, এলইডি লাইট গুলো বর্ধিত এলাকাতেই লাগানো হবে। শহর পর্যায় এবং গুরুত্বপূর্ণ সড়কের মোট দুই কিলোমিটার জায়গা জুড়ে সোলার স্থাপন হবে। বিশেষ করে শহীদ আব্দুর রব সেরনিয়াবাত সেতু, কালিজিরা সেতু, সিএন্ডবি রোড, নথুল্লাবাদ এলাকার সুরভী পাম্প এর সামনে থেকে গরিয়ারপাড় পর্যন্ত নির্দিষ্ট স্থানে সোলার এবং এলইডি লাইট স্থাপন হবে। এতে করে রাতের বরিশাল নগরী আরো আলোকিত এবং সৌন্দর্যবর্ধীত হবে বলে মন্তব্য করেন বিসিসি’র বিদ্যুৎ বিভাগের এই কর্মকর্তার।