লবন মিল মালিকানা নিয়ে দ্বন্দ্ব ঝালকাঠীতে প্রতিপক্ষের হামলায় ব্যবসায়ী সহ আহত-৩

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ ঝালকাঠীতে লবন মিলের মালিকাকানা নিয়ে বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষের হামলায় এক লবন ব্যবসায়ী ও তার ছেলে সহ ৩ জন আহত হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার বেলা ১২টার দিকে ঝালকাঠী বিসিক কার্যালয় চত্তরে এ সংঘর্ষ হয়।
এতে আহতরা হচ্ছেন – নূর সল্টের মালিক ফজলু মিয়া, তার ছেলে সোনা মিয়া এবং তাদের ব্যবস্থাপক অশোক ভট্টাচার্য্য। আহত তিনজনকে ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
জানা গেছে, লবন ব্যবসায়ী সালেক শরীফ ও ফজলু মিয়ার মধ্যে নুর সল্ট ফ্যাক্টরি ও শরীফ সল্ট ফ্যাক্টরি মালিকানা নিয়ে দীর্ঘদিন বিরোধ চলে আসছে। গতকাল সকালে জেলা বিসিক কর্মকর্তা অসীম কুমার ঘোষ উভয় ব্যবসায়ীকে তার অফিসে ডেকে মিল চালু এবং লবনে আয়োডিন মিশ্রনের বিষয়ে আলোচনা করেন। সেখানে দুই ব্যবসায়ীর মধ্যে তর্কাতর্কি হয়। বিসিক অফিস কক্ষ থেকে বের হলে লবন ব্যবসায়ী ছালেক শরীফের জামাতা ঝালকাঠীর ২শ ভরি স্বর্ণ ছিনতাই মামলার আসামী আবুল কালাম, ছেলে চিহিৃত সন্ত্রাসী জামালসহ তাদের ৮/১০ জন সহযোগী ব্যবসায়ী ফজলু মিয়াকে বেদম মারধর করে। খবর পেয়ে ফজলু মিয়ার ছেলে সোনা মিয়া ও তার প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপক অশোক ভট্টাচার্য্য ছুটে এলে সন্ত্রাসীরা তাদেরও কুপিয়ে ও পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করে।
ফজলু মিয়া জানান, তিনি দীর্ঘ ১১ বছর ধরে নুর সল্ট পরিচালনা করে আসছেন। হঠাৎ করে সালেক শরীফ নুর সল্টের মালিকানা দাবী করে প্রতিষ্ঠানের কারখানা তালাবদ্ধ করে দিয়েছেন। বিনা কারনে তাদের ওপর হামলা করেছে। অপরদিকে সালেক শরীফ স্থানীয় সাংবাদিকদের জানান, তিনি নুর সল্টের অন্যতম অংশিদার। যা নিয়ে আদালতে মামলা চলছে। কিন্ত ফজলু মিয়া একাই মালিকানা দাবী করছেন। এ ঘটনায় ঝালকাঠী সদর থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন ফজলু মিয়া।