সাবেক মেয়র হিরনের মৃত্যু বার্ষিকী পালনে চলছে প্রস্তুতি

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ দেখতে দেখতে কেটে গেলো সিটির সাবেক সফল মেয়র প্রয়াত এমপি শওকত হোসেন হিরণ’র মৃত্যুর একটি বছর। আগামী ৯ এপ্রিল আধুনিক নগরীর রূপকার ও শান্তিপ্রিয় এই নেতার প্রথম মৃত্যু বার্ষিকী। দীর্ঘ ১৭ দিন দেশে এবং দেশের বাইরে বিভিন্ন হাসপাতালে লাইফ সাপোর্টে থেকে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে ২০১৪ সালের এই দিনটিতে মৃত্যুকে আলিঙ্গন করে দুনিয়ার মায়া কাটিয়ে চির বিদায় নিতে হয় তাকে। প্রিয় এই নেতাকে হারিয়ে বরিশালে নেমে এসেছিলো বিশাদের ছায়া। শোকে ম্যুহমান হয়ছিলো গোটা নগরী। প্রিয় নেতাকে হারানোর শেই শোক আদৌ ভুলতে পারেনি নগরবাসী। প্রতিটি ক্ষেত্রে হিরনের স্মৃতি শোকাহত ও ব্যথিত করে তুলছে তাদের।
তাই প্রিয় এই নেতা শওকত হোসেন হিরণ’র প্রথম মৃত্যু বার্ষিকীকে ঘিরে নগর জুড়ে চলছে মৃত্যু বার্ষিকী পালনে নানা প্রস্তুতি। প্রয়াতের প্রিয় সংগঠন এবং হাতে গড়া কমিটি মহানগর আওয়ামীলীগ এবং তার পরিবার ছাড়াও বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক, রাজনৈতিক ও প্রতিষ্ঠানে ইতোমধ্যে গ্রহন করা হয়েছে নানা কর্মসূচী।
এর পাশাপাশি মৃত্যু বার্ষিকী’র ৭ দিন বাকি থাকলেও নগরীর প্রান কেন্দ্র সদর রোড সহ শহরের বিভিন্ন এলাকায় ছেয়ে গেছে ব্যানার, পোষ্টার আর বিশাল আকৃতির বিল বোর্ডে। এসব বিলবোর্ড গুলোতে শোভা পেয়েছে সাবেক মেয়র শওকত হোসেন হিরণ’র নানা উন্নয়ন মূলক কর্মকান্ডের চিত্র ও প্রয়াতের স্মৃতি বিজড়িত নানা ছবি।
বরিশাল মহানগর আওয়ামীলীগ নেতা ও জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সম্পাদক এ্যাড. লস্কর নূরুল হক পরিবর্তনকে জানান, সাবেক সফল মেয়র প্রয়াত এমপি শওকত হোসেন হিরণ বরিশাল আওয়ামীলীগের উন্নয়নে অনেক অবদান রেখেছিলেন। বরিশাল নগরীকে একটি ভিন্নধর্মী উন্নত নগরী হিসেবে গড়ে তুলতে তার অবদান ভোলার মত নয়। তাই তার প্রথম মৃত্যু বার্ষিকী যথাযোগ্য মর্যাদায় পালনের লক্ষে নগরবাসীর পক্ষ থেকে বরিশাল মহানগর আওয়ামীলীগের পক্ষ থেকে দুই দিন ব্যাপী নানা কর্মসূচি গ্রহন করা হয়েছে। কর্মসূচির অংশ হিসেবে ৯ এপ্রিল মৃত্যু বার্ষিকীর দিন ভোর ৬টায় সদর রোড শহীদ সোহেল চত্ত্বর সংলগ্ন আওয়ামীলী লীগের দলীয় কার্যালয়ে কালোপতাকা উত্তোলন এবং দলীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখা হবে। এর পরপরই মহানগর ও তাদের আওতাভুক্ত ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীদের শোকের প্রতীক কালো ব্যাচ ধারন, সকাল ৯টায় মুসলিম গোরস্থানে মরহুমের কবর জিয়ারত ও ফুলেল শ্রদ্ধা নিবেদন। পাশাপাশি সকাল থেকে দিন ব্যাপী দলীয় কার্যালয়ে কোরআন তেলাওয়াত অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া বাদ মাগরিব শহীদ সোহেল চত্ত্বরে মরহুমের রুহের মাগফেরাত কামনায় অনুষ্ঠিত হবে মিলাদ ও দোয়া-মোনাজাত।
এ্যাড. লস্কর নূরুল হক জানান, দলীয় কার্যালয় ছাড়াও নগরীর ৩০টি ওয়ার্ডের প্রতিটি ওয়ার্ডে ৯ এপ্রিল তিন বার কোরআন খতম ও বাদ আসর ওয়ার্ড পর্যায়ে মসজিদে মসজিদে মিলাদ ও দোয়া- মোনাজাতের আয়োজন করা হয়েছে। এছাড়া ১০ এপ্রিল শুক্রবার জুমা’র নামাজ শেষে প্রয়াত শওকত হোসেন হিরণ’র রুহের মাগফেরাত কামনায় দোয়া-মোনাজাত করা হবে। এর পাশাপাশি মরহুমের পারিবারিক ভাবেও মৃত্যু বার্ষিকী পালনে মিলাদ ও দোয়া-মোনাজাত’র আয়োজন করেছেন প্রয়াতের সহধর্মীনি বরিশাল সদর আসনের সাংসদ জেবুন্নেছা আফরোজ।
এদিকে দলীয় কর্মসূচি ছাড়াও প্রিয় নেতার প্রথম মৃত্যু বার্ষিকী যথাযোগ্য মর্যাদার সাথে পালনের লক্ষে নানামুখি কর্মসূচি গ্রহন করেছে বরিশাল নগরী এবং সদর উপজেলার বিভিন্ন সামাজিক ও মালিকানাধিন প্রতিষ্ঠান কর্তৃপক্ষ। এর মধ্যে বরিশাল ক্লাবে আয়োজন করা হয়েছে স্মরন সভা ও দোয়া-মোনাজাত, বান্দ রোডের প্লানেট পার্কে আয়োজন করা হয়েছে মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে নানা কর্মসূচি। এছাড়াও যেসব প্রতিষ্ঠানের সাথে তার সংশ্লিষ্টতা ছিলো সেইসব প্রতিষ্ঠান গুলোতেও তাদের প্রিয় নেতা ও সাবেক সফল মেয়র’র মৃত্যু বার্ষিকী পালনে মিলাদ, দোয়া-মোনাজাত এবং শোক সভা সহ নানা কর্মসূচির আয়োজন করেছেন।