শেবাচিমে হামলায় ত্রুটিপূর্ন এজাহারে মামলা হয়নি

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে দায়িত্বরত নার্সদের উপর হামলার ঘটনায় দেয় এজাহার ত্রুটিপূর্ন থাকায় ফেরত পাঠিয়েছে কোতয়ালী মডেল থানা। গতকাল বুধবার মামলা করার জন্য থানায় এজাহার পাঠায় হাসপাতাল পরিচালক ডা. মু. কামরুল হাসান সেলিম।
পুলিশ জানিয়েছে, হাসপাতাল পরিচালকের পাঠানো এজাহার মামলা হিসেবে রুজু করা সম্ভব হয়নি। তাই মামলা করার জন্য পাঠানো এজাহার সংশোধন করে পাঠানো হয়েছে। সংশোধিত এজাহার এসে পৌছুলে মামলা হিসেবে রুজু করা হবে। এদিকে, হামলার ঘটনায় আটক তিনজনকে ৫৪ ধারায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।
শেবাচিম হাসপাতালের সিনিয়র স্টাফ নার্স ও নার্সেস এ্যাসোসিয়েশনের সহ-সভাপতি আনোয়ার হোসেন জানান, গত মঙ্গলবার বিকালে ১০ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিল জয়নাল আবেদীন এর কেডিসি এলাকার মাদক ব্যবসায়ী বাহিনী জরুরী বিভাগে কর্মরত সিনিয়র স্টাফ নার্স ও নার্সেস এসোসিয়েশনের সাংগঠনিক সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান সহ ৩ জনের উপর হামলা চলায়। এই ঘটনায় গতকাল বুধবার তারা পরিচালকের নিকট শাস্তির দাবীতে একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। অভিযোগের প্রেক্ষিতে পরিচালক মামলা দায়েরের জন্য একটি এজাহার কোতয়ালী মডেল থানায় পাঠায়।
ওসি শাখাওয়াত হোসেন পরিচালকের প্রেরিত এজাহার পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, মামলা করতে হলে যার উপর হামলা করা হয়েছে এবং সে বা নার্সদের পক্ষ থেকে মামলা করতে হবে। বিষয়টি পরিচালককে জানানো হয়েছে। এজাহার আবেদন ঠিক করে পাঠানো হলে মামলা গ্রহন করা হবে বলে জানান ওসি।
এদিকে নার্সরা অভিযোগ করে বলেন, ১০ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর জয়নাল আবেদীন এখনো সমঝোতার মাধ্যমে আটককৃত মাদক ব্যবসায়ী হামলাকারীদের ছাড়িয়ে নিতে দৌড় ঝাপ চালাচ্ছে। তিনি গতকাল বুধবার ১১ নম্বর ওয়ার্ডের দুই কাউন্সিলরকে সাথে নিয়ে সমঝোতার জন্য পরিচালক এর সাথে যোগাযোগ করেছেন। তবে পরিচালক বিষয়টি সম্পূর্ণ ভাবে নার্সদের সিদ্ধান্তের উপর ছেড়ে দিয়েছেন বলে প্রশাসনিক বিভাগের সূত্র নিশ্চিত করেছেন। তবে নার্স নেতৃবৃন্দের সাথে আলাপকালে তারা জানিয়েছেন, তাদের সহকর্মীর উপর হামলার ঘটনায় বিচার চান।
উল্লেখ্য, গত মঙ্গলবার বিকালে শেবাচিম হাসপাতালের সিসিইউতে কেডিসি এলাকার বাসিন্দা মাদক বেসী লিটন সরদার মারা যায়। এর পরপরই কেডিসি’র মাদক ব্যবসায়ী বাহিনী জরুরী বিভাগে হামলা ও ব্রাদার মোস্তাফিজুর রহমন সহ তিনজনকে পিটিয়ে আহত করে।