র‌্যাবের সফল অভিযান হাজার বোতল ফেন্সিডিলসহ আটক-১

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ দেশের ৪৫ তম স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপনে সকলের ব্যস্ততার সুযোগ নিতে চেয়েছিলো মাদক ব্যবসায়ীরা। কিন্তু এই সুযোগ পুরোপুরি ব্যর্থ করেছেন র‌্যাবের ১নং কোম্পানীর চৌকষ কমান্ডার ক্যাপ্টেন আবুল বাসার। তার কৌশলী ভুমিকায় জাতীয় দিবসের নিরাপত্তায় ব্যস্ত সহযোদ্ধাদের নিয়ে মাদক উদ্ধারে বড় ধরনের সফলতাও এসেছে। কিন্তু সফলতা আনতে গিয়ে র‌্যাবের এক সদস্য আহত হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে অভিযানে ব্যবহৃত মাইক্রোবাস ও অটোরিক্সা। বৃহস্পতিবার তাদের ওই অভিযানে সহ¯্রাধিক ফেন্সিডিল বোঝাই প্রাইভেট কার ও চালক আটক হয়েছে। আটককৃত চালক মোঃ বাবলু মোড়ল (৩৫) বেনাপোল পোর্ট এলাকার মৃত দলিল উদ্দিন মোড়লের ছেলে। তবে নগরীর তরুন সমাজকে ধ্বংসের জন্য সীমান্তবর্তী এলাকা থেকে ওই ফেন্সিডিল নিয়ে আসা চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ীরা পালিয়ে গেছে। তারা হলো-সদর উপজেলার রায়পাশা-কড়াপুর এলাকার মঙ্গলহাটা গ্রামের মোঃ কোতল মিয়ার ছেলে মো. রুবেল (৩০) ও একই এলাকার মোঃ মালেক হাজীর ছেলে মো. দীন ইসলাম (৪২), কাউনিয়া বিসিক এলাকার মোঃ আব্দুল খালেকের ছেলে তাজ সোহেল (৩২) এবং কাউনিয়া বাগানবাড়ী এলাকার আব্দুর রশিদ হাওলাদারের ছেলে মোঃ রফিক হাওলাদার ওরফে বাশ রফিক (৩৫)।
কমান্ডার ক্যাপ্টেন আবুল বাশার জানান, অভিযানে এক রাউন্ড গুলিরও ব্যবহার করা হয়েছে। কারন হিসেবে বলেন, রাত আটটার দিকে নগরীর গোরাচাঁদ দাস রোডের সরকারী মহিলা কলেজের বেগম সুফিয়া কামাল ছাত্রীনিবাসের সামনে তিন রাস্তার মোড়ে তল্লাশি চৌকি স্থাপন করা হয়। এই সময় প্রাইভেটকার (ঢাকা মেট্রো খ-১১-০৭৪৭) ওই এলাকা অতিক্রমকালে থামানোর জন্য সংকেত দেয়া হয়। কিন্তু চালক সংকেত না মেনে গাড়ির গতি বাড়িয়ে পালানোর চেষ্টা করে। এসময় বিপরীত মুখি বিসিসি’র (লাইসেন্স নং- ৩৯২) একটি অটোরিক্সা এবং র‌্যাবের একটি মাইক্রোবাসকে ধাক্কা দেয়। এতে অটো রিক্সাটি উল্টে রাস্তার উপর পড়ে। অটোরিক্সার যাত্রীরা গুরুতর হয়। প্রাইভেট কার থামানোর চেষ্টা করতে গিয়ে ল্যান্স কর্পোরাল (এলপিসিএল) পাহলবি আহত হয়েছেন। এরপরে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে ফাঁকা গুলি করতে হয়।
পরে প্রাইভেটকার চালককে আটক করা হলেও পালিয়ে গেছে অরোহী মাদক ব্যবসায়ীরা। চালকের বেপরোয়া হওয়ার কারন সম্পর্কে সদুত্তর দিতে না পারলে প্রাইভেট কার তল্লাশী করা হয়। তখন কার থেকে ১ হাজার ফেন্সিডিল উদ্ধার করা হয়।
ক্যাপ্টেন বাশার জানান, জাতীয় কোন অনুষ্ঠান এলে মাদক ব্যবসায়ীরা সক্রিয় হয়ে ওঠে। স্বাধীনতা দিবসে তারা সক্রিয় হয়ে উঠবে এই আশংকায় নগরীতে র‌্যাবের টহল জোরদারের পাশাপাশি তল্লাশী চৌকিও স্থাপন করে সফলতা পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছেন তিনি।