সমাপনীতে দেশ সেরা বরিশাল

ওয়াহিদ রাসেল ॥ প্রাথমিক স্কুল সার্টিফিকেট পরীক্ষায় (পিএসসি) দেশের ৭ বিভাগের মধ্যে প্রথম হয়েছে বরিশাল বিভাগ। এই বিভাগে পাশের হার শতকরা ৯৬ দশমিক ২২ ভাগ। পিএসসির ফলাফলেও পাশের হারে এগিয়ে রয়েছে মেয়েরা। এমনকি জিপিএ’র দিক থেকেও মেয়েরা এগিয়ে আছে।
প্রাথমিক শিক্ষা বরিশাল বিভাগীয় কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, বরিশাল বিভাগের মধ্যে ৯৮ দশমিক ২৮ ভাগ নিয়ে পাশের হারের দিক থেকে প্রথম স্থানে রয়েছে পিরোজপুর জেলা। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে বরগুনা জেলা। এ জেলায় পাশের হার শতকরা ৯৮ দশমিক ১০ ভাগ। পিএসসিতেও তৃতীয় স্থানে রয়েছে বরিশাল জেলা। এই জেলায় পাশের হার ৯৭ দশমিক ১৭ ভাগ। চতুর্থ স্থানে থাকা পটুয়াখালী জেলায় পাশের হার ৯৪ দশমিক ৮২ ভাগ, ভোলায় পাশের হার ৯৬ দশমিক ৭২ ভাগ। তাছাড়া পিএসসিতেও সর্বনি¤œ ৮৭ দশমিক ৮৮ ভাগ পাশ করে তালিকার সর্বশেষ অবস্থানে রয়েছে।
এদিকে বরিশাল জেলায় পাশের হার শতকরা ৯৭ দশমিক ২০ ভাগ। তাছাড়া অন্যা পরীক্ষার ন্যায় পিএসসি এবং ইবতেদায়ি পরীক্ষার ফলাফলে ছেলেদের তুলনায় মেয়েরা এগিয়ে আছে। জিপিএ-৫ এর দিক থেকেও এগিয়ে মেয়েরা।
ঘোষিত ফলাফলের পরিসংখ্যান অনুযায়ী পিএসসিতে বরিশাল জেলায় পাশের হার শতকরা ৯৭ দশমিক ২০ ভাগ ও ইবতেদায়ী শিক্ষায় শতকরা ৮৯ দশমিক ৯৮ ভাগ। দুই বিভাগে মোট জিপিএ-৫ পেয়েছে ৩ হাজার ৪৭৩ জন। এর মধ্যে পিএসসিতে ৩ হাজার ৩৫৩ জন ও ইবতেদায়ীতে ১২০ জন। পিএসসি ও ইবতেদায়িতেও পাশের হার এবং জিপিএ-৫ এর দিক থেকে মেয়েরা এগিয়ে রয়েছে। তাছাড়া সারা দেশের মধ্যে বরিশাল বিভাগে পিএসসিতে পাশের হার শতকরা ৯৬ দশমিক ১২ ভাগ।
পিএসসিতে বরিশাল জেলায় মোট পাশ করেছে ৪৫ হাজার ৭২৮ জন। জিপিএ-৫ পেয়েছে ৩ হাজার ৩৫৩ জন। এর মধ্যে ১২৩৭ জন ছেলে এবং ২১১৬ জন মেয়ে জিপিএ-৫ পেয়েছে। তাছাড়া পাশ করা শিক্ষার্থীদের মধ্যে ছেলে ২০ হাজার ২১৯ এবং ২৫ হাজার ৭০৯ জন মেয়ে পাশ করেছে।
ইবতেদায়ীতে পাশ করেছে মোট ৩ হাজার ৭৬৩ জন। এর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ১২০ জন। যার মধ্যে ছেলে ৬৪ ও মেয়ে ৫৬ জন। তাছাড়া মোট পাশ করা শিক্ষার্থীদের মধ্যে ছেলে ২ হাজার ২৪৫ জন। এছাড়া মেয়ে পাশ করেছে ১ হাজার ৫১৮ জন। পরীক্ষায় মোট অংশগ্রহনকারীর সংখ্যা ছিলো ৪ হাজার ১৮২ জন। এর মধ্যে ছেলে ২ হাজার ৫৪৫ জন ও মেয়েদের সংখ্যা ১ হাজার ৬৩৭ জন। সে অনুযায়ী পাশের হারের দিক থেকে মেয়েরা এগিয়ে।
প্রাথমিক শিক্ষা বরিশাল বিভাগীয় শিক্ষা কর্মকর্তা উম্মে ছালমা লাইজু জানান, বিভাগে ১ লক্ষ ৬৭ হাজার ৬৭৪ জন পরীক্ষার্থী প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় অংশগ্রহন করেন। এদের মধ্যে এক লাখ ৫৫ হাজার ৭৩ জন পাশ করেছে। অকৃতকার্য হয়েছে ৬ হাজার ৯৯ জন ও অনুপস্থিত থাকে ৬ হাজার ৫০২ পরীক্ষার্থী। তিনি বলেন, আমাদের বিভাগে ফলাফল আশানুরুপ হয়েছে। তবে আমরা ভবিষ্যতে আরো ভালো ফলাফল প্রত্যাশী। আশা করি এই ফলাফলের ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকবে।