যৌতুক মামলায় শিক্ষককে গ্রেপ্তারের নির্দেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ স্ত্রীর দায়ের করা যৌতুক মামরায় স্বামী সহকারি শিক্ষককে গ্রেফতারের নির্দেশ দিয়েছে আদালত। গতকাল সোমবার মেট্রোপলিটন ম্যাজিষ্ট্রেট মোঃ রফিকুল ইসলাম এ নির্দেশ দেন। গ্রেফতারি পরোয়ানা প্রাপ্ত মাহাবুব হোসেন বাবু পশ্চিম কাউনিয়ার বাসিন্দা মোহাম্মদ হোসেনের ছেলে। বাবু গৌরনদীর পালরদী মডেল স্কুল এন্ড কলেজের ইংরেজী সহকারি শিক্ষক। মামলা সূত্রে জানাগেছে, বাবুর সাথে ২০০৮ সালের ১২ ডিসেম্বর গৌরনদীর মাহিলাড়া গ্রামের হাওলাদার মোজাহার উদ্দিনের কন্যা সালমা পারভিনের বিয়ে হয়। সালমা এবি ব্যাংকের সিনিয়র কর্মকর্তা। ২০১০ সালের শেষের দিকে তাদের একটি সন্তান হয়। এরপর থেকে বিভিন্ন সময় বাবু তার কাছে টাকা দাবী করে এবং তার বেতনের টাকা জোর করে ছিনিয়ে নেয়। এর ধারাবাতিকতায় ২০১৪ সালের ৪ সেপ্টেম্বর বাবু তার কাছে ৫ লাখ টাকা যৌতুক দাবী করে এবং ব্যাংক থেকে ২০ লাখ টাকা গৃহ নির্মান লোন দেয়ার জন্য চাপ প্রয়োগ করে। এতে অস্বীকার করলে বাবু সালমার উপর শারিরীক ও মানসিক নির্যাতন শুরু করে। এ পর্যায় তাকে বাড়ী থেকে বের করে দেয়। পরবর্তীতে মিমাংসার চেষ্টা করলে যৌতুকলোভী শিক্ষক টাকা ছাড়া তাকে নিতে অস্বীকৃতি জানায়। এ ঘটনায় ১৩ মে বাবুকে সুষ্ঠু ভাবে দাম্পত্য জীবন পরিচালনার আহবান জানিয়ে নোটিশ দেয়া হলেও কোন সাড়া না দেয়ায় গতকাল মামলা করা হয়।