শিশুর যতেœ বরিশালে বাবাদের অবদান শূন্য!

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ শিশু বেড়ে ওঠার ক্ষেত্রে বরিশালের বাবাদের অবদান শূন্য। সব অবদানই মায়েদের। বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর মাল্টিপল ইন্ডিকেটর ক্লাষ্টার সার্ভে রিপোর্টে উঠে এসেছে এমনই চিত্র। বরিশাল বিভাগের ছয় জেলার মধ্যে তিনটি জেলায় শিশুদের প্রতি বাবাদের বায়োলোজিক্যাল সাপোর্ট বলতে গেলে শূন্যের কোঠায়। তবে অন্য তিন জেলায় বাবারা কিছুটা হলেও শিশুদের বেড়ে ওঠার পেছনে অবদান রাখছেন। বিভাগের মধ্যে পটুয়াখালী জেলার বাবারা শিশুদের প্রতি একটু বেশি যতœবান বলে উঠে এসেছে বিবিএসের জরিপে। বায়োলজিক্যাল সাপোর্ট কি : আঞ্চলিক পরিসংখ্যান কর্মকর্তা লিজেন শাহ নঈম বলেন, শিশু জন্মের পর থেকে ২ বছর পর্যন্ত সে কোন ধরনের বুদ্ধি জ্ঞান সম্পন্ন হয়না। দু,বছর পর সে কিছুটা হলেও বুঝতে পারে। এখন নবজাতক থেকে শুরু করে ২ বছর পর্যন্ত শিশুর বিছানাপত্র কেমন হবে, ঘরে আলো বাতাস আছে কিনা, রুমটা পরিষ্কার কিনা এর সবকিছু সাধারনত মায়েরাই করে থাকেন। অথাৎ শিশু বেড়ে ওঠার ক্ষেত্রে বাবাদের অবদান বলতে গেলে শূণ্য। যদিও অন্যান্য বিভাগে মায়েদের পাশাপাশি বাবাও শিশু বেড়ে ওঠায় অনেকটা অবদান রাখছেন। বাবাদের অবদান কোথায় কেমন : বিভাগের মধ্যে বরিশাল ও পিরোজপুর জেলার কোন বাবাই তার শিশু সন্তানদের শারীরিক যতেœর কাজটি করেন না। নবজাতক থেকে শিশুটির বুদ্ধি জ্ঞান সম্পন্ন হওয়ার জন্য যে সাপোর্ট দরকার তার সবই মায়েরা করে থাকেন। আর ভোলা জেলায় মাত্র দশমিক ৫ ভাগ বাবা শিশু যতœ করে থাকেন। তবে পটুয়াখালী জেলার ১৩ দশমিক ৫ ভাগ বাবাই শিশুর প্রতি যতœবান। এর পরে রয়েছে বরগুনা জেলার অবস্থান। এখানে শতকরা ১২ দশমিক ৩ জন তাদের শিশু সন্তানদের শারীরিক যতœ নিয়ে থাকেন। আর ঝালকাঠী জেলায় শতকরা ১ দশমিক ৭ ভাগ বাবা তার সন্তানদের শারীরিক যতœ নেন। অপর দিকে বাংলাদেশের সাত বিভাগের মধ্যেও শিশু বেড়ে ওঠার ক্ষেত্রে যে যতেœর প্রয়োজন সেখান থেকে পিছিয়ে রয়েছেন বাবারা। জরিপ বলছে বরিশাল বিভাগে শতকরা ৪ ভাগ শিশু বাবার কাছ থেকে সহযোগিতা পান। বাবার কাছ থেকে শিশুরা সবচেয়ে বেশি সাপোর্ট পায় রংপুর বিভাগে। এখানে ২০ দশমিক ৬ ভাগ বাবাই তাদের শিশু সন্তানদের গোসল করানো, শৌচ কাজ, কক্ষ পরিষ্কার করা, শিশুর ঘরে আলো বাতাসের ব্যবস্থাসহ অধিকাংশ কাজ করেন বাবারা। এর পরে ঢাকার অবস্থান। এ বিভাগের ১০ দশমিক ২ ভাগ বাবা তার শিশু সন্তানদের দৈহিক সাপোর্ট দিয়ে থাকেন। চট্রগ্রামে ৯ দশমিক ১ ভাগ, খুলনায় ৮ দশমিক ৭ ভাগ, রাজশাহীতে ৬ দশমিক ৩ ভাগ এবং সিলেটে ৯ দশমিক শূন্য ভাগ বাবা তার সন্তানদের শারীরিক যতœ নেন। বরিশালের বাবারা কেন পিছিয়ে : শিশুর বেড়ে ওঠার ক্ষেত্রে বরিশাল বিভাগের বাবাদের অবদান কম কেন এমন প্রশ্নের জবাবে পরিসংখ্যান কর্মকর্তা লিজেন শাহ নঈম বলেন, বরিশালের বেশিরভাগ লোকরাই চাকুরীজীবী। আর এ কারনেই মূলত শিশুদের তারা সাপোর্ট দিতে পারেন না। অন্যান্য বিভাগে পুরুষ চাকুরীজীবী বরিশালের তুলনায় কম।