সরকারী জমির ১০ লাখ টাকার মাটি ঠিকাদারী কাজে খাটাচ্ছেন বাবুগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ বাবুগঞ্জের রহমতপুর চাদমারী টিলার (সরকারী জমির) প্রায় ১০ লাখ টাকার মাটি স্কাভেটার দিয়ে কেটে  নেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে বাবুগঞ্জে উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আ’লীগের সাধারন সম্পাদক সরদার খালেদ হোসেন স্বপনের বিরুদ্ধে। ওই মাটি ফেলা হচ্ছে তার ঠিকাদারী কাজের  জমিতে। স্থানীয়রা অভিযোগ করেন, রহমতপুর কৃষি গবেষনার বীজ ভান্ডারের সামনের মাঠ ভরাটের ১৩ লক্ষ টাকার কাজ পান বরিশালের এক ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান । তবে ওই মাটি ভরাটের কাজ ক্ষমতার জোরে বাগিয়ে নেন উপজেলা চেয়ারম্যান ও তার ক্যাডার বাহীনি । এরপর চাদমারী টিলার মাটি স্কাভেটার দিয়ে কেটে নিয়ে তার ঠিকাদারী কাজের জায়গা কৃষি গবেষনার বীজ ভান্ডারের সামনের মাঠ ভরাট করছে। এ কাজের তদারকির করছেন চেয়াম্যানের ক্যাডার ছাত্রলীগ নেতা কাজী ইয়াছিন আরাফাত সোহেল, প্রসঞ্জিৎ দাস অপু, শ্রমিক লীগ নেতা সাইদুল ইসলাম, মিন্টু  সহ আরো অনেকে। তাদের ভয়ে স্থানীয়রা মুখ খুলতে সাহস পাচ্ছে না। ওই টিলার ৮৪ শতাংশ জমির ডিসি আর ভূক্ত মালিক নাসির বিশ্বাস, মাহাবুব বিশ্বাস, মামুন বিশ্বাস । তারা বিষয়টি  উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আফরোজা বেগম পারুল ও এসিল্যান্ড মোঃ আশরাফুল ইসলামকে অবহিত করলেও তারা কোন পদক্ষেপ নেয়নি বলে অভিযোগ করেন ডিসি আর ভূক্ত মালিকরা ।