মেহেন্দীগঞ্জ উপজেলা নির্বাচনে আ’লীগ সমর্থিত প্রার্থীরা বিশাল ব্যবধানে বিজয়ী

মেহেন্দীগঞ্জ প্রতিবেদক॥ মেহেন্দীগঞ্জ উপজেলা নির্বাচনে আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থীরা বিশাল ব্যবধানে বিজয়ী হয়েছেন। ১ লাখ ৯ হাজার ৭৭১ ভোট পেয়ে বেসকারীভাবে নির্বাচিত হয়েছেন দোয়াত-কলম প্রতীকের প্রার্থী কৃষক লীগ নেতা এডভোকেট মুনসুর আহমেদ। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি কাপপিরিচ প্রতীক নিয়ে চরমোনাই অনুসারী ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ সমর্থিত প্রার্থী মেজর (অব.) নাসির উদ্দিন খান পেয়েছেন ৬ হাজার ৮৬৭ ভোট। নির্বাচিত প্রার্থীর সাথে তার ভোটের ব্যবধান ১ লাখ ২ হাজার ৯০৪ ভোট। এছাড়া আনারস প্রতীক নিয়ে ২০ দলীয় জোট সমর্থিত প্রার্থী উপজেলা বিএনপি’র সভাপতি সাবেক পৌর মেয়র সৈয়দ রফিকুল ইসলাম লাবু পেয়েছেন ৫ হাজার ৭৬৭ ভোট। মোটরসাইকেল প্রতীক নিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী ওয়াহিদ হারুন পেয়েছেন ১ হাজার ৩২২ ভোট। পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান পদে উড়োজাহাজ প্রতীক নিয়ে ১ লাখ ৭ হাজার ২৪১ ভোট পেয়ে বেসরকারীভাবে নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী হোসেন আলম ভুলু। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী আব্দুল জব্বার কানন তালা প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৯ হাজার ৩৯৩ ভোট। ২০ দলীয় জোট সমর্থিত প্রাথী জামায়াত নেতা সুফিয়ার রহমান চশমা প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৬ হাজার ৬৭২ ভোট। পদ্মফুল নিয়ে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী  হমান বিনতে সফিকুল ইসলাম রুম্মান। তিনি পেয়েছেন ১ লাখ ৮ হাজার ৭২০ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি মুনমুন আক্তার ফুটবল প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৫ হাজার ৫৬৭ ভোট। প্রজাপতি প্রতীক নিয়ে আব্দুর রেজা কবির শিউলী পেয়েছেন ৪ হাজার ২৬৩টি ভোট। কলম প্রতীক নিয়ে চৌধুরী শরীফা নাসরিন পেয়েছেন ২ হাজার ৯২৭ ভোট। হাস প্রতীক নিয়ে আলেয়া বেগম পেয়েছেন ১ হাজার ৪শ’ ভোট। উলে¬খ্য নির্বাচন শুরুর ২ ঘন্টার মধ্যে উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী রফিকুল ইসলাম লাবু, নাসিরউদ্দিন খান ও ওয়াহিদ হারুন এবং ২০ দলীয় জোট সমর্থিত ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থীরা নির্বাচন বয়কট করেন।