সুন্নাত তরীকা অনুযায়ী সকলকে খাঁটি মুসলমান হতে হবে -রুপাতলীতে ছারছীনার পীর

আমীরে হিযবুলল্লাহ, মোজাদ্দেদে জামান, ছারছীনা শরীফের পীর ছাহেব আলহাজ্ব হযরত মাওলানা শাহ্ মোহাম্মদ মোহেব্বুল্লাহ (মা.জি.আ.) বলেছেন- আমরা মুসলমান। আমাদের নিজস্ব স্বকীয়তা, নিজস্ব সংস্কৃতি রয়েছ্ েযা আমাদের আমল ও আখলাকের মাধ্যমে পরিস্ফুটিত করে তুলতে হবে। মহান আল্লাহ পাক আমাদের সৃষ্টি করেছেন তাঁর ইবাদত করার জন্য। কিন্তু বর্তমান যুগ-জামানা এত কঠিন হয়ে পড়েছে যে, মানুষ এখন আমল করতে চায়না, তারা আমলের প্রতি উদাসীন। অথচ রাসূলুল্লাহ (সঃ) উম্মতে মুহাম্মদীর জন্য অনুসরণীয় দুইটি জিনিস রেখে গেছেন। তা হলো- পবিত্র কুরআন ও সুন্নাহ্। কুরআন হলো মানব জাতির জীবন বিধান, আর নবী করীম (সঃ) এর সুন্নাত হচ্ছে কুরআনের বাস্তব নমুনা। বর্তমানে রাসূল (সঃ) নেই, যে আমরা তাঁকে দেখে দেখে আমল করব। আমাদের কাছে আছে পবিত্র পবিত্র কুরআন, সুন্নাহ ও হক্কানী ওলামায়ে কেরাম তথা পীর-মাশায়েখগণ। রাসূলুল্লাহ (সঃ) এর যোগ্য ওয়ারীস হক্কানী ওলামায়ে কেরাম ও হক্কানী পীর-মাশায়েখের অনুসরণ-অনুকরণ করলেই রাসূলুল্লাহ (সঃ) এর অনুসরণ করা হবে। আর রাসূলুল্লাহ (সঃ) কে অনুসরণ করলেই আল্লাহকে পাওয়া যাবে। সিরাত-সুরতে, কাজে-কর্মে, রসূলুল্লাহ (সঃ) এর পথ অনুসরণ করে খাঁটি মুসলমান হতে হবে। সুন্নাত তরীকা অনুযায়ী সকলকে আমল করে খাঁটি মুসলমান হতে হবে। অপরদিকে ত্বরীকার নেয়ামত লাভ করতে হলে গীবত-কোয়াত, মিথ্যা বলা, পারষ্পরিক শত্রুতা, হিংসা-বিদ্বেষ, আরাম ভক্ষণ, সুদ-ঘুষ, বেপর্দেগী এসব খারাপবদ অভ্যাসগুলো পরিহার করতে হবে।
গতকাল শনিবার নগরীর রূপাতলী হাউজিং স্টেট জামে মসজিদ ময়দানে ঈছালে ছওয়াব ওয়াজ মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে হযরত পীর ছাহেব কেবলা একথা বলেন।
পীর ছাহেব কেবলা মাহফিলে আগত লোকদের সতর্ক করে বলেন- বর্তমানে আলেম নামধারী একদল লোক বিভিন্নভাবে অপপ্রচার চালাচ্ছে। তারা মূলত ঘোলা পানিতে মাছ শিকার করতে চায়। তাদের ব্যাপারে সকলকে সতর্ক থাকার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন।
তিনি মাহফিলে আগত হাজার হাজার ভক্ত মুরীদানদেরকে স্ব-স্ব এলাকায় দ্বিনীয়া মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠা ও সন্তানদেরকে দ্বিনীয়া মাদ্রাসার শিক্ষায় শিক্ষিত করার জোড় আহ্বান জানান।
মাহফিলে আলোচনা করেন- হযরত পীর ছাহেব কেবলার বড় ছাহেবজাদা ও বাংলাদেশ জমইয়তে হিযবুল্লাহর সিনিয়র নায়েবে আমীর আলহাজ্ব হযরত মাওলানা শাহ আবু নছর নেছারুদ্দীন আহমদ হুসাইন, বাংলাদেশ জমইয়তে হিযবুল্লাহর নায়েবে নাজেমে আ’লা ও বরিশাল বিভাগীয় সমন্বয় কমিটির আহবায়ক আলহাজ্ব মাওলানা মির্জা নূরুর রহমান বেগ, ছারছীনা দারুচ্ছুন্নাত আলিয়া মাদ্রসার মুহাদ্দিস মাওলানা রুহুল আমিন আফসারী, বাংলাদেশ জমইয়তে হিযবুল্লাহর মুবাল্লিগ মাওলানা হেমায়েত বিন তৈয়্যেব।
মাহফিলে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ছারছীনা দারুচ্ছুন্নাত আলিয়া মাদ্রসার সাবেক উপাধ্যক্ষ মুফতিয়ে আজম মাওলানা মোস্তফা হামিদী, হযরত পীর ছাহেব কেবলার ছোট ছাহেবজাদা আলহাজ্ব শাহ আবু বকর মোহাম্মদ ছালেহ নেছারুল্লাহ সহ স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, সাংবাদিকবৃন্দ প্রমূখ।
পরিশেষে হযরত পীর ছাহেব কেবলা মাহফিলে আগত হাজার হাজার ভক্ত মুরীদানদেরকে স্ব-স্ব এলাকায় দ্বিনীয়া মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠা ও সন্তানদেরকে দ্বিনীয়া মাদ্রাসার শিক্ষায় শিক্ষিত করার জোড় আহ্বান জানিয়ে এবং দেশ, জাতি ও মুসলিম উম্মাহর সার্বিক কল্যাণ কামনা করে আখেরী মুনাজাত পরিচালনা করেন। খবর বিজ্ঞপ্তির