সাংস্কৃতিক সংগঠন সমন্বয় পরিষদের তিন দশক পূর্তি উৎসব শুরু আজ

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ বরিশালের ২৭টি সংগঠনের জোট সাংস্কৃতিক সংগঠন সমন্বয় পরিষদের তিন দশক পূর্তি উৎসব উপলক্ষ্যে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে নগরীর শব্দাবলী স্টুডিও থিয়েটার মিলনায়তনে এই সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সংবাদ সম্মেলনে অনুষ্ঠান সম্পর্কে নানা তথ্যাদি তুলে ধরেন সংগঠনের সাধারন সম্পাদক মিজানুর রহমান। তিনি জানান এই উৎসবকে কেন্দ্র করে আজ ১ মার্চ শুরু হয়ে ৭ মার্চ পর্যন্ত বরিশালের চারটি ভ্যানুতে বর্নাঢ্য নানা আয়োজন করেছে সমন্বয় পরিষদ। তিন দশকের সংগ্রাম-এগিয়ে চলা অবিরাম এ শ্লোগানে স্বাধীনতার মাসের প্রথম দিনে নগরীর অশ্বিনী কুমার হলে এ পূর্তি উৎসবের উদ্বোধন করবেন সংস্কৃতিজন সাহান আরা বেগম। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি থাকবেন নৌ পরিবহন মন্ত্রী শাহাজান খান এমপি। প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত থাকবেন মঞ্চ সারথী আতাউর রহমান। পরে আনন্দ শোভাযাত্রা, নৃত্য, চরণ কবি মুকুন্দ দাসের গান পরিবেশিত হবে। ২ মার্চ অশ্বিনী কুমার হলে নাটক ও বিজয় বিহঙ্গ চত্ত্বরে আলোচনা সভা, আবৃত্তি, সংগীত, নৃত্য ও নাটক মঞ্চায়িত হবে। ৩ মার্চ অশ্বিনী কুমার হলে কর্মী সম্মিলনী, নাটক ও পলাশপুরে আলোচনা সভা, আবৃত্তি, সংগীত, নৃত্য ও নাটক মঞ্চায়িত হবে। ৪ মার্চ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে লাঠি খেলা, আলোচনা সভা, আবৃত্তি, সংগীত, নৃত্য ও যাত্রাপালা দেবী সুলতানা মঞ্চায়িত হবে। ৫ মার্চ অশ্বিনী কুমার হলে নাটক ও কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে আলোচনা সভা, আবৃত্তি, সংগীত, নৃত্য ও কুষ্টিয়ার লালন একাডেমীর পরিবেশনায় লালনগীতি পরিবেশিত হবে। ৬ মার্চ অশ্বিনী কুমার হলে নাটক ও কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে আলোচনা সভা, আবৃত্তি, সংগীত, নৃত্য ও কাজল রেখা বয়াতী ও তার দলের পরিবেশনায় জারী গান পরিবেশিত হবে। এ ছাড়া ৭ মার্চ সমাপনী অনুষ্ঠানের দিনে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে আলোচনা সভা, সম্মাননা প্রদান, আবৃত্তি, সংগীত, নৃত্য ও চাপাইনবাবগঞ্জের রসকস এর পরিবেশনায় গম্ভীরা গান পরিবেশিত হবে। ৪ মার্চ থেকে ৭ মার্চ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে চারুকলা প্রদর্শনী হবে। বর্নাঢ্য এ আয়োজনে সকলের উপস্থিতি কামনা করেছেন সংগঠনের নেতৃবৃন্দরা। এদিকে সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বরিশাল সাংস্কৃতিক সংগঠন সমন্বয় পরিষদের সভাপতি এ্যাড. এসএম ইকবাল, মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ, নাট্যজন সৈয়দ দুলাল, সংস্কৃতিজন কাজল ঘোষ, শুভংকর চক্রবর্তীসহ সংগঠনের অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।