সাদিক আবদুল্লাহ পরিচয়ে মুঠোফোনে চাঁদা দাবীর অভিযোগে জিডি

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ মহানগর আ’লীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ’র পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতা ও সরকারি কর্মকর্তাদের কাছে মুঠোফোনের মাধ্যমে চাঁদা দাবীর অভিযোগ পাওয়া গেছে। এই ঘটনায় কোতয়ালী মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করেছেন সাদিক আবদুল্লাহ। গত ১৯ নভেম্বর দায়ের হওয়া ডায়েরী নম্বর- ১১৫৯। জনপ্রিয়তায় ঈর্ষান্বিত হয়ে রাজনৈতিক ভাবে হেয় প্রতিপন্ন করার লক্ষেই কোন একটি কু-চক্রি মহল এমন ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে বলে দাবী করেছেন মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ। গতকাল বুধবার সাদিক আবদুল্লাহ স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এমনটি দাবী করেছেন তিনি।
বিজ্ঞপ্তিতে তিনি উল্লেখ করেছেন, বাংলাদেশের একটি ঐতিহ্যবাহী রাজনৈতিক পরিবারে আমার জন্ম। মানুষকে ভালোবাসার আনন্দ আমি পিতা’র কাছ থেকে শিখেছি। সাধারন মানুষকে ভালোবাসার তাগিদেই ছোট বেলা থেকেই আমি রাজনীতির সঙ্গে জড়িয়ে রয়েছি। আমি আদর্শ এবং জন্মগত ভাবেই বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সঙ্গে জড়িত। বর্তমানে আমি মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক’র দায়িত্বে রয়েছি। মহানগর ও জেলা আওয়ামী লীগের রাজনীতি শক্তিশালী করার জন্য দীর্ঘদিন যাবৎ নিরলসভাবে কাজ করে আসছি। এরই ফলশ্রুতিতে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ বরিশাল মহানগর অতীতের যে কোন সময়ের চেয়ে অনেক শক্তিশালী সাংগঠনিক অবস্থানে রয়েছে। আমি আল্লাহ’র রহমতে আমার বাবা আলহাজ্ব আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ-এমপি’র আদর্শ অনুসরণ করে দলীয় নেতা কর্মীসহ সাধারণ মানুষের ভালবাসা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছি। আমার জনপ্রিয়তায় ঈর্ষান্বিত হয়ে একটি কু-চক্রী মহল আমাকে রাজনৈতিক ভাবে হেয় প্রতিপন্ন করার অসৎ উদ্দেশ্যে অতিসম্প্রতি বরিশাল সহ দেশের বেশকিছু দলীয় নেতা-কর্মী এমনকি সরকারী কর্মকর্তা-কর্মচারীর নিকট বিভিন্ন মোবাইল নাম্বার দিয়ে ফোন করে সাদিক আবদুল্লাহ পরিচয় দিয়ে টাকা দাবী করছে। যার ফলে আমার সুনাম ক্ষুন্ন হচ্ছে এবং সম্মানিত ব্যক্তিবর্গ বিভ্রান্তি এবং প্রতারনার শিকার হচ্ছেন। বিষয়টি আমার নজরে আসার সাথে সাথেই আমি ঐসব অপরাধী এবং কুচক্রী মহলের মুখোশ উম্মোচন করে তাদের বিরুদ্ধে কটোর আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য কোতয়ালী মডেল থানায় সাধারন ডায়েরী করেছি।
প্রেসবিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে সাধারণ জনগন, দলীয় নেতা-কর্মী ও সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সচেতন হওয়ার আহ্বান জানিয়ে সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ বলেন, ভবিষ্যতে আমার নাম ব্যবহার করে কোন ব্যক্তি কারোর নিকট টাকা দাবী করে বা কোন ধরনের বে-আইনী ও নীতি বিরোধী প্রস্তাব দেয় তাৎক্ষনিক ভাবে সরাসরি আমার সাথে যোগাযোগ কিংবা মোবাইল ফোনের যোগাযোগ করে বিভ্রান্ত ও প্রতারনা থেকে মুক্ত থাকার পরামর্শ দিয়েছেন। এর পাশাপাশি সাদিক আবদুল্লাহ এবং তার পরিবারের সুনাম নষ্ট করতে যারা এমন কর্মকান্ড ঘটাচ্ছে তাদের অতিসত্যর গ্রেপ্তার করে দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির জন্য আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর নিকট দাবী জানিয়েছেন তিনি।