সাংবাদিক নির্যাতনকারী পুলিশের শাস্তি দাবিতে মানববন্ধন

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ প্রথম আলো’র বাউফল প্রতিনিধি এবিএম মিজানুর রহমানকে নির্যাতনকারী পুলিশের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেছে বরিশালের সাংবাদিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতা-কর্মীরা। একই সঙ্গে মিজানের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলা প্রত্যাহারের দাবিও করা হয়।
গতকাল সোমবার বিকেল সোয়া চারটায় নগরের অশ্বিনী কুমার হল চত্বরে বরিশাল প্রেসক্লাব ও প্রথম আলো বন্ধুসভার আয়োজনে অনুষ্ঠিত প্রতিবাদী মানববন্ধন কর্মসূচি থেকে ওই দাবি করা হয়।
সুশাসনের জন্য নাগরিক বরিশাল জেলা সভাপতি আক্কাস হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত প্রতিবাদী মানববন্ধন কর্মসূচিতে একাত্মতা প্রকাশ করেন কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতা সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ। বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশানের সভাপতি ম-লীর সদস্য নাট্যজন সৈয়দ দুলাল, মুক্তিযোদ্ধা নূরুল আলম ফরিদ, বরিশালের ২৭টি সংগঠনের জোট বরিশাল সাংস্কৃতিক সংগঠন সমন্বয় পরিষদের সভাপতি শান্তি দাস, বরিশাল প্রেসক্লাবের সভাপতি কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল, সাধারণ সম্পাদক পুলক চ্যাটার্জী, ইন্ডিপেন্ডণ্ট টেলিভিশনের প্রতিনিধি মুরাদ আহম্মেদ, দৈনিক যুগান্তরের ব্যুরো প্রধান আকতার ফারুক শাহীন, এটিএন বাংলার হুমায়ুন কবির, দৈনিক পরিবর্তনের সম্পাদক কাজী মিরাজ, উদীচী বরিশালের সাবেক সভাপতি কাজল ঘোষ, সময় টেলিভিশনের ফিরদাউস সোহাগ, বরিশাল থিয়েটারের সভাপতি শুভংকর চক্রবর্তী, প্রথম আলো বন্ধু সভার সভাপতি আশিক ইসলাম প্রমূখ।
প্রতিবাদী কর্মসূচিতে বক্তারা বলেন, একজন সংবাদকর্মীর ওপর পুলিশি নির্যাতন মেনে নেওয়া যায় না। পুলিশ বর্তমানে দলীয় নেতাদের লেজুরবৃত্তি করছে। পুলিশকে রাজনৈতিক দলের হয়ে কাজ না করে সাধারণ মানুষের পক্ষে কাজ করার জন্য আহ্বান জানানো হয়। অবিলম্বে বাউফল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নরেশ কর্মকার এবং অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সদর সার্কেলসহ দায়ী পুলিশ সদস্যদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য উপ-বিভাগীয় পুলিশ কর্মকর্তার প্রতি আহ্বান জানানো হয়। দায়ি পুলিশ সদস্যদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নিলে আগামীতে সর্বস্তরের নাগরিকদের নিয়ে কঠোর কর্মসূচি ঘোষণারও হুঁশিয়ারী দেওয়া হয় কর্মসূচি থেকে।