সন্তান হত্যায় স্ত্রীর বিরুদ্ধে আদালতে মামলা প্রবাসী স্বামীর

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ গৌরনদীতে পরকীয়া প্রেমে ছেলেকে হত্যার অভিযোগে পুলিশকে এজাহার গ্রহনের নির্দেশ দিয়েছে আদালত। গত সোমবার মৃত পনিরের পিতা প্রবাসী জালাল সিকদারের নালিশি অভিযোগে গতকাল শুনানির তারিখে অতিরিক্ত মূখ্য বিচার বিভাগীয় হাকিম মোঃ জাহিদুল কবির ওই আদেশ দেন। নালিশির অভিযুক্তরা হলো মোঃ জালাল সিকদারের স্ত্রী ও পনিরের মা পারভিন বেগম এবং পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি ২এর লাইনম্যান মোঃ রাসেল। জালাল সিকাদার নালিশিতে উল্লেখ করেন তিনি দীর্ঘদিন বিদেশে ছিলেন। সেই সুযোগে তার স্ত্রী পারভিন বেগম লাইনম্যান রাসেলের সাথে পরকিয়া প্রেমে জড়িয়ে পড়ে এবং অবৈধ সম্পর্ক গড়ে তোলে। এ সময় তার ছেলে পনিরের কাছে ধরা পড়লে পনির রাসেলকে তাদের বাড়ী আসতে নিষেধ করে। এরপরও রাসেল পূনরায় ওই বাড়িতে গিয়ে অবৈধ কার্যক্রম করে। এ ঘটনায় পনির বাধা দিলে পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী গত ৩০ এপ্রিল পারভিন বেগম রাতের খাবারের সাথে বিষ মিশিয়ে ছেলে পনিরকে খাওয়ায়। এতে পনির অসুস্থ হয়ে পড়লে প্রথমে গৌরনদী ও পরে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে নিয়ে আসার পথে পনিরের মৃত্যু হয়। এর প্রেক্ষিতে  থানায় পারভিন বেগম সমস্ত ঘটনা গোপন রেখে ১টি অপমৃত্যুর মামলা করে। পরবর্তীতে জালাল ছেলের মৃত্যুর সংবাদ পেয়ে দেশে এসে সমস্ত ঘটনা জানতে পারে। এর কিছুদিন পরেই পারভিন বেগম স্বর্ণালংকার সহ টাকা পয়সা নিয়ে রাসেলের সাথে পালিয়ে যায়। পরে তাকে আটক করা হয়। এর ধারাবাহিকতায় গতকাল শুনানির তারিখে বিচারক ওই আদেশ দেন।