রাজাপুরে এক ঘন্টা পর এক ঘণ্টা লোডশডেংি

রাজাপুর প্রতবিদেক ॥ রাজাপুরে গত এক সপ্তাহ ধরে পল্লী বদ্যিুতরে ভয়াবহ লোডশডেংি শুরু হয়ছে।ে ফলে প্রচন্ড প্রচন্ড গরমে স্কুল মাদ্রাসার হাজার হাজার শর্ক্ষিথীদরে লখোপড়া চরমভাবে বঘিœিত হচ্ছ।ে শশিুরা র্সদী-কাশসিহ বভিন্নি রোগে আক্রান্ত হচ্ছ।ে বার বার বদ্যিুৎ আসা যাওয়ায় বদ্যিুৎ চালতি যন্ত্রপাতি ক্ষতগ্রিস্থ হচ্ছ।ে কাজ করতে না পরেে রাইসমলি ও স’মলিরে মালকি-শ্রমকিরা চরমভাবে ক্ষুব্ধ হচ্ছ।ে জানা গছে,ে উপজলোর র্সবত্রই গত এক সপ্তাহ ধরে হঠাৎ করে দনিে রাতে এক ঘণ্টা পর এক ঘণ্টা করে ২৪ ঘণ্টায় এক এক ফডিে প্রায় ১০ ঘণ্টা করে দুই ফডিে প্রায় ২০ ঘণ্টার মত পল্লী বদ্যিুৎ লোডশডেংি দচ্ছি।ে তবে এতো লোডশডেংি দয়িওে তা মানতে না রাজ পল্লী বদ্যিুতরে র্কমচাররিা। আগামি ১লা মে মাস থকেে উপজলোর সকল স্কুল মাদ্রাসায় র্অধর্বাষকিী পরীক্ষা শুরু হতে যাচ্ছ।ে এসকল প্রতষ্ঠিানরে হাজার হাজার শক্ষর্িাথীদরে সন্ধার পরে লখো পড়ায় চরম বঘিœ ঘটছ।ে রাতরে বলোয় বদ্যিুত না থাকায় প্রচন্ড গরমে শশিুসহ লোকজন ঘুমাতে না পরেে র্সদী কাশি ও মাথাব্যাথাসহ বভিন্নি রোগে আক্রান্ত হচ্ছ।ে দনিে রাতে বারবার লোডশডেংি দয়োয় বদ্যিুত চালতি যন্ত্রপাতি নষ্ট হয়ে যাচ্ছ।ে উপজলোয় প্রায় দু’শতাধকি স’মলি ও রাইস মলিসহ বভিন্নি কলকারখানা রয়ছে।ে এর সংশ্লষ্টি শহ¯্রাধকি শ্রমকি মালকি ঠকিমত কাজ করতে না পরেে চরমভাবে ক্ষুব্ধ হচ্ছ।ে ভুক্ত ভোগরিা অভযিোগ করে বলনে, গত এক সপ্তাহে দশেরে কোথাও কোন বদ্যিুৎ উৎপাদন কন্দ্রেে বর্পিযায় ঘটনে।ি কন্তিু হঠাৎ পল্লী বদ্যিুতরে র্কমর্কতারা কৃত্রমিভাবে এ লোডশডেংি সৃষ্টি করছেে বলে ধারনা করা হচ্ছ।ে উপজলোর প্রায় বশি সহ¯্রাধকি পল্লীবদ্যিুৎ গ্রাহক লোডশডেংি এর চরম ভলেকবিাজরি হাত থকেে বাঁচতে চায়। এক সমীক্ষায় উঠে এসছেে উপজলো সদররে লোডশডেংি এর ভয়াবহ চত্রি। গত ২৮ মে থকেে ২৯ ম’ের রাত র্পযন্ত লোডশডেংিয়রে চত্রি ছলি এরকম- গত ২৮ মে বৃহস্পতবিার রাত ৮টা ৩০ম.ি থকেে ৯টা ২০ম,ি ১০টা ২০ম.ি থকেে ১১টা ২০ম,ি ১১টা ৪০ম.ি থকেে ১২টা ৪০ম,ি রাতে ঘুমানোর পরে একাধকি বার, ২৯ মে শুক্রবার সকাল ৭টা ৫৭ম.ি থকেে ৮টা ১০ম,ি ৯টা ৪০ম.ি থকেে ৯টা ৫৫ম,ি দুপুর ২টা ২৫ম.ি থকেে ২টা ৩৪ম,ি বকিাল ৪টা থকেে ৫টা ৩৫ম,ি রাত ৯টা ০৫ম.ি থকেে ১০টা ০৫ম,ি রাত ১১টা ৪২ম.ি থকেে ১২টা র্পয়ন্ত এবং রাতে ঘুমানোর পর একাধকি বার লোডশডেংি দয়ো হয়ছে।ে শুক্রবার ছাড়া এর মাত্রা আরো বাড়য়িে দয়ো হয়। সদরে যখন লোডশডে তখন গ্রামরে ফডিে বদ্যিুৎ থাকে আবার শহরে দলিে গ্রামে লোডশডেংি। এ অনুযায়ী ২৪ ঘণ্টায় দুই ফডিে ২০ ঘন্টার মত লোডশডেংি ভোগ করতে হচ্ছে রাজাপুরবাসীব।ে আবার রাজাপুররে লাইন থকেে ঝালকাঠরি শখেরেহাটসহ কছিু অংশে বদ্যিুৎ সরবরাহ করা হচ্ছ।ে ওই স্থানরে নানা সমস্যার জন্য এবং তাদরে চাদহিা বৃদ্ধরি ঘাণী টানতে হচ্ছে রাজাপুরবাসীক।ে রাজাপুর উপজলো পল্লী বদ্যিুতরে জুনয়ির প্রকৌশলী মোঃ মতউিরর রহমানরে কাছে লোডশডেংি এর সময় সর্ম্পকে জানতে চাইলে তনিি বলনে, প্রতদিনি এক ঘন্টা অথবা তার চয়েওে কম সময় দুই ফডিে ভাগ করে লোডশডেংি দয়ো হচ্ছ।ে এর বশেী রাজাপুরে লোডশডেংি নইে। মাঝে মাঝে যান্ত্রকি ত্রুটরি কারনে হয়ত বদ্যিুৎ থাকনো, তাও খুব কম। গ্রাহকরা অভযিোগ করে বলনে, যান্ত্রকি ত্রুটরি অযুহাতে কৃত্রমি লোডশডেংি দয়িে উপজলো পল্লী বদ্যিুত অফসি ও কর্বৈতখালি গ্রামরে সাবষ্টশেনরে র্কমরত লোকজন মোবাইল ফোন বন্ধ করে রাখ।ে এ লোডশডেংি এর মাধ্যমেে বদ্যিুত সাশ্রয় করে জলো অফসি থকেে সুনাম কাময়িে পদায়ন ও উপহার পাওয়ার জন্যই কৃত্রমি ভাবে করে থাক।ে