মেডিকেলে কিশোরীর লাশ ফেলে রেখে উধাও!

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের লাশ ঘরে পড়ে আছে এক অজ্ঞাত তরুণীর লাশ। তার বয়স ১৬ থেকে ১৭ বছর বলে ধারনা করা হচ্ছে। কেন এবং কিভাবে তার মৃত্যু হয়েছে কেউই তা বলতে পারছেন না। তবে রবিবার ভোর রাতে কয়েকজন ব্যক্তি কিশোরীর লাশ হাসপাতালে রেখে চলে যায় বলে জানিয়েছে প্রত্যক্ষদর্শীরা। শেবাচিম হাসপাতালের ওয়ার্ড মাস্টার আবুল কালাম আজাদ জানান, সকালে কয়েকজন ব্যক্তি মেয়েটিকে শেবাচিম হাসপাতালে নিয়ে আসে। জরুরী বিভাগে সংশ্লিষ্টদের কাছে তারা দাবী করেছে তরুনীর বাড়ি আগৈলঝাড়ায়। সেখান থেকেই তাকে নিয়ে আসে তারা। এদিকে শেবাচিম হাসপাতালে নিয়ে আসার পরে জরুরী বিভাগের চিকিৎসক মেয়েটিকে মৃত বলে ঘোষনা করেন। তাকে মৃত ঘোষনা করার পর পরই সাথে থাকা ব্যক্তিরা সটকে পড়ে। পরবর্তীতে লাশটি শেবাচিম হাসপাতালের লাশ সংরক্ষণ কক্ষে রাখা হলেও তার পরিচয় খুঁজে পায়নি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। এমনকি তার সন্ধানে কেউ আসেনি বলেও জানিয়েছেন ওয়ার্ড মাস্টার আবুল কালাম। বিষয়টি কোতয়ালী মডেল থানা পুলিশকে অবহিত করা হয়েছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।