লালমোহনে স্বর্ণের মনসা মূর্তি ও গোপালের মূর্তি চুরি

মোঃ জসিম জনি, লালমোহন॥ লালমোহনে মন্দিরের তালা ভেঙে স্বর্ণের মনসা মূর্তি ও গোপালের মূর্তিসহ মন্দিরের মালামাল নিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা। শনিবার গভীর রাতে লালমোহন থানা সংলগ্ন শ্রীদাম কর্মকারের বাসায় এ ঘটনা ঘটে।
জানা গেছে, শ্রীদাম কর্মকারের বাসায় দীর্ঘ ৪৫ বছর যাবৎ মনসা মন্দির স্থাপন করে পূজা অর্চনা পালন করে আসছে ওই পরিবার। মন্দিরে প্রায় দেড়শ গ্রাম স্বর্ণ মিশ্রিত একটি মনসা মূর্তি, ২টি গোপালের মূর্তিসহ আরো কয়েকটি মূর্তি ছিল। শনিবার গভীর রাতে দুর্বৃত্তরা ওই মনসা মন্দিরে হানা দেয়। তারা মন্দিরের দরজার তালার কড়া ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করে মনসা মূর্তি, গোপালের মূর্তি, পিতলের হাতি, কাঁসার থালা বাসন, প্রদীপসহ বিভিন্ন মূল্যবান মালামাল নিয়ে যায়। সকালে বাড়ির লোকজন ঘুম থেকে উঠে মন্দিরের এ অবস্থা দেখে। খবর পেয়ে লালমোহন সার্কেলের পুলিশ সুপার মোঃ মাহফুজুর রহমান, লালমোহন পৌরসভার মেয়র এমদাদুল ইসলাম তুহিন, ওসি আকতারুজ্জামান, ওসি (তদন্ত) হুমায়ুন কবীর, পূজা উদযাপন কমিটির সভাপতি মনোরঞ্জন চন্দ জয়হিন্দ, কাউন্সিলর রঞ্জয় কুমার দাস ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।  এ ঘটনায় শ্রীদাম কর্মকারের ছেলে তারক কর্মকার বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছে। মামলা নং ২৫। চুরি যাওয়া মালামালের মূল্য ৫ লাখ টাকারও বেশি বলে মামলায় উল্লেখ করা হয়েছে।
ওসি (তদন্ত) হুমায়ুন কবীর জানান, মনসা মন্দিরে চুরির সংবাদ পেয়ে আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। কারা এ ঘটনা ঘটিয়েছে তা তদন্ত করে খুঁজে বের করা হবে। চুরি যাওয়া মূর্তি ও মালামাল উদ্ধারের জন্য প্রচেষ্টা চলছে।