মুক্তিযুদ্ধের নিভৃতচারী নীরব সাক্ষী বৃটিশ নাগরিক লুসি হল্টকে সম্মাননা প্রদান

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ মুক্তিযুদ্ধের নিভৃতচারী নীরব সাক্ষী আলোকিত নারী বৃটিশ নাগরিক মিস লুসি হেলেন ফ্রান্সিস হল্ট। ৭১-এর মুক্তিযুদ্ধের সময় অসহায় বাঙালিদের পাশে দাঁড়াতে সুদূর ইংল্যান্ড থেকে ছুটে এসেছিলেন তিনি। আলোকিত এই নারী দীর্ঘ ৯ মাস যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধাদের সেবা দিয়েছেন। তাছাড়া বাংলাদেশকে ভালোবেসে প্রায় ছয় দশক ধরে নগরীর অক্সফোর্ড মিশনের ডগলাস বোর্ডিংয়ের সেবায়েত হিসেবে অবস্থান করছেন মিস লুসি হেলেন ফ্রান্সিস হল্ট।
বাংলাদেশপ্রেমী এই নারী লুসি হল্টকে দেয়া হয়েছে সম্মাননা জানানো হয়ে তার প্রতি অগাধ শ্রদ্ধা ও ভালবাসার কথা। গতকাল মঙ্গলবার নগরীর বিডিএস ক্লাব মিলনায়তনে “অনন্যা লুসি হল্ট ও আমাদের ভালোবাসা” শীর্ষক সুধী সমাবেশের সম্মাননা, অগাধ শ্রদ্ধা ও ভালবাসার কথা জানানো হয়। এতে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বরিশাল ২ আসনের সাংসদ এ্যাড. তালুকদার মো. ইউনুস, বরিশাল ৫ আসনের সাংসদ জেবুন্নেছা আফরোজ, বরিশাল ৩ আসনের সাংসদ এ্যাড. শেখ টিপু সুলতান, বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এস এম ইমামুল হক, মেট্রোপলিটান পুলিশ কমিশনার এস এম রুহুল আমিন, জেলা প্রশাসক মো. হাবিবুর রহমান, সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. ওয়াহিদুজ্জামান, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মু. জিয়াউল হক, মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ, বরিশাল সদর উপজেলা চেয়ারম্যান সাইদুর রহমান রিন্টু, শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের অধ্যক্ষ ডা. ভাস্কর সাহা, সরকারি বরিশাল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক অলিউল ইসলাম, ব্রজমোহন কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ স্বপন কুমার পাল, শিক্ষাবিদ অধ্যাপক এম মোয়াজ্জেম হোসেন, জাতীয় পার্টির কেন্দ্রিয় ভাইস চেয়ারম্যান অধ্যাপক মহসিন উল ইসলাম হাবুল, মহানগর বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক জিয়াউদ্দিন সিকদার, মুক্তিযোদ্ধা আক্কাস হোসেন, জাসদ সভাপতি এ্যাড. আবদুল হাই মাহবুব, মহিলা পরিষদের সহ সভাপতি নুরজাহান বেগম, অপসোনিন ফার্মা লিমিটেডের প্রতিনিধি মো. রফিকুর রহমান প্রমুখ। সুধী সমাবেশে উপস্থিত সকলকে শুভেচ্ছা জানিয়ে বক্তব্য রাখেন ডিবিসি নিউজের সম্পাদক প্রণব সাহা। অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথিরা সকলেই তাদের বক্তব্যে বলেন, বাংলাদেশের জন্য লুসি হল্টের অবদান, চিরস্মরনীয় হয়ে থাকবে। পাশাপাশি সকলের অবস্থান থেকে লুসি হল্টের দ্বৈত নাগরিকত্ব এবং বছরের ভিসা নবায়নের ফি মওকুফের বিষয়ে সবার্ত্মক সহযোগীতা করবে বলে আশাব্যক্ত করেন তারা। অনুষ্ঠানে লুসি হল্টকে ডিবিসি নিউজ পরিবারের পক্ষ থেকে ফুলেল শুভেচ্ছা এবং সম্মাননা ক্রেস্ট তুলে দেয়া হয়। এছাড়াও অপসোনিন ফার্মা লিমিটেডের পক্ষ থেকে ফুলেল শুভেচ্ছা ও সম্মাননা ক্রেস্ট এবং লুসি হল্টের ভিসা নবায়নের জন্য দেয়া অর্থের চেক প্রদান করা হয়। পাশাপাশি লুসি হল্টকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান, বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ, মেট্রোপলিটন পুলিশ, মহানগর আওয়ামীলীগ, দৈনিক আজকের পরিবর্তন পরিবারসহ সমাজের বিভিন্ন স্তরের সামাজিক, রাজনৈতিক এবং সাংষ্কৃতিক অঙ্গনের নেতৃবৃন্দ। “অনন্যা লুসি হল্ট ও আমাদের ভালোবাসা” শীর্ষক সুধী সমাবেশের সংবর্ধিত গুনী ব্যক্তি মিস লুসি হেলেন ফ্রান্সিস হল্ট তার বক্তব্যে তাকে সংবর্ধিত করার জন্য ডিবিসি নিউজকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। এছাড়াও তার দ্বৈত নাগরিকত্ব এবং বছরের ভিসা নবায়নের ফি মওকুফের বিষয়ে সকলের এগিয়ে আসায় কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন তিনি। চলনে-বলনে বাঙালিয়ানা লুসির একটিই চাওয়া বাংলার মাটিতে শেষ বিদায়। সেজন্য তিনি বরিশালের মাটিতে তাকে কবরস্থ করার জন্য নির্দিষ্ট স্থানও ঠিক করে রেখেছেন।
প্রথম আলো বরিশাল প্রতিনিধি সাইফুর রহমান মিরনের সঞ্চালনায় সুধী সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন সরকারি ব্রজমোহন কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ অধ্যাপক স.ম ইমানুল হাকিম, প্রকৌশলী শহীদুল ইসলাম, শিশু সংগঠক জীবন কৃষ্ণ দে, দৈনিক আজকের পরিবর্তন পত্রিকার প্রকাশক ও সম্পাদক কাজী মিরাজ মাহমুদ, মহিলা পরিষদের সাধারন সম্পাদক পুষ্প চক্রবর্তী, ওর্য়াকার্স পার্টির জেলা সভাপতি অধ্যাপক নজরুল হক নিলু, গনফোরাম সভাপতি এ্যাড. হিরন কুমার দাস মিঠু, ডিবিসি নিউজ বরিশাল ব্যুরো প্রধান অপূর্ব অপুসহ সমাজের বিভিন্ন স্তরের নেতৃবৃন্দ। উল্লেখ্য, বৃটিশ নাগরিক মিস লুসি হেলেন ফ্রান্সিস হল্ট ১৯৩০ সালে ইংল্যান্ডের সেন্ট হেলেন শহরে জন্মগ্রহন করেন। বরিশাল অক্সফোর্ড মিশন হাসপাতালে মাত্র ৩০ বছর বয়সে সেবায়েত হিসেবে যোগদান করেন তিনি। দু’বছর পর দেশে ফেরার কথা থাকলেও এখানকার প্রকৃতি, মানুষ ও মাটির ভালোবাসা মুগ্ধ করে তাকে। দীর্ঘ ৫৬ বছর ধরে এখনো মানুষের সেবা করে আসছেন তিনি।