মেহেন্দিগঞ্জের সাজাপ্রাপ্ত নারীর আত্মসমর্পন

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ মেহেন্দিগঞ্জ পূর্বকান্দির ৫ বছরের সাজাপ্রাপ্ত নারী আসামীকে জেলে পাঠিয়েছে আদালত। গতকাল বুধবার দন্ডপ্রাপ্ত আসামী পারভিন বেগম ২য় অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতে হাজির হয়ে জামিনের আবেদন করলে বিচারক মোঃ আদীব আলী না মঞ্জুর করে জেলে পাঠানোর নির্দেশ দেন। দন্ডপ্রাপ্ত পারভিন বেগম মেহেন্দিগঞ্জ পূর্বকান্দি উত্তর চরের সফিজল হক ব্যাপারির স্ত্রী। আদালত সূত্রে জানা যায়, মফিজ উদ্দিন ব্যাপারি ও সফিজল হক ব্যাপারি নিকট আত্মীয়। তাদের মধ্যে জমিজমা নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। পরে সফিজল তার স্ত্রী পারভিন মফিজ ব্যাপারির কাছে ১লাখ টাকা চাদা দাবী করে। টাকা দিতে অস্বীকার করায় ঘটনার দিন ২০১২ সালের ১১ নভেম্বর তাকে মারধর করে গুরুত্বর জখম করে। এ ঘটনায় মফিজ ব্যাপারি ওই বছরের ১৩ সেপ্টেম্বর ২জনকে অভিযুক্ত করে মামলা করে। এর প্রেক্ষিতে ২০১৩ সালের ২৯ জুলাই তৎকালিন ওই আদালতের বিচারক ৭জনের স্বাক্ষ্য গ্রহন শেষে সফিজল ও পারভিনের অনুপস্থিতিতে প্রত্যেককে ৫বছরের কারাদন্ড দেন। এছাড়াও ৫হাজার টাকা করে জরিমানা অনাদায়ে আরও ৬ মাসের দন্ডাদেশ দেন। উল্লেখ্য সফিজলকে গত ১৯ জুন পুলিশ আটক করে আদালতে হাজির করলে তাকেও জেলে পাঠানো হয়।