শিশু কন্যা তন্বী গনধর্ষন ও হত্যা মামলায় তিনজনকে অভিযুক্ত করে চার্জশীট দাখিল

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ নগরী নবগ্রাম রোডে দিনমজুরের শিশু কন্যা তন্নি গনধর্ষণ ও হত্যার অভিযোগে কিশোরসহ ৩ জনকে অভিযুক্ত করে পৃথক দুইটি চার্জশীট জমা দিয়েছে পুলিশ। একই সাথে এজাহারনামীয় ৩ আসাসীকে অব্যাহতির সুপারিশ করা হয়েছে। আদালতে উপস্থাপনের উদ্দেশ্যে সংশ্লিষ্ট থানার সরকারি নিবন্ধন কর্মকর্তা (জিআরও) প্রদীপ মিত্রের কাছে গতকাল বুধবার চার্জশীট জমা দেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা কোতয়ালী মডেল থানার এসআই মশিউর রহমান। অভিযুক্তরা হলো নগরীর নবগ্রাম রোড খান সড়কের মৃত আব্দুল আজিজ খানের ছেলে বাছেদ খান ওরফে বাঘা, মতিয়ার রহমানের ছেলে শাহরিয়া খান শাকিল ও উত্তর সাগরদীর বাসিন্দা আব্দুস সালাম হাওলাদারের ছেলে কিশোর ইমাম হোসেন হাওলাদার। এছাড়াও অব্যাহতির সুপারিশ প্রাপ্তরা হলো- একই এলাকার শহীদ হাওলাদার, সিএন্ডবি রোডের আব্দুর রাজ্জাক হাওলাদার ও পশ্চিম বগুড়া রোডের বাসিন্দা কামাল। শিশু কন্যা তন্বী (৯) নবগ্রাম রোডের ফজলে উলুম মাদ্রাসার নার্সারীর ছাত্রী ও একই এলাকার যুবক হাউজিং সংলগ্ন খালেক খানের ভাড়াটিয়া মো. টুনুর কন্যা। মামলা সুত্রে জানা গেছে, গত বছরের ১৮ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যা ৮ টায় তার বাবাকে খুজতে বের হয়। তখন অভিযুক্ত বাঘা, শাকিল ও ইমাম তন্নীকে অপহরন করে। পরে খান সড়কে শাকিলের পরিত্যক্ত ঘরে নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। গনধর্ষনের শিকার শিশু তন্নী গুরুতরভাবে অসুস্থ হয়ে পড়ে। তখন তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর লাশ গুম করার জন্য ডোবায় ফেলে রাখে। এ ঘটনায় জড়িত ইমামকে কিশোর অপরাধ আইনে অভিযুক্ত করে পৃথক চার্জশীট দেয়া হয়েছে। ঘটনার পর পরই তাকে পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে। পরে আদালতের মাধ্যমে তাকে কিশোর সংশোধন কেন্দ্রে পাঠানো হয়। পলাতক অপর দুই আসামীকে অভিযুক্ত করে অপর চার্জশীট জমা দেয়া হয়েছে।